ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ০৬ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

উজ্জীবিত ব্রাজিলের সামনে আজ ক্রোয়েশিয়া

জিএম মোস্তফা

প্রকাশিত: ০১:১০, ৯ ডিসেম্বর ২০২২

উজ্জীবিত ব্রাজিলের সামনে আজ ক্রোয়েশিয়া

ক্রোয়েশিয়ার বড় তারকা লুকা মদ্রিচ ও ব্রাজিলের বিশ্বখ্যাত ফরোয়ার্ড নেইমার

হট ফেভারিট হিসেবেই কাতার বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিট কেটেছে ব্রাজিল। বিশেষ করে শেষ ষোলোতে দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে তো নিজেদের শৈল্পিক এবং নান্দনিক ফুটবলটাই উপহার দিয়েছে তিতের দল। সেমিফাইনালের টিকিট কাটার পথে আজ আবারও মাঠে নামছে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা। যেখানে তাদের প্রতিপক্ষ ক্রোয়েশিয়া।

দোহার এডুকেশন সিটি স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রাত ৯টায় ক্রোয়াটদের মুখোমুখি হবে সেলেসাওরা। ২০১৮ বিশ্বকাপের ফাইনালিস্ট ক্রোয়েশিয়া। এবারও দুর্বার গতিতে ছুটছে তারা। শেষ ষোলোর ম্যাচে অপ্রতিরোধ্য গতিতে ছুটতে থাকা এশিয়ার জায়ান্ট জাপানকে টাইব্রেকারে হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করে লুকা মড্রিচের দল। যে কারণে কোয়ার্টার ফাইনালেও ব্রাজিল-ক্রোয়েশিয়ার হাড্ডাহাড্ডি লড়াই হবে বলেই মনে করছেন ফুটবল বিশ্লেষকরা।
বিশ্ব ফুটবলের সবচেয়ে সফল দল ব্রাজিল। কিন্তু ২০০২ বিশ্বকাপের পর আর স্বপ্নের ট্রফির ছোঁয়া পায়নি তারা। যে কারণে এবার সেই শিরোপায় চুমো আকতে মরিয়া তিতের শিষ্যরা। বিশ্বকাপের ২২তম সংস্করণে সার্বিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে হেক্সা জয়ের মিশন শুরু করেছিল ক্যাসেমিরো-নেইমার-রিচার্লিসনরা। দ্বিতীয় ম্যাচে ক্যসেমিরোর একমাত্র গোলে তারা পরাজিত করে সুইজারল্যান্ডকে।

কিন্তু তৃতীয় ম্যাচে ক্যামেরুনের বিপক্ষেই পরাজয়ের স্বাদ পায় তিতের শিষ্যরা। সেইসঙ্গে ১৯৯৮ বিশ্বকাপের পর এই প্রথম কোন গ্রুপ পর্বের ম্যাচে হার দেখে ব্রাজিল। তবে গ্রুপপর্বে ব্রাজিলের ফুটবলে ব্রাজিলিয়ান ছন্দ খুঁজে পাওয়া না গেলেও শেষ ষোলোর ম্যাচে দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে তাদের পারফরম্যান্স মুগ্ধ করেছে ফুটবলভক্তদের। নেইমার-ভিনিসিয়াসদের খেলায় খুঁজে পাওয়া গেছে জোগো বনিতোর ছন্দ। খেলায় দুর্দান্ত পারফর্মেন্সের পাশাপাশি সাম্বা নাচে মুগ্ধতা ছড়িয়েই ব্রাজিল জায়গা করে নিয়েছে কোয়ার্টার ফাইনালে।
ব্রাজিল-ক্রোয়েশিয়ার ম্যাচ দিয়েই এবারের বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালের যাত্রা শুরু হচ্ছে আজ। ক্রোয়াটদের মুখোমুখি হওয়ার আগে সেলেসাওদের অতীত ইতিহাস অবশ্য পক্ষে কথা বলছে না। কেননা গত ২০ বছর ধরে বিশ্বকাপের নক আউটে কোনো ইউরোপিয়ান দলকে যে হারাতে পারেনি তারা! তবে এই ম্যাচে ক্রোয়েশিয়াকে হারিয়ে নতুন ভাবেই নিজেদের জাগরণের জানান দিতে চায় তিতের শিষ্যরা।

২০০২ সালে শেষ বারের মতো বিশ্বকাপের নক আউটে কোনো ইউরোপিয়ান দলকে হারিয়েছিল সেলেসাওরা। ফাইনালে সেবার জার্মানিকে ২-০ গোলে হারিয়ে রেকর্ড সর্বোচ্চ পঞ্চমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হওয়ার নজির গড়েছিল তারা। এরপর খেলেছে আরও চার বিশ্বকাপ। যার তিনটির কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে বিদায় নেয় সেলেসাওরা। ২০১৪ সালে স্বাগতিক ব্রাজিলকে তো সেমিফাইনাল থেকেই বিদায় নিতে হয়েছিল।

