ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১১ ফাল্গুন ১৪৩০

ঢাবিতে বীরশ্রেষ্ঠ শহিদ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর স্মৃতি ক্রীড়া উৎসব

প্রকাশিত: ১১:০৯, ৭ নভেম্বর ২০২২; আপডেট: ১১:২৩, ৭ নভেম্বর ২০২২

ঢাবিতে বীরশ্রেষ্ঠ শহিদ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর স্মৃতি ক্রীড়া  উৎসব

প্রতিযোগিতায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের মল চত্বরে অনুষ্ঠিত হলো শিক্ষা, সম্প্রীতি ও ঐতিহ্য স্লোগান ধারণকারী সংগঠন "গৌড়"ঢাকা ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্টস এসোসোসিয়েশন অব চাঁপাইনবাবগঞ্জ কর্তৃক আয়োজিত 'বীরশ্রেষ্ঠ শহিদ ক্যাপ্টেন মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর স্মৃতি ক্রীড়া  উৎসব ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান।

উক্ত উৎসব ও অনুষ্ঠানে ক্রীড়ার অংশ হিসেবে মিনিপিচ ক্রিকেট টুর্নামেন্ট, চেয়ার খেলা,স্টাম্পে বল থ্রয়িং এবং লেখনী প্রতিযোগিতা অন্তর্ভূত ছিল।

ক্রীড়া উৎসবের মধ্যে ক্রিকেট দিয়ে খেলা শুরু করা হয়।ক্রিকেট টুর্নামেন্টের আয়োজন করেন গৌড়ের ক্রীড়া সম্পাদক রবিউল ইসলাম। ক্রিকেট মিনিপিচ টুর্নামেন্টে অংশগ্রহণকারী দল সংখ্যা ছিল ৭ টি।মাঠে উপস্থিতির সময় নির্ধারণ করা হয়েছিল সকাল ৭ টা ৩০ মিনিট থেকে এবং তখন থেকেই প্রত্যেক টিম ও তাদের সাপোর্টারস উৎসাহ ও উদ্দীপনা নিয়ে মাঠে উপস্থিত হয়।

৭টি দলকে দুইটি  'এ' এবং 'বি' গ্রুপে ভাগ করা হয়। সংগঠনেরর সভাপতির উদ্বোধনের মধ্য দিয়ে 'এ' গ্রুপের প্রথম খেলা দিয়ে ক্রিকেট টুর্নামেন্ট শুরু হয়।দুপুরের লাঞ্চের পূর্বেই গ্রুপ পর্ব খেলা শেষ এবং মেয়েদের জন্য দুইটি আলাদা খেলার ব্যবস্থা করা হয়। উৎসবে উপস্থিত সবার জন্য মধ্যাহ্নভোজের ব্যবস্থা করা হয়েছিল। 

এর পরই দুইটি  সেমিফাইনাল ম্যাচ অনুষ্ঠিত হয় এবং সর্বশেষ ফাইনাল ম্যাচটি হয়।ফাইনাল ম্যাচে লড়াই করে টিম 'মহানন্দা এক্সপ্রেস' ও 'সংশপ্তক'।

মহানন্দা টসে হেরে প্রথমে ব্যাটে নেমে ৮ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ৫৭ রান করে।প্রতিপক্ষ দল সংশপ্তক ৫৮ রানের টার্গেটে মাঠে নেমে ১ বল ২ উইকেট হাতে রাতে রেখে নিজেদের শিরোপা নিশ্চিত করে।ফাইনাল ম্যাচে ম্যান অব দ্যা ম্যাচ হন শিহাব উদ্দীন।

রান ও উইকেট শিকারের দিক থেকে ম্যান অব দ্যা টুর্নামেন্ট হন শিহাব উদ্দীন।

এই উৎসবের আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ ইভেন্ট ছিল লেখনী প্রতিযোগ। এই ইভেন্টটি "গৌড়"এর সাহিত্য সম্পাদক তামান্না খাতুনের নেতৃত্বে আয়োজন করা হয়। অংশগ্রহণ কারীদের মধ্য থেকে এতে ১ম, ২য় ও ৩য় হয় চারজন। সর্বোচ্চ নাম্বার পেয়ে প্রথম স্থান দখল করে তোহরা খাতুন এবং সমান নাম্বার পেয়ে দ্বিতীয় স্থান দখল করে আব্দুল আহাদ ও নুসরাত ঐশী এবং তৃতীয় স্থান দখল করে সাকিব মাহমুদ।

ক্রীড়া উৎসবের দ্বিতীয় অংশ ছিল পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান ।এতে উপস্থিত ছিলেন কাস্টমস, এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট ঢাকা (দক্ষিণ), ঢাকা এর যুগ্ম কমিশনার মো:রুহুল আমিন। রহিমা খাতুন,সাবেক শিক্ষার্থী, ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতি, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়। 

আরো উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ ছাত্রলীগের উপ-ছাত্র বৃত্তিবিষয়ক সম্পাদ মো:মাহফুজুর রহমান।

এম এ সোহাগ,উপ-পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক,বাংলাদেশ ছাত্রলীগ এবং আবু মুসা শুভ উপ-সাহিত্য বিষয়ক সম্পাদক,বাংলাদেশ ছাত্রলীগ।

পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীদের উপস্থিতিতি প্রাণোজ্জ্বল করে রেখেছিল।

সংগঠনের সভাপতি শিহাব উদ্দীনের সমাপনী বক্তব্যের মধ্য দিয়ে সারাদিন ব্যাপী ক্রীড়া উৎসব ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠান সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়।

টিএস

×