ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১৫ ফাল্গুন ১৪৩০

হেরাথের বিশেষ ক্লাস

স্পোর্টস রিপোর্টার

প্রকাশিত: ০০:০৯, ২৭ মে ২০২৩

হেরাথের বিশেষ ক্লাস

শূন্যে লাফিয়ে ম্যাচের শুরুতেই হেডে গোল করে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে এগিয়ে দেন ব্রাজিলিয়ান তারকা কাসেমিরো 

নতুন প্রধান কোচ ও ব্যাটিং কোচ ডেভিড হেম্প যোগ দিয়েছেন। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) হাই পারফর্ম্যান্স (এইচপি) ইউনিটের মাসব্যাপী প্রোগ্রাম শুরু হয়েছে ইতোমধ্যে। মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে চলছে এইচপিতে ডাক পাওয়া ক্রিকেটারদের ফিটনেস ও স্ক্রিনিং টেস্টসহ প্রয়োজনীয় নির্দেশনামূলক ক্লাস। ২৫ ক্রিকেটারকে ডাকা হয়েছে ক্যাম্পের জন্য। যদিও বেশ কয়েকজন ‘এ’ দলের হয়ে খেলার কারণে আপাতত নেই। কিন্তু এই ক্রিকেটারদের ১ জুন থেকে রাজশাহীতে হবে স্কিল ক্যাম্প।

তখন একজন স্পিন বোলিং কোচ প্রয়োজন হবে। বিসিবি কথাবার্তা চালিয়ে যাচ্ছে পাকিস্তানের সাবেক স্পিনার আরশাদ খানের সঙ্গে। তিনি রাজশাহীতে যোগ দিতে পারেন এইচপি স্কোয়াডের সঙ্গে। তবে এর আগেই দলটিতে থাকা ৭ স্পিনারকে নিয়ে ২ দিনের বিশেষ স্কিল ক্যাম্প করবেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের স্পিন কোচ রঙ্গনা হেরাথ। সাবেক এই শ্রীলঙ্কান বাঁহাতি স্পিনার আগামী ২৯ ও ৩০ মে মিরপুরে এই ক্যাম্প করবেন। 
এইচপির দায়িত্ব নেওয়ার পরই হেম্প জানিয়েছিলেন, জাতীয় দলের কোচ চান্দিকা হাতুরুসিংহের সঙ্গে আলোচনা করেই প্রয়োজনীয় কর্মকা- চালিয়ে যাবেন তিনি। কারণ এইচপি হচ্ছে জাতীয় দলের পাইপলাইন তৈরির জায়গা। অতীতে এবং সাম্প্রতিক সময়ে অনেক ক্রিকেটার এইচপি প্রোগ্রাম থেকে বেরিয়ে এসে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ভালো ভূমিকা রেখেছেন। এবার এই দলটিতে আছেন ৭ স্পিনার। রাকিবুল হাসান, হাসান মুরাদ, রিশাদ হোসেন, আরিফুল ইসলাম আকাশ, নাঈম আহমেদ, টিপু সুলতান ও নাইম হোসেন সাকিব। এই স্পিনারদের ভবিষ্যতে ভালোভাবে প্রস্তুতের জন্য লম্বা অনুশীলন ক্যাম্পে রাখা হয়েছে। জুলাইয়ে শ্রীলঙ্কায় অনুষ্ঠিত হবে এসিসি ইমার্জিং টিমস এশিয়া কাপ।

আর তাই ২৫ ক্রিকেটারকে নিয়ে এইচপির ক্যাম্প চলবে ২৬ জুন পর্যন্ত। ১ জুন রাজশাহীতে শুরু হওয়া স্কিল ক্যাম্প আবার বগুড়ায় যাবে এবং সব মিলিয়ে ২৬ জুন শেষ হবে। তবে আপাতত দলটিতে কোনো স্পিন কোচ নেই। এ কারণে স্কিল ক্যাম্প শুরুর আগেই জাতীয় দলের স্পিন কোচ হেরাথকে এই উদীয়মান তরুণ স্পিনারদের দায়িত্ব দেওয়া হবে ২ দিনের জন্য। মিরপুরে ৭ স্পিনারকে নিয়ে কাজ করবেন হেরাথ। 
পাকিস্তানের সাবেক অফস্পিনার আরশাদ খান ২১ দিনের জন্য আসতে পারেন আপাতত। বিসিবি সেই আলোচনাই করছে। আরশাদ ১৯৯৩ থেকে ২০০৬ সাল পর্যন্ত পাকিস্তানের জার্সিতে ৯ টেস্ট ও ৫৮ ওয়ানডে খেলেছেন। টেস্টে ৩২ এবং ওয়ানডেতে ৫৬ উইকেট আছে তার। এরপর কোচিং পেশাকে বেছে নিয়েছেন তিনি। পাকিস্তান মহিলা ক্রিকেট দলের প্রধান কোচ হিসেবে ২০২০ সালে নিয়োগ পান তিনি।

এবার এইচপির স্পিন বোলিং কোচ হিসেবে তাকেই আনার আলোচনা চলছে। শেষ পর্যন্ত তার সঙ্গে আলোচনা ফলপ্রসূ হলে আপাতত এইচপি ক্যাম্পের জন্য আসবেন আরশাদ। তার আগে ২ দিন এই তরুণ স্পিনারদের দেখবেন হেরাথ। শনিবার ছুটি কাটিয়ে বাংলাদেশে ফিরবেন এ শ্রীলঙ্কান। এইচপি স্কোয়াডে থাকা ৭ স্পিনারের মধ্যে ৪ জনই অবশ্য অফস্পিনার। ২ জন আছেন লেগস্পিনার এবং একজন বাঁহাতি স্পিনার।

×