ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ২৬ জুন ২০২৪, ১৩ আষাঢ় ১৪৩১

ঘোড়াশালের বিউবো উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী-শিক্ষকদের মিলনমেলা

প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচে জুনিয়ররা হারালো সিনিয়রদেরকে

প্রকাশিত: ১৯:৪৪, ২৯ মার্চ ২০২৩; আপডেট: ২১:২৭, ২৯ মার্চ ২০২৩

প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচে জুনিয়ররা হারালো সিনিয়রদেরকে

ছবিতে বসা অবস্থায় জুনিয়র এবং দাঁড়ানো অবস্থায় সিনিয়র একাদশ। তাদের সঙ্গে স্কুলের সাবেক চার শিক্ষার্থী

২৭ মার্চ (সোমবার)। চৈত্রের সকাল। নরসিংদীর ঘোড়াশালের পলাশের বিদ্যুৎ কেন্দ্র খেলার মাঠ। পাশেই অবস্থিত বিদ্যুৎ উন্নয়ন বোর্ড উচ্চ বিদ্যালয় (স্থাপিত : ১৯৭০)। মাঠের পাশেই শামিয়ানা টাঙ্গানো হয়েছে। স্থাপন করা হয়েছে অস্থায়ী মঞ্চ। একটু পরেই সেখানে এসে হাজির হলেন স্কুলের সাবেক শিক্ষক, সাবেক শিক্ষার্থী, বর্তমান শিক্ষার্থীসহ আরও অনেকেই। এ যেন  এক মিলনমেলা। একটু পরেই মাঠে শুরু হলো এক প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচ, যাতে অংশ নেয় বিউবো উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থীরা। প্রতিপক্ষ দুই দলের নাম পিডিবি হাই স্কুল সিনিয়র এক্স-স্টুডেন্টস ইলেভেন এবং পিডিবি হাই স্কুল জুনিয়র এক্স-স্টুডেন্টস ইলেভেন।  
খেলায় জুনিয়র ইলেভেন ৭ উইকেটে হারায় সিনিয়র ইলেভেনকে। টসে জিতে সিনিয়র ইলেভেন আগে ব্যাটিং করে। নির্ধারিত ১২ ওভারে তারা ৭ উইকেট সংগ্রহ করে ১০৩ রান। রাসেল ৪৬, রুমেল ১৮ (অপরাজিত), আনিবুর ১১, নাজমুল ৫ (অপ.), শফিক ৫, মবিন ৩, ফারুক ৩, আইনুল ২ রান করেন। অতিরিক্ত রান হয় ১০।  জুনিয়র ইলেভেনের হাসেম ৩, সোহাগ ২ এবং আবুবকর  ২টি করে উইকেট লাভ করেন।

প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচের আগে জাপানের পতাকা উত্তোলন করছেন স্কুলের প্রধান শিক্ষক, তার দু’পাশে দুই জাপানি অতিথিজবাবে ব্যাট করতে নেমে জুনিয়র ইলেভেন ৯.৩ ওভারে ৩ উইকেট হারিয়ে ১০৪ রান করে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায়। সোহাগ ৩০, রাজীব ১৮, হাসেম ৮ (অপ.), স্বপন ৫ এবং আবু বকর ৪ (অপ.) রান করেন। দলের সর্বোচ্চ ৩৯ রানই আসে “মিস্টার এক্সট্রা”র বদৌলতে! আলতাফ ২টি ও নাজমুল ১টি করে উইকেট লাভ করেন। অলরাউন্ড নৈপুণ্যের জন্য জুনিয়র ইলেভেনের সোহাগ ম্যাচসেরার পুরস্কার লাভ করেন।
ম্যাচে আম্পায়ার ছিলেন জাহাঙ্গীর হোসেন ও আবুল কালাম আজাদ। ধারাভাষ্য দেন হাফিজুর রহমান, শফিকুল ইসলাম এবং আতিক উল্লাহ।
খেলার আগে বিউবো উচ্চ বিদ্যালয়ের সাত সাবেক শিক্ষককে সম্মাননা জানানো হয়। তারা হলেন : আবুল কালাম (সাবেক প্রধান শিক্ষক), গোলাম মোস্তফা, জাকির হোসেন, মঞ্জুর হোসেন, নুরুল ইসলাম, সূর্যলাল ঘোষ এবং আবদুল মান্নান মিয়া।
এছাড়া সম্মাননা জানানো হয় বহু কৃতী ফুটবলার গড়ার কারিগর এবং বিশিষ্ট ফুটবল কোচ ইমতিয়াজ খান লাবলুকে। 
এছাড়া আমন্ত্রিত অতিথি হিসেবে প্রীতি ক্রিকেট ম্যাচ উপভোগ করেন স্কুলের বর্তমান প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমান এবং সহকারী প্রধান শিক্ষক নুরুল হক।

