ঢাকা, বাংলাদেশ   বৃহস্পতিবার ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৪ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায়ের শঙ্কায় বার্সিলোনা!

স্পোর্টস রিপোর্টার

প্রকাশিত: ০০:৪৪, ৬ অক্টোবর ২০২২

গ্রুপ পর্ব থেকেই বিদায়ের শঙ্কায় বার্সিলোনা!

বলে হেড নিচ্ছেন লিভারপুরের মোহাম্মদ সালাহ

এখন পর্যন্ত তিন ম্যাচ খেলে দুটিতেই হার, জয় মাত্র একটিতে। ফলে মাত্র ৩ পয়েন্ট নিয়ে চার দলের গ্রুপে অবস্থান তিনে। গ্রুপের সেরা দুই দল টিকেট পাবে শেষ ষোলো অর্থাৎ নকআউট রাউন্ডের। আর গ্রুপপর্ব থেকেই বিদায়ঘণ্টা বাজবে শেষের দুটো দলের। বলা হচ্ছে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লীগে স্প্যানিশ পরাশক্তি বার্সিলোনার কথা। ‘সি’ গ্রুপে কাতালানদের অবস্থান এখন এমনই বেহাল।
মঙ্গলবার রাতে নিজেদের তৃতীয় ম্যাচে স্বাগতিক ইতালিয়ান ক্লাব ইন্টার মিলানের কাছে ১-০ গোলে হেরেছে সফরকারী বার্সিলোনা। মিলানের সানসিরো স্টেডিয়ামে প্রথমার্ধের ইনজুরি সময়ে (৪৫+২ মিনিট) আজ্জুরিদের হয়ে একমাত্র গোলটি করেন তুরস্কের এ্যাটাকিং মিডফিল্ডার হাকান চাহানোগ্লু। গ্রুপের আরেক ম্যাচে আরও একটি অপ্রতিরোধ্য জয় পেয়েছে জার্মান জায়ান্ট বেয়ার্ন মিউনিখ। ঘরের মাঠ মিউনিখের এ্যালিয়েঞ্জ এ্যারানায় অতিথি চেক প্রজাতন্ত্রের ক্লাব ভিক্টোরিয়া প্লাজেনকে ৫-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে বাভারিয়ানরা। দুর্দান্ত জয়ে বেয়ার্নের হয়ে জোড়া গোল করেন জার্মান উইঙ্গার লেরয় সানে। একটি করে গোল করেন সার্জে জিনাব্রি, সাডিও মানে ও এরিক মাক্সিম চুপো-মোটিং।
এখন পর্যন্ত খেলা তিন ম্যাচে প্রতিপক্ষের জালে ৯ গোল দিয়ে পূর্ণ ৯ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে অবস্থান করছে বেয়ার্ন। দুই জয় ও এক হারে ৬ পয়েন্ট নিয়ে দুইয়ে ইন্টার। ৩ পয়েন্ট নিয়ে তিনে বার্সিলোনা। সবার তলানীতে থাকা ভিক্টোরিয়া প্লাজেনের ভা-ারে এখন পর্যন্ত কোন পয়েন্ট জমা হয়নি। চার দলের মধ্যে তাদের বাদ পড়াটা প্রায় নিশ্চিত। তেমনি বেয়ার্নেরও নকআউট রাউন্ডে খেলা সময়ের ব্যাপার মাত্র। বাকি থাকা দুই দল ইন্টার ও বার্সার মধ্য থেকে একটি দল পরের রাউন্ডে যাবে আর আরেকটিকে তল্পিতল্পা গুছিয়ে বিদায় নিতে হবে।

গ্রুপের চারটি দলেরই এখনও তিনটি করে ম্যাচ বাকি আছে। তবে যে অবস্থা তাতে বার্সাকে সেরা ষোলোতে খেলতে হলে ফিরতি রাউন্ডে ভাল করার বিকল্প নেই। তবে কাজটা যে কঠিন সেটা বলাইবাহুল্য। উল্লেখ্য, গত মৌসুমেও গ্রুপ পর্ব থেকে বিদায় নেয়া বার্সাকে খেলতে হয়েছিল দ্বিতীয় সারির উয়েফা ইউরোপা লীগে। প্রথমার্ধে পিছিয়ে পড়ার পর দ্বিতীয়ার্ধে সমতা ফেরাতে ইন্টারের ওপর চড়াও হয়ে খেলে বার্সা। কিন্তু তাদের একের পর এক আক্রমণ কাক্সিক্ষত ঠিকানা খুঁজে পায়নি। ম্যাচের ৬৬ মিনিটে ইন্টার মিলানের জালে বল পাঠান বার্সার পেড্রি।

