ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ২১ মে ২০২৪, ৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

বাংলাদেশকে ভুগিয়ে মাসসেরা কামিন্দু

স্পোর্টস রিপোর্টার

প্রকাশিত: ০১:১৪, ৯ এপ্রিল ২০২৪

বাংলাদেশকে ভুগিয়ে মাসসেরা কামিন্দু

কামিন্দু মেন্ডিস

ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে বাংলাদেশ যাদের লক্ষ্য করে পরিকল্পনা সাজিয়েছিল কামিন্দু মেন্ডিস নিশ্চয়ই সেই তালিকায় ছিলেন না। অথচ ২৫ বছর বয়সী এ অলরাউন্ডারই নাজমুল হোসেন শান্তদের গর্তে ঢুকিয়ে তুলে নেন সিরিজসেরার পুরস্কার! চট্টগ্রামে ফয়সালার শেষ টেস্টে অপরাজিত ৯২ রান করার পর বল হাতে ৩ উইকেট নিয়ে হন ম্যাচসেরা। তার আগে সিলেটে সাত নম্বরে ব্যাটিংয়ে নেমে দুই ইনিংসেই হাঁকিয়েছেন সেঞ্চুরি (১০২ ও ১৬৪)।

আইসিসির মার্চ মাসের সেরা হয়ে দুর্দান্ত এই পারফরম্যান্সের পুরস্কার পেলেন কামিন্দু। তিনি পেছনে ফেলেছেন আয়ারল্যান্ডের মার্ক অ্যাডেয়ার ও নিউজিল্যান্ডের ম্যাট হেনরিকে। প্রবাথ জয়সুরিয়া ও ওয়ানিন্দু হাসারাঙ্গার পর শ্রীলঙ্কার তৃতীয় পুরুষ ক্রিকেটার হিসেবে এ স্বীকৃতি পেলেন কামিন্দু।  আর নারী ক্রিকেটে সেরা হয়েছেন ইংল্যান্ডের মায়া বুশিয়ে। বাংলাদেশ সফরে টেস্ট সিরিজটা স্বপ্নের মতো কাটে কামিন্দু মেন্ডিসের।

প্রায় দুই বছর পর এই সংস্করণে সুযোগ পেয়ে সিলেট টেস্টে তিনি যখন ব্যাটিংয়ে নামেন, ৫৭ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে ধুঁকছিল শ্রীলঙ্কা। সেখান থেকে অধিনায়ক ধনাঞ্জয়া ডি সিলভার সঙ্গে ২০২ রানের দুর্দান্ত জুটিতে দলকে উদ্ধার করেন বাঁহাতি এই ব্যাটসম্যান। দুজনের ব্যাট থেকেই আসে ১০২ রান। পরে দ্বিতীয় ইনিংসে দল ১২৬ রানে ৬ উইকেট হারানোর পর আট নম্বরে ব্যাটিংয়ে নামেন মেন্ডিস। এবার তিনি খেলেন ২৩৭ বলে ক্যারিয়ার সেরা ১৬৪ রানের ইনিংস।

প্রথম ব্যাটসম্যান হিসেবে কোনো টেস্টে সাত কিংবা এর নিচে নেমে দুই সেঞ্চুরির কীর্তি গড়েন। শ্রীলঙ্কা পায় ৩২৮ রানের বড় জয়। চট্টগ্রামে ৩০ মার্চ শুরু দ্বিতীয় টেস্টের দ্বিতীয় দিন মেন্ডিসের ব্যাট থেকে আসে ১৬৭ বলে অপরাজিত ৯২ রানের ইনিংস। সঙ্গে অফস্পিনে নেন ৩ উইকেট। ২০১৮ সালে ওয়ানডে দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পা রাখা কামিন্দু শ্রীলঙ্কার হয়ে ৩ টেস্ট, ৭ ওয়ানডে ও ১০ টি২০ খেলেছেন।

×