ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০

বাংলাদেশের দেখানো পথেই ঘুরে দাঁড়াতে চায় নিউজিল্যান্ড

ফুরফুরে মেজাজে টাইগারদের অনুশীলন 

স্পোর্টস রিপোর্টার

প্রকাশিত: ০০:৫৬, ৫ ডিসেম্বর ২০২৩

ফুরফুরে মেজাজে টাইগারদের অনুশীলন 

নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ম্যাচ সামনে রেখে মিরপুরে অনুশীলনে বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা

সিলেট টেস্টে দারুণ এক জয়ের পর বেশ ফুরফুরে মেজাজে রয়েছে টাইগাররা। ঢাকায় ফিরে একদিনের বিশ্রাম শেষে সোমবারই অনুশীলনে নেমে পড়ে নাজমুল হোসেন শান্তর দল। সকালে প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ডের ক্রিকেটাররা তাদের প্রস্তুতি পর্বে ছিল বেশ সিরিয়াস। বিশেষ করে মিরপুরে তাইজুল ইসলাম, মেহেদী হাসান মিরাজ, নাঈম হাসানদের নিয়ে গড়া স্বাগতিকদের স্পিন সামলানোর পথ খুঁজছিলেন কেন উইলিয়ামসন, টম লাথাম, ডেভন কনওয়েরা। আর মাঠে এসেই লম্বা সময় ধরে উইকেট দেখেন বাংলাদেশ অধিনায়ক শান্ত।

এরপর ইনডোরে চলে ব্যাটিং-বোলিং ঝালাইয়ের কাজ। দুপুরে শুরু হয়ে অনুশীলন শেষ হয় বিকেলে। তাইজুল-শান্তরা কিছুটা হালকা মেজাজে অনুশীলন করলেও সফরকারী কিউইরা ছিল বেশ সিরিয়াস। সিলেটে ১৫০ রানের বড় হারের পর সিরিজ বাঁচাতে মরিয়া টিম সাউদির দল টাইগারদের দেখেই ঘুরে দাঁড়ানোর পথ খুঁজছে বলে জানিয়েছেন স্পিনার ইশ সোধি। হোম অব ক্রিকেট মিরপুরে বুধবার শুরু সিরিজ ফয়সালার দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট। 
ইশ সোধি বলেন, ‘সিলেটে প্রথম টেস্টে হেরে যাওয়া দলে থাকাটা অবশ্যই বেশ কঠিন ছিল। তবে টেস্ট যতই এগিয়েছে, আমরা ততই ছন্দ খুঁজে পেয়েছি। দীর্ঘদিন ধরে টেস্ট না খেলার পর এই কন্ডিশনে খেলাটা কঠিন হতোই এবং বাংলাদেশ যেভাবে খেলেছে, সত্যি বলতে আমাদের উড়িয়ে দিয়েছে ওরা। তবে পেছন ফিরে তাকিয়ে, এই ম্যাচই আমাদের একটা ‘ব্লু প্রিন্ট’ দিয়েছে এই কন্ডিশনে সফল হওয়ার ব্যাপারে। আশা করি, আমরা ঢাকায়  সেসব মেলে ধরতে পারব।’

অনুশীলন শেষে বলেন সোধি। সিলেটে অনেকটা স্পোটিং ট্র্যাকে ব্যাটে-বলে দাপট দেখিয়েছে টাইগাররা। তিবে দ্বিতীয় টেস্টে আলোচনায় আছে মিরপুরের উইকেট। চলতি বছরটা এই মাঠে একেবারেই ভালো কাটেনি শান্ত-মুশফিকদের। পুরো বছরে দুটো টেস্ট জিতলেও ওয়ানডেতে কোনো ম্যাচেই জয় নেই। তবে ফরম্যাট টেস্ট বলেই কিনা, কিছুটা হলেও ভরসা খুঁজতে চাইবে বাংলাদেশের টিম ম্যানেজমেন্ট। চলতি বছরে মিরপুরের শেষ দুই টেস্টে উইকেট ছিল স্পিন সহায়ক। যেখানে অপেক্ষাকৃত দুর্বল আয়ারল্যান্ড এবং আফগানিস্তানের বিপক্ষে খুব সহজেই জয় তুলে নিয়েছিল টাইগাররা। তবে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে উইকেট নিয়ে চলছে জোর গুঞ্জন। 
ধারণা করা যায় চিরায়ত সেই স্পিন উইকেট নিয়েই মাঠে নামতে চাইবেন কোচ চন্দ্রিকা হাতুরুসিং। কেননা বাংলাদেশ দলে রয়েছে স্পিনারদের ছড়াছড়ি। এবাদত হোসেন, তাসকিন আহমেদের মতো পেসাররাও নেই দলে। সব মিলিয়ে তাইজুল-মিরাজদের ওপর ভরসা রেখে খেলতে হবে টাইগারদের। হাতুরু অবশ্য নিশ্চিতভাবেই স্পিন উইকেট চাইবেন। ঘরের মাঠের সুবিধা নিতে তিনি বরাবরই সিদ্ধহস্ত। এর আগেও ঘরের মাঠে স্পিনিং ট্র্যাকের সুবিধা নিয়েছিলেন হাতুরু। এমনকি নিজের দ্বিতীয় মেয়াদে এসেও ঘরের মাঠের সুবিধা নেওয়ার ব্যাপারে ছিলেন ইতিবাচক। শেষ পর্যন্ত হয়তো আরও একবার মিরপুরের চিরায়ত ধীরগতির স্পিনিং উইকেটেই খেলতে দেখা যাবে বাংলাদেশকে। স্কোয়াডে এক পেসারের সঙ্গে থাকবেন তিন স্পিনার। পরিবর্তন আসতে পারে নিউজিল্যন্ড দলে। একাদশে ফিরতে পারেন দুই স্পিনিং-অলরাউন্ডার মিচেল স্যান্টনার ও রাচীন রবীন্দ্র।

×