কিন্তু গোলের আগে বল বার্সার মিডফিল্ডার আনসু ফাতির হাতে লাগায় গোল বাতিল করেন রেফারি। কিন্তু পরে রিপ্লেতে দেখা যায় বল ইচ্ছাকৃত হাতে লাগাননি ফাতি। ম্যাচের ইনজুরি সময়ে পেনাল্টি বঞ্চিত হয় কাতালানরা। ডি বক্সে ইন্টারের ডিফেন্ডার  ডামফ্রিসের হাতে বল লাগলে পেনাল্টির আবেদন করে বার্সা। কিন্তু ভিএআর দেখে মাঠের রেফারি সøাভকো ভিনচিচ পেনাল্টির আবেদন বাতিল করে দেন। ফলে হারের হতাশা নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় স্প্যানিশ পরাশক্তিদের।
ম্যাচ শেষে রেফারির ওপর তেলেবেগুনে জ্বলে উঠেন বার্সা কোচ জাভি হার্নান্দেজ। তার মতে, দুটি গোল থেকে বার্সাকে বঞ্চিত করা হয়েছে। সাবেক স্পেন ও বার্সা মিডফিল্ডার বলেন, খুব বিরক্ত হয়ে আছি। রেফারির এমন ভুল কিভাবে মেনে নেয়া যায়। ফাতি ইচ্ছাকৃতভাবে হ্যান্ডবল করেনি। তাই এটি গোল ছিল। আরেকটিও সিদ্ধান্তও আমাদের বিরুদ্ধে গেছে। আমরা পেনাল্টি পেয়েছিলাম। সেটাও দেয়া হয়নি। আমাদের সঙ্গে অবিচার করা হয়েছে।

রেফারির উচিত এসব সিদ্ধান্তের ব্যাখা দেয়া। ‘এ’ গ্রুপে রীতিমতো বিস্ফোরক ছন্দে আছে ইতালিয়ান ক্লাব নেপোলি। দুর্দান্ত ফর্মে থাকা দিয়াগো ম্যারাডোনের সাবেক ক্লাব এবার ডাচ ক্লাব আয়াক্সকে তাদেরই মাঠে ৬-১ গোলে বিধ্বস্ত করেছে। এর আগের দুই ম্যাচে লিভারপুলের বিরুদ্ধে ৪-১ ও রেঞ্জার্সের বিরুদ্ধে ৩-০ গোলে জয় পেয়েছে নেপোলি। চ্যাম্পিয়ন্স লীগের ইতিহাসে গ্রুপ পর্বে নিজেদের প্রথম তিন ম্যাচে ইতালির প্রথম ক্লাব হিসেবে ১০টির বেশি গোল করার রেকর্ড গড়েছে কোচ লুসিয়ানো স্প্যালেত্তির দল। আর নেপোলির ৯৬ বছরের ইতিহাসে ইউরোপীয়ান প্রতিযোগিতায় এটাই সবচেয়ে বড় জয় নেপোলির। 

ইউরোপীয়ান প্রতিযোগিতায় এর আগে ইউরোপা লীগে ২০১৫ সালে ডেনিশ ক্লাব এফসি মিডটিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৫-০ গোলে জিতেছে নেপোলি। আর চ্যাম্পিয়ন্স লীগে ২০১৯ সালে বেলজিয়ামের ক্লাব জেঙ্কের বিরুদ্ধে ৪-০ গোলে জয় পায় নেপলসের ক্লাবটি। এখন চ্যাম্পিয়ন্স লীগে এটাই সবচেয়ে বড় জয় নেপোলির। তেমনি নিজেদের সবচেয়ে বড় হার আয়াক্সের।

গ্রুপের আরেক ম্যাচে স্কটল্যান্ডের রেঞ্জার্সকে ২-০ গোলে হারিয়েছে আসরের সাবেক চ্যাম্পিয়ন লিভারপুল। ‘বি’ গ্রুপে চমক দেখাচ্ছে বেলজিকের ক্লাব ব্রুগে। টানা তিন ম্যাচ জয়ের পথে এবার তারা ২-০ গোলে হারিয়েছে স্পেনের অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদকে। দিয়াগো সিমিওনের দল বর্তমানে চার দলের গ্রুপের সবার নীচে অবস্থান করছে।

monarchmart
monarchmart