মেঘলা, তাপমাত্রা ৩১.১ °C
 
১৯ আগস্ট ২০১৭, ৪ ভাদ্র ১৪২৪, শনিবার, ঢাকা, বাংলাদেশ
সর্বশেষ

কারারুদ্ধ সৌদি ব্লগারের পক্ষে পুরস্কার নিলেন তাঁর স্ত্রী

প্রকাশিত : ১৮ ডিসেম্বর ২০১৫

সৌদি আরবের কারাবন্দী ব্লগার রাইফ বাদাউইকে বুধবার ইউরোপীয় পার্লামেন্টের সম্মানজনক শাখারভ মানবাধিকার পুরস্কার প্রদান করেছে। বুধবার ইউরোপীয় পার্লামেন্টের কাছ থেকে এই পুরস্কার তার কানাডা প্রবাসী স্ত্রী ইনসাফ হায়দার। খবর এএফপি, এবিসি অনলাইন ও এনডিটিভি অনলাইনের।

বাদাউইকে ২০১২ সালে আটক করা হয়েছিল। তার বিরুদ্ধে ইসলাম ধর্মকে অবমাননা করার অভিযোগ আনা হয়েছে। এই অভিযোগে দেশটির একটি আদালত তাকে ১০ বছরের জেল ও ১ হাজার বেত্রদ- দিয়েছিল। ৩১ বছর বয়সী বাদাউই আরব দেশগুলোতে একনায়কতন্ত্র বিপক্ষে ও মত প্রকাশের স্বাধীনতার জন্য ব্লগ লিখতেন।

ইনসাফ হায়দার বলেছেন, ‘তিনি মনে করেন যে, মত প্রকাশের স্বাধীনতা হলো বাতাসের মতো যেখানে নিশ্চিন্তে শ্বাস নেয়া যায়। ভাল হতো যদি আমার স্বামী নিজে এই পুরস্কার গ্রহণ করতেন।’ অনুষ্ঠানে তার পুরস্কারটি রাখা হয় একটি খালি চেয়ারের ওপর। ফ্রান্সের স্ট্রাসবুর্গে অবস্থিত ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের পার্লামেন্টে প্রবেশ করার সময় ইনসাফের সঙ্গে ছিল তার স্বামীর ছবি।

তিনি গত মাসে প্যারিসে রক্তক্ষয়ী সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের প্রতি সম্মান জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা প্রকাশের আহ্বান জানান। বাদাউই যেন নিজ হাতে শাখারভ পুরস্কার গ্রহণ করতে পারে সে জন্য তার মুক্তির জন্য সৌদি বাদশাহ সালমানের কাছে অনুরোধ জানিয়েছিলেন ইউরোপীয় পার্লামেন্টের প্রেসিডেন্ট মার্টিন শুলজ।

সৌদি আরবে ইন্টারনেট ডিসকাশন গ্রুপ সৌদি লিবারেল নেটওয়ার্কের সহপ্রতিষ্ঠাতা ছিলেন। গ্রুপটি মুক্ত মত প্রকাশের জন্য কাজ করে যাচ্ছে। ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ যেন মানুষের ব্যক্তিগত হস্তক্ষেপ না করেন তা এই গ্রুপের অন্যতম এজেন্ডা। বাদাউইর দুই মেয়ে ও এক ছেলে রয়েছে। তার স্ত্রী ও ছেলেমেয়েরা কানাডার কুইবেকে রাজনৈতিক আশ্রয় পেয়েছেন।

প্রকাশিত : ১৮ ডিসেম্বর ২০১৫

১৮/১২/২০১৫ তারিখের খবরের জন্য এখানে ক্লিক করুন


শীর্ষ সংবাদ: