১৯ অক্টোবর ২০১৯, ৪ কার্তিক ১৪২৬, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
 
সর্বশেষ

শেরপুরে ধর্ষণের শিকার কিশোরী ধর্ষক গ্রেফতার

প্রকাশিত : ৯ অক্টোবর ২০১৯, ০৯:৩৬ পি. এম.
শেরপুরে ধর্ষণের শিকার কিশোরী  ধর্ষক গ্রেফতার

নিজস্ব সংবাদদাতা, শেরপুর ॥ শেরপুরের শ্রীবরদীতে হতদরিদ্র পরিবারের সপ্তম শ্রেণি পড়ুয়া এক কিশোরীকে (১৩) ধর্ষণের অভিযোগে ফরিদ মিয়া (৩০) নামে ধর্ষককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার ভোরে উপজেলার খরিয়াকাজীরচর ইউনিয়নের খরিয়া এলাকা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। বিকেলে তাকে আদালতে সোপর্দ করা হলে ভারপ্রাপ্ত চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ সুলতান মাহমুদ জেলা কারাগারে প্রেরণ করেন।

জানা যায়, শ্রীবরদী উপজেলার খরিয়াকাজীরচর ইউনিয়নের উত্তর খরিয়া গ্রামের ওই কিশোরীর পিতা ঢাকায় রিক্সা চালায় এবং ওই কিশোরী তার বৃদ্ধা দাদীর সাথে বাড়িতে বসবাস ও স্থানীয় খরিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে সপ্তম শ্রেণিতে পড়াশোনা করে। ওই কিশোরীকে প্রতিবেশী মজিবর রহমানের বখাটে ছেলে এক সন্তানের জনক ফরিদ মিয়া প্রায়ই উত্যক্ত করতো। সোমবার রাত ৯টার দিকে ওই কিশোরী প্রকৃতির ডাকে ঘরের বাইরে বের হলে ওৎ পেতে থাকা বখাটে ফরিদ মিয়া তার মুখে গামছা বেঁধে জোরপূর্বক বাড়ির পাশে এলাচি কাঠ গাছের বাগানে নিয়ে তাকে ধর্ষণ করে।

ওইসময় ওই কিশোরীর ডাক-চিৎকারে আশ-পাশের লোকজন ঘটনাস্থলে এগিয়ে গেলে ফরিদ মিয়া পালিয়ে যায়। পরে বিষয়টি নিয়ে এলাকায় আপোস-রফার নামে সময় ক্ষেপণ করতে থাকে স্থানীয় একটি মহল। এদিকে খবর পেয়ে ঢাকা থেকে এলাকায় ফিরে কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে মঙ্গলবার রাতে শ্রীবরদী থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

পরে বুধবার ভোরে পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) বন্দে আলীর নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে নিজ এলাকা থেকে ফরিদ মিয়াকে গ্রেফতার করে পুলিশ। সেইসাথে ধর্ষিতা কিশোরীকে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ও পরে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এ ব্যাপারে শ্রীবরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ রুহুল আমিন তালুকদার বলেন, হতদরিদ্র পরিবারের ওই কিশোরীকে ধর্ষণের ঘটনায় থানায় নিয়মিত মামলা গ্রহণ করা হয়েছে। ওই মামলায় ধর্ষককে গ্রেফতার করে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। এছাড়া ভিকটিমকে জেলা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। ডাক্তারি পরীক্ষা শেষে আদালতে তার জবানবন্দি গ্রহণ করা হবে।

প্রকাশিত : ৯ অক্টোবর ২০১৯, ০৯:৩৬ পি. এম.

০৯/১০/২০১৯ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন

দেশের খবর



শীর্ষ সংবাদ: