১৯ অক্টোবর ২০১৭,   ঢাকা, বাংলাদেশ   শেষ আপডেট এই মাত্র  
Login   Register        
ADS

ঈদে মহাসড়কে এবার কোন চাঁদাবাজি হবে না ॥ আইজিপি


স্টাফ রিপোর্টার ॥ ঈদ সামনে রেখে দেশবাসীকে স্বস্তির কথা শুনিয়েছেন পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) একেএম শহিদুল হক। শতভাগ নিশ্চয়তা দিয়েছেন এবারের ঈদে মহাসড়কে কোন ধরনের চাঁদাবাজি হবে না। সেজন্য কড়া নির্দেশ দেয়া হয়েছে। রোজার শুরু থেকে এখন পর্যন্ত কোন ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনার খবর নেই বলে দাবি করেন তিনি। রমজান ও ঈদ-উল-ফিতর উপলক্ষে পুলিশ সদর দফতরে রবিবার দুপুরে নিরাপত্তা সংক্রান্ত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ ধরনের নিশ্চয়তা দিয়েছেন দেশবাসীকে।

বেশ খোলামেলা কথায় নিশ্চয়তা দিয়ে আইজি বলেন, ‘এখন পর্যন্ত মহাসড়কে চাঁদাবাজির অভিযোগ পাওয়া যায়নি। যদি কোন ব্যক্তি, মহল এ ধরনের কাজে লিপ্ত থাকে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।’ রাজধানীর যানজট প্রসঙ্গে এ কে এম শহিদুল হক বলেন, ঈদকে কেন্দ্রে করে রাজধানীর বাইরে থেকে অনেক মানুষ গাড়ি নিয়ে কেনাকাটার জন্য ঢাকায় আসেন। তখন গাড়ির সংখ্যা বৃদ্ধি পায়। সেজন্য যানজটও বাড়ে। তবে পুলিশ যানজট নিয়ন্ত্রণের চেষ্টা চালাচ্ছে। পুলিশের কনস্টেবল থেকে কমিশনার পর্যন্ত সবাইকে যানজট নিরসনের জন্য বিশেষ নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

ঈদে ঢাকার অধিকাংশ মানুষ ঢাকার বাইরে যান। সে ক্ষেত্রে তাদের বাসা-বাড়ির নিরাপত্তার জন্য পুলিশের বিশেষ কোন ব্যবস্থা থাকবে কিনা সংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘যারা বাড়ি যাবেন তাদের বাসাগুলোও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা নজরদারিতে রাখবে। ইতোমধ্যে বিভিন্ন জোনের ডিসিদের নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। তিনি বাসার মালিক ও ভাড়াটিয়ার উদ্দেশে বলেন, ‘ভাল তালা লাগিয়ে যাবেন। পাশাপাশি ঘরের পর্দাগুলোও লাগাবেন। যাতে বাইরে থেকে কিছু না দেখা যায়।

টিকেট কালোবাজারি প্রসঙ্গে পুলিশ প্রধান বলেন, ‘টিকেট কালোবাজারি রুখতে পরিবহন মালিক ও সংশ্লিষ্ট সকলের সঙ্গে বৈঠক করেছি। কালোবাজারি রুখতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা কাজ করছে। একই সঙ্গে বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরাও অপরাধীদের ধরতে সচেষ্ট রয়েছে।

আইজিপি বলেন, ৫০ লাখ লোক ঢাকার বাইরে যান। এ অবস্থায় টিকেট শেষ হতেই পারে। তবে কেউ যদি কালোবাজারি করে তবে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।

খালেদার অভিযোগ মিথ্যা ॥ একই বিফ্রিংয়ে পুলিশ পেট্রোলবোমা ছুড়ে বিএনপির আন্দোলন বন্ধ করে দিয়েছে-বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার এমন অভিযোগকে ডাহা মিথ্যা বলেছেন শহীদুল হক।

সাংবাদিকদের প্রশ্ন রেখে পুলিশ প্রধান বলেন, ‘আপনারা রাস্তাঘাটে থাকেন, তথ্য সংগ্রহ করেন, এমন কিছু পেয়েছেন? নিশ্চয়ই পাননি। খালেদা জিয়ার অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা।

তিনি বলেন, কারা এসব ঘটনা ঘটিয়েছে দেশবাসী জানে। আপনারাও জানেন। পুলিশের ভাবমূর্তি নষ্ট করতেই এমন অভিযোগ করা হয়েছে। সমাজের দায়িত্বশীল ব্যক্তিদের কাছ থেকে জাতি এ ধরনের বক্তব্য আশা করে না।