সেবার জার্মানির কাছে ৭-১ গোলে হারার পর তৃতীয় স্থান নির্ধারণী ম্যাচে হল্যান্ডের বিপক্ষেও ৩-০ গোলের লজ্জার পরাজয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে তারা। তবে সেই ব্রাজিল আর এই ব্রাজিলের মধ্যে আকাশ-পাতাল তফাৎ। কেননা লাতিন আমেরিকা অঞ্চলের বাছাই পর্ব থেকে এবার অপরাজিত থেকেই বিশ্বকাপে জায়গা করে নেয় সেলেসাওরা।

ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষেও দুর্বার ব্রাজিল। এখন পর্যন্ত খেলা চার ম্যাচের সবটিতেই অপরাজিত তারা। যার মধ্যে তিনটিতেই জয় আর বাকি ম্যাচে ড্র করে সেলেসাওরা। বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত ব্রাজিল-ক্রোয়েশিয়া একে অপরের মুখোমুখি হয়েছে দুইবার। দুটিতেই জয় সেলেসাওদের। ২০০৬ বিশ্বকাপে প্রথম দেখায় কাকার একমাত্র গোলে ক্রোয়াটদের হারিয়েছিল ব্রাজিল। পরে ২০১৪ বিশ্বকাপের নেইমারের জোড়া গোলের সৌজন্যে পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা ৩-১ গোলে পরাজিত করেছিল ক্রোয়েশিয়াকে।
যে কারণে ক্রোয়াটদের সামনে এবার প্রতিশোধ নেওয়ারও দারুণ সুযোগ। সেইসঙ্গে ২০১৮ বিশ্বকাপে ফ্রান্সের কাছে হারের শিক্ষা নিয়ে চ্যাম্পিয়ন হওয়ারও হাতছানি মড্রিচদের সামনে। বিশ্বমঞ্চে তাদের পারফর্মেন্সও দুর্দান্ত। বিশ্বকাপে নিজেদের খেলা সবশেষ ১১ ম্যাচের ১০টিতেই অপরাজিত তারা। একমাত্র হারটি ২০১৮ বিশ্বকাপ ফাইনালে ফ্রান্সের বিপক্ষে।

এবার নিয়ে ষষ্ঠবারের মতো বিশ্বকাপের মঞ্চে ক্রোয়েশিয়া। যেখানে তাদের সেরা সাফল্য রাশিয়া বিশ্বকাপে ফাইনাল। ১৯৯৮ সালে অভিষেক আসরেই সেমিফাইনালে জায়গা করে নেওয়া ক্রোয়াটরা এবারও ফাইনাল খেলতে মরিয়া। তবে সেই পথে আজ ব্রাজিল-বাধা টপকানোটাই তাদের আসল কাজ। যদিওবা কাতারে তেমন চোখে পড়ার মতো পারফর্মেন্স নেই দলটির। এখন পর্যন্ত খেলা চার ম্যাচের জয় মাত্র দুটিতে।

ক্রোয়াটদের টাইব্রেকার ভাগ্যও বেশ ভালো। বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত তিনবার ক্রোয়েশিয়ার খেলা টাইব্রেকারে গড়িয়েছে। যার সবটিতেই জয় পেয়েছে তারা। ২০১৮ বিশ্বকাপের শেষ ষোলোয় ডেনমার্ক ও কোয়ার্টার ফাইনালে রাশিয়াকে টাইব্রেকারে হারানো দলটি কাতার বিশ্বকাপের শেষ ষোলোতেও উড়ন্ত গতির জাপানকে টাইব্রেকারে হারিয়ে দেয় ক্রোয়াটরা।

শেষ ম্যাচে দক্ষিণ কোরিয়ার বিপক্ষে গোল করেই উৎসবে মেতে উঠে ব্রাজিল। বিশেষ করে তাদের সাম্বা নাচের ডেউ গড়ায় গ্যালারিতেও। যা নিয়ে সমালোচনাও শুরু হয়েছে। তবে এটা থামবে না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছেন ব্রাজিলের তরুণ তারকা ভিনিসিয়াস জুনিয়র, ‘এটা ব্রাজিলিয়ান সংস্কৃতিরই অংশ।
গোল উদ্যাপনে এই নাচ থামাবে না ব্রাজিল।’ ক্রোয়েশিয়ান ডিফেন্ডার দেজান লভ্রেনও এতে অসম্মানজনক কিছু দেখছেন না। তার ভাষ্যমতে, ‘ওদের নাচতে দিন। আমি এর মধ্যে অসম্মানের কিছু দেখি না।’

monarchmart
monarchmart