ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০

টুইটারের বিরুদ্ধে মামলা করল কর্মীরা

প্রকাশিত: ১৭:২৭, ২১ জুন ২০২৩

টুইটারের বিরুদ্ধে মামলা করল কর্মীরা

টুইটার

প্রতিশ্রুত বোনাস না দেওয়ায় টুইটারের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন সংস্থাটির একদল কর্মী। তাদের অভিযোগ, গত বছর টুইটারের কর্মীদের ৫০ শতাংশ বোনাস দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