১৯ নভেম্বর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট পূর্বের ঘন্টায়  
Login   Register        
ADS

পটিয়ায় ঈদ মার্কেটে জমজমাট ব্যবসা


পটিয়া সংবাদদাতা ॥ ঘনিয়ে এসেছে মুসলমানদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব ঈদ-উল-ফিতর। চট্টগ্রামের পটিয়া পৌর সদর ও উপজেলার ছোট বড় মার্কেটগুলোতে সকাল থেকে রাত ১টা পর্যন্ত ব্যবসা জমজমাট হয়ে উঠেছে। ফলে প্রতিটি মার্কেটে ক্রেতাদের রয়েছে প্রচ- ভিড়। পৌর সদরের আলম প্লাজা, চৌধুরী মার্কেট, তৈয়বিয়া মার্কেট, আবুল কাশেম মার্কেট, দেলাল মিয়া শপিং, গুলজার সুপার মার্কেট, আর এন মার্কেট, পটিয়া সিটি, পটিয়া নিউমার্কেট, শাহ আমির মার্কেট, রহমান মার্কেট, পটিয়া সুপার মার্কেট, জাকির টাওয়ার, এন জে শপিং কমপ্লেক্স, সবুর মার্কেট, ছমদিয়া সুপার মার্কেট, হাজী শপিং কমপ্লেক্স থেকে পছন্দের শাড়ি, শার্ট, থ্রিপিস কিনতে ক্রেতারা পছন্দের পোশাক কিনতে ছুটে চলেছেন।

এবার মেয়েদের পছন্দের শীর্ষে রয়েছে ‘কিরণমালা’ নামের একটি থ্রিপিস। যুবতী মেয়েরা মার্কেটে ঢোকার সঙ্গে সঙ্গে খুঁজছে কিরণমালা থ্রিপিস। কিরণমালা ছাড়াও এবার মার্কেটে রয়েছে দিল্লী স্টাইলের থ্রিপিস, বিভিন্ন স্কার্ট, লেহেঙ্গা, খুশি থ্রিপিস, রং-ফ্রক, বিশালা, থ্রিপিস, কোপি সেট, পাখি ফ্রগ, বাবা সেট, কোকি ফ্রকসহ বিভিন্ন ধরনের জামা। এসব জামা সাজিয়ে রেখেছে পৌর সদরের শাহ আমির মার্কেটের বড় বাজার, রহমান মার্কেটের পলাশ গার্মেন্টস, ফ্যাশন প্লাজা, আইয়ুব ব্রাদার্স, তৈয়্যবিয়া মার্কেটে নিউ শাড়িকা, স্বপ্ন, ননী সুপার মার্কেটের মনে রেখোর প্যাবিলিয়ন, গুলজার সুপার মার্কেটে আলভি ফ্যাশন, লেডিস ফ্যাশন, ওড়না হাউস।

অন্যদিকে শাহ তৈয়বীয় মার্কেটের ইখরা ফ্যাশন, ওয়ান মোর, প্যান্ট গ্যালারি, দেলাল মিঞা শপিংমলের ডি-এক্স সেভেন, ওয়ার্ল্ড চয়েস, গুলজার সুপার মার্কেটে টাইটেনিক, শাহ আমির মার্কেটের বড় বাজার, ননী সুপার মার্কেটে আলম পাঞ্জাবী হাউস, নিউ নুর ফ্যাশন, কাশেম মার্কেটের ঢাকা ফ্যাশন, জেন্স কালেকশনসহ বেশ কয়েকটি দোকানে পুরুষের পছন্দের কাপড় মিলছে।

এছাড়া উপজেলার শান্তিরহাট মীর সুপার মার্কেট, পশ্চিম পটিয়া কলেজ বাজারে ছোট বড় অনেক দোকান রয়েছে যেগুলোতেও নারী পুরুষ ঈদের কেনাকাটায় ব্যস্ত। অন্যদিকে জুতোর জন্য পৌরসদরের ছবুর রোডে ভিআইপি কালেকশন, এলিট, পাদুকা বাজার, রিভার ভিউ, মেমোরি সুজ ছাড়াও শাহ আমির মার্কেটে বিশেয়ায়িত জুতোর দোকান ‘ডাটা বাজার’ গ্রাহকদের নজর কাড়ছে। এসব মার্কেটের দোকানগুলোতে রাত ১টা পর্যন্ত বিরামহীন গতিতে চলছে বেচা কেনা।

পটিয়া থানার ওসি রেফায়েত উল্লাহ চৌধুরী জানিয়েছেন, ঈদ মার্কেটে বখাটে কিংবা কোন চাঁদাবাজির অভিযোগ পেলেই তাৎক্ষণিকভাবে ব্যবস্থা নেয়া হবে। পটিয়া সদর ও উপজেলার ছোট বড় মার্কেটগুলোতে অতিরিক্ত টহল পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এসব পুলিশের পাশাপাশি থাকছে গোয়েন্দা পুলিশ। ফলে মার্কেটের সামনে কোন বখাটে ইভটিজিং কিংবা কোন ব্যবসায়ীর কাছ থেকে চাঁদাবাজির চেষ্টা করলে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।