ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ০৩ মার্চ ২০২৪, ১৯ ফাল্গুন ১৪৩০

লিটনের কীর্তির ম্যাচে হৃদয়ের আক্ষেপ

স্পোর্টস রিপোর্টার

প্রকাশিত: ০০:০৫, ২১ মার্চ ২০২৩

লিটনের কীর্তির ম্যাচে হৃদয়ের আক্ষেপ

কৃতী ব্যাটসম্যান লিটন কুমার দাশ

বিদায়ী বছরটা লিটন দাসের জন্য ছিল স্বপ্নের মতো। ২০২২ সালে তিন ফরম্যাট মিলিয়ে তার চেয়ে বেশি রান ছিল কেবল বাবর আজমের। ৩ সেঞ্চুরি ও ১৩ হাফ সেঞ্চুরিতে করেছিলেন দ্বিতীয় সর্বোচ্চ ১৯২১ রান। নতুন বছরের শুরুতে ঠিক যেন অচেনা মনে হচ্ছিল। মিরপুরে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে তৃতীয় টি২০তে ক্যারিয়ারসেরা ৭৩ রান করে ছন্দে ফেরা স্টাইলিশ উইলোবাজ এবার সিলেটে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডেতে ৭১ বলে ৩ চার ও ৩ ছক্কায় খেললেন ৭০ রানের দৃষ্টিনন্দন ইনিংস।

আর এর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশের হয়ে ওয়ানডে ক্যারিয়ারে দ্রুততম ২০০০ রানের (৬৫তম ইনিংসে) রেকর্ডে সাবেক তারকা শাহরিয়ার নাফিসের সঙ্গী হলেন লিটন। ম্যাচে ১ রানের আক্ষেপে পুড়েছেন তাওহিদ হৃদয়। ৪৯ রানে সাজঘরে ফিরে প্রথম বাংলাদেশী হিসেবে ওয়ানডে অভিষেকে টানা দুই ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরির রেকর্ড থেকে বঞ্চিত হয়েছেন ২২ বছর বয়সী তরুণ এ ব্যাটসম্যান।
৬৪ ওয়ানডের ৬৪ ইনিংসে ১৯৪৫ রান নিয়ে এদিন আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ওপেন করতে নামেন লিটন। মাইলফলকটি ছুঁতে দরকার ছিল ৫৫ রানের। ব্যক্তিগত ৪৯ রানে অভিষিক্ত বাঁহাতি স্পিনার ম্যাথু হামপ্রিসকে ছক্কা  মেরে মাইলফলকটির দেখা পেয়ে যান। ক্যারিয়ারের ৬৫তম ইনিংসে মোট ১৯৯৪ রানে থাকতে মারা ছক্কায় ২ হাজার রান হয়ে যায় লিটনের। ২০১১ বিশ্বকাপে চট্টগ্রামে নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে ওয়ানডে ক্যারিয়ারে ২ হাজার রানের মাইলফলক ছুঁয়েছিলেন শাহরিয়ার নাফিস। সেটিও ছিল তাঁর ওয়ানডে ক্যারিয়ারের ৬৫তম ইনিংসে।

তবে সময়ের হিসেবে নাফিসই দ্রুততম। অভিষেকের ৫ বছর ২৬৬ দিনের মাথায় মাইলফলকটির দেখা পেয়েছিলেন সাবেক এই বাঁহাতি ওপেনার। ২০১৫ সালের ১৮ জুন ওয়ানডেতে অভিষিক্ত লিটনের লাগল ৭ বছর ৯ মাস ২ দিন। সর্বোপরি ওয়ানডেতে দ্রুততম ২০০০ রানের রেকর্ড অবশ্য হাশিম আমলার। দক্ষিণ আফ্রিকার সাবেক এ ওপেনার ৪০তম ইনিংসে (৪১ ম্যাচ) এসে রেকর্ডটি করেন ২ বছর ৩১৮ দিন সময় নিয়ে!  বাংলাদেশের হয়ে নাফিস ও লিটনের পর ওয়ানডেতে দ্রুততম ২ হাজারে দ্বিতীয় স্থানে সাকিব আল হাসান (৬৯তম ইনিংসে, ৩ বছর ৮৪ দিন)। 
সিলেটে সিরিজের প্রথম ম্যাচে অভিষেকে সেঞ্চুরির আক্ষেপে পুড়েছিলেন হৃদয়। আউট হয়েছিলেন ৯২ রানে। এবার মাত্র ১ রানের জন্য বাংলাদেশী হিসেবে ওয়ানডেতে নিজেদের প্রথম দুই ইনিংসে ফিফটি করা হলো না। মার্ক অ্যাডায়ারের বলে কট বিহাইন্ড হয়েছেন ৪৯ রান করে। ব্যাটের ভেতরের কানায় লেগে বল জমা পড়ে কিপার লরকান টাকারের গ্লাভসে। অনিশ্চয়তা নিয়েই রিভিউ নেন হৃদয়। তাতে লাভ হয়নি। ৩৪ বলের ইনিংসে ৪ চারের সঙ্গে মেরেছেন ১টি ছক্কা।

×