স্কুলের সাবেক প্রধান শিক্ষক আবুল কালামকে সম্মাননা জানাচ্ছেন অনুষ্ঠানের আয়োজক ও স্কুলের সাবেক ছাত্র মিজানুর রহমান পলাশপুরো আয়োজনের পরিকল্পনাকারী ও পৃষ্ঠপোষক ছিলেন বিউবো উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী মিজানুর রহমান পলাশ (১৯৯২ এসএসসি ব্যাচ)। তিনি বর্তমানে জাপান প্রবাসী এবং সেখানকার পিওয়াই এন্ড টোমোনি এইচআর কোম্পানি বাংলাদেশের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা। পলাশের সঙ্গে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এবং তার চার জাপানি ব্যবসায়িক অংশীদাররাও (টোমোনি গ্রুপের প্রেসিডেন্ট নাকাতা ইয়োশিনরি, আর্থ কোম্পানির প্রেসিডেন্ট মিয়াও হিরোশি, জাপানের সঙ্গীতজ্ঞ-ইউটিউবার-এফএম রেডিও জকি ইশিদা শিগেকি এবং কিয়োশিনের ডিরেক্টর ইয়োশিদা মেগুমি) উপস্থিত ছিলেন। তাদেরকেও সম্মাননা জানানো হয়। জাপানি অতিথিদের সম্মানে রাষ্ট্রীয় নিয়ম অনুযায়ী জাপানের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয় (সঙ্গে বাংলাদেশের জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়) এবং জাপানের জাতীয় সঙ্গীত বাজানো হয়।
এছাড়া অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বিউবো উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষার্থী আসাদুজ্জামান খান, হাফিজুর রহমান ফুলন, আক্তার হোসেন, সালাউর রহমান, আলতাফ হোসেন, মহসিন হোসেন খান, আমিন ইয়াসিন, মিল্টন সরকার প্রমুখ। 
পিডিবি হাই স্কুল সিনিয়র এক্স-স্টুডেন্টস ইলেভেন : আইনুল (অধিনায়ক, ১৯৯১ এসএসসি ব্যাচ), ফারুক (সহ-অধিনায়ক, ৯২), রুমেল (৯৩), নাজমুল (৯৩), সুমন (৯৩), আনিবুর (৯৩), জাফর (৯৩), মবিন (৯৪),  আলতাফ, (৯৪), রাসেল (৯৫) এবং শফিক (৯৫)।
পিডিবি হাই স্কুল জুনিয়র এক্স-স্টুডেন্টস ইলেভেন : তাসলিম (অধিনায়ক, ৯৪), আজিজ (৯৪), কাইয়ুম (৯৫), রানা (৯৭), স্বপন (৯৭), সোহাগ (৯৮), রাজীব (৯৮), বাচ্চু (৯৮), হাসেম (সহ-অধিনায়ক, ৯৯), একরামুল (৯৯) এবং আবু বকর (২০০০)।
 

রুমেল খান

×