ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৭ নভেম্বর ২০২২, ১৩ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

স্প্যানিশ কোপা ডেল রে, সেল্টা ভিগোর কাছে হেরে এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের বিদায়

নেইমার সুয়ারেজের গোলে সেমিতে বার্সিলোনা

প্রকাশিত: ০৫:৩৬, ২৯ জানুয়ারি ২০১৬

নেইমার সুয়ারেজের গোলে সেমিতে বার্সিলোনা

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ শঙ্কা কাটিয়ে স্প্যানিশ কোপা ডেল রে ফুটবলের সেমিফাইনাল নিশ্চিত করেছে বার্সিলোনা। বুধবার রাতে কোয়ার্টার ফাইনালের দ্বিতীয় লেগের ম্যাচে পিছিয়ে পড়েও কাতালানরা ৩-১ গোলে পরাজিত করে এ্যাথলেটিক বিলবাওকে। ন্যুক্যাম্পে বার্সার হয়ে গোল করেন লুইস সুয়ারেজ, জেরার্ড পিকে ও নেইমার। বিলবাওয়ের হয়ে গোলটি করেন ইনাকি উইলিয়ামস। এর আগে প্রথম লেগের ম্যাচে বার্সা জিতেছিল ২-১ গোলে। দুই লেগ মিলিয়ে তাই লুইস এনরিকের দলের জয় ৫-২ গোলে। বার্সা শেষ চার নিশ্চিত করলেও বিদায় নিয়েছে এ্যাটলেটিকো মাদ্রিদ। প্রথম লেগে গোলশূন্য ড্র করা এ্যাটলেটিকো পরশু ফিরতি লেগে সেল্টা ভিগোর কাছে হার মানে ৩-২ গোলে। বৃহস্পতিবার রাতে সেমিফাইনালের বাকি দুই দলের নাম নিশ্চিত হয়েছে। গত মৌসুমের মতো এবারও তিনটি বড় শিরোপা বা ট্রেবল জয়ের পথে এগিয়ে যাচ্ছে বার্সিলোনা। লা লিগার শীর্ষস্থান আছে বার্সার দখলে। ইউরোপিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স লীগের দ্বিতীয় পর্বেও পা রেখেছে। আর কোপা ডেল রে’র শিরোপা জয়ের পথেও আর মাত্র দুই জয় দূরে। বিলবাওয়ের মাঠে প্রথম লেগের ম্যাচটি ২-১ গোলে জিতেই সেমিফাইনালের পথে একধাপ এগিয়ে গিয়েছিল বার্সা। ন্যুক্যাম্পে ফিরতি লেগের ম্যাচে লুইস এনরিকের শিষ্যরা অবশ্য সহজে জয় পায়নি। শুরুতে তো শঙ্কাই জেগেছিল! চোটের কারণে গত শনিবার লা লিগায় মালাগার বিরুদ্ধে খেলেননি নেইমার। এই ম্যাচের আগে সুস্থ হয়ে উঠলেও তারকা ফরোয়ার্ডকে নিয়ে কোনরকম ঝুঁকি না নেয়ার কথা বলেছিলেন লুইস এনরিকে। তবে প্রথম একাদশেই ব্রাজিলিয়ান অধিনায়ককে খেলান বার্সা কোচ। কামড়ে ধরা প্রতিপক্ষ ভেবেই হয়তো পূর্ণশক্তির দল সাজান এনরিকে। অবশ্য স্বাগতিক দর্শকদের থমকে দিয়ে ম্যাচের ১২ মিনিটে এগিয়ে যায় অতিথি বিলবাও। মাঝ মাঠের কাছ থেকে বল পেয়ে স্পেনের ফরোয়ার্ড আরিটজ আডুরিজ বল বাড়ান স্বদেশী ইনাকি উইলিয়ামসের কাছে। তাকে আটকাতে সামনে এগিয়ে আসেন বার্সিলোনা গোলরক্ষক মার্ক আন্দ্রে টের স্টেগান। কিন্তু দারুণভাবে তাকে কাটিয়ে বাঁ পায়ের কোনাকুনি শটে দৃষ্টিনন্দন গোল করেন উইলিয়ামস। গোল পেয়ে আরও উজ্জীবিত হয়ে ওঠে বিলবাও। অল্প সময়ের ব্যবধানে তিনটি দারুণ আক্রমণ করে তারা। ১৭ মিনিটে দ্বিগুণ ব্যবধানে এগিয়ে যেতে পারতো অতিথিরা। উইলিয়ামসের কোনাকুনি শট একটুর জন্যে লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। ২১ মিনিটে সুযোগ নষ্ট করেন আডুরিজ। এরপর ধীরে ধীরে নিজেদের গুছিয়ে নেয় বার্সা। তবে প্রথমার্ধে গোলের দেখা পায়নি গত মৌসুমের ট্রেবলজয়ীরা। বিরতির পর শুরু থেকেই ভয়ঙ্কর হয়ে ওঠে স্বাগতিকরা। ৫৩ মিনিটে সমতাসূচক গোল পায় বার্সিলোনা। ডি বক্সের মধ্যে লিওনেল মেসির আড়াআড়ি পাসে প্রথম শটেই লক্ষ্যভেদ করেন ল্ইুস সুয়ারেজ। স্প্যানিশ কাপের এবারের আসরে এটা তার প্রথম এবং চলতি মৌসুমে ক্লাবের হয়ে ৩০ ম্যাচে ৩০ নম্বর গোল। সমতা ফেরানোর পর একচেটিয়া খেলতে থাকে স্বাগতিকরা। ৮১ মিনিটে এগিয়ে যায় বার্সা। কর্নার কিক থেকে আসা বল দুই সতীর্থের পা ঘুরে পান দানি আলভেস। ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডারের ক্রস থেকে হেডে দলকে এগিয়ে দেন জেরার্ড পিকে। ম্যাচের যোগ করা সময়ে (৯১ মিনিট) ব্যবধান বাড়ান নেইমার। একজনের বাধা পেরিয়ে সামনে থাকা আরও দু’জনকে ফাঁকি দিয়ে জোরালো শটে বল জালে জড়ান ব্রাজিলিয়ান অধিনায়ক। নিজেদের মাঠ ভিসেন্টে ক্যালডেরনে হেরে বিস্ময়করভাবে বিদায় নিয়েছে এ্যাটলেটিকো। তাদের এই পরাজয়ে ‘কিংস কাপ’ নামে পরিচিত রাজার এই কাপ থেকে স্পেনের রাজধানী মাদ্রিদের দুই পরাশক্তিই বিদায় নিল। প্রথম লেগের খেলা গোলশূন্য ড্র হওয়ার পর দ্বিতীয় লেগে দারুণ উত্তেজনাপূর্ণ ম্যাচ উপহার দেন দুই দলের খেলোয়াড়রা। আক্রমণ পাল্টা আক্রমণের ম্যাচে সেল্টার জয়ের নায়ক পাবলো হার্নান্দেজ। তিনি করেন জোড়া গোল। বিজয়ী দলের অপর গোলটি করেন জন গুইডেট্টি। এ্যাটলেটিকোর হয়ে গোল দু’টি করেন এ্যান্টোনিও গ্রিয়েজম্যান ও এ্যাঞ্জেল কোরেরা।
monarchmart
monarchmart