ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ১৬ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১

চট্টগ্রামের কাছে হেরে বিপিএল শেষ করল ঢাকা

স্পোর্টস রিপোর্টার

প্রকাশিত: ০১:১১, ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

চট্টগ্রামের কাছে হেরে বিপিএল শেষ করল ঢাকা

দুই দলেরই খুব বাজে কেটেছে এবার বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি২০ আসর

দুই দলেরই খুব বাজে কেটেছে এবার বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগ (বিপিএল) টি২০ আসর। বিশেষ করে টানা ৬ হারে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। আর ঢাকা ডমিনেটর্স ১১ ম্যাচে মাত্র ৩ জয় পায়। উভয় দলের তাই আগেভাগেই প্লে-অফে ওঠার প্রতিযোগিতা থেকে ছিটকে পড়ে। মঙ্গলবার মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে দুপুরে মুখোমুখি হয় দুই দল। লো-স্কোরিং সেই ম্যাচে চট্টগ্রাম ১৫ রানের দারুণ এক জয় তুলে নিয়েছে। আগে ব্যাট করে ২০ ওভারে ৮ উইকেটে ১১৮ রান তোলে চট্টগ্রাম।

জবাবে ঢাকা নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১০৩ রান তুলতে সক্ষম হয়। ১১তম ম্যাচে এটি চট্টগ্রামের তৃতীয় জয়। আর চলতি নবম আসরে নিজেদের শেষ ম্যাচে নেমে হার দিয়েই সবার আগে রাউন্ড রবিন লিগ পর্ব সমাপ্ত হয়েছে ঢাকার। ১২ ম্যাচে তারাও মাত্র ৩ ম্যাচ জিতেছে। টস জিতে আগে ব্যাটিং নেয় চট্টগ্রাম। প্রথম থেকেই রান করার জন্য সংগ্রাম করতে হয়েছে চট্টগ্রামের ব্যাটারদের। ৭ ওভারে মাত্র ২৮ রান তুলতেই তারা হারিয়েছে ৫ উইকেট।

এরপর ষষ্ঠ উইকেটে উসমান খান ও কার্টিস ক্যাম্ফার ৪১ রানের জুটি গড়ে বিপর্যয় কিছুটা কাটিয়েছেন। ক্যাম্ফার ১৬ বলে কোনো বাউন্ডারি ছাড়াই ১১ রান করে সাজঘরে ফিরলে সেই জুটি ভেঙেছে ১৪তম ওভারে। পরের ওভারে উসমানও ২৯ বলে ৪টি চারে ৩০ রান করে আরাফাত সানির বাঁহাতি স্পিনে এলবিডব্লিউ হয়ে যান। শেষদিকে জিয়াউর রহমানের ২০ বলে ৩ চার ও ২ ছক্কায় করা অপরাজিত ৩৪ রান চট্টগ্রামকে একটি সম্মানজনক পুঁজিতে পৌঁছে দিয়েছে। নির্ধারিত ২০ ওভারে তারা ৮ উইকেটে ১১৮ রানের মামুলি সংগ্রহ পায়।

আরাফাত ৪ ওভারে ২২ রানে নেন ৪ উইকেট। জবাব দিতে নেমে দ্রুতগতিতে উদ্বোধনী জুটিতে ২২ রান তোলেন ঢাকার সৌম্য সরকার ও আব্দুল্লাহ আল মামুন। কিন্তু মামুন (২) ও দুইবার জীবন ফিরে পাওয়া সৌম্য ১৬ বলে ৩ চারে ২১ রানে সাজঘরে ফিরলে বিপদ শুরু হয় ঢাকার। এক সময় ৬৭ রানে ৪ উইকেট হারায় তারা। তবে অধিনায়ক নাসির হোসেন চেষ্টা চালিয়ে তিনিও ১৬তম ওভারের শেষ বলে সাজঘরে ফেরেন ৩৩ বলে ১ চারে ২৪ রানে। পরবর্তী ১৭ বলে মাত্র ১০ রানে ৪ উইকেট হারায় ঢাকা ক্যাম্ফারের পেসে। শেষ পর্যন্ত আর জিততেই পারেনি তারা। ২০ ওভারে ৯ উইকেটে মাত্র ১০৩ রান করতে পেরেছে। ৪ ওভার বোলিং করে ১৫ রান করে দিয়ে ক্যাম্ফার ৩টি ও জিয়াউর রহমান ২টি উইকেট নেন। 
স্কোর ॥ চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ইনিংস- ১১৮/৮; ২০ ওভার (জিয়া ৩৪*, উমান ৩০; আরাফাত ৪/২২)।
ঢাকা ডমিনেটর্স ইনিংস- ১০৩/৯; ২০ ওভার (নাসির ২৪, সৌম্য ২১, জাহিদউজ্জামান ১৮; ক্যাম্ফার ৩/১৫, জিয়া ২/১৫, মৃত্যুঞ্জয় ২/২৯)।
ফল ॥ চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স ১৫ রানে জয়ী।
ম্যাচসেরা ॥ জিয়াউর রহমান (চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স)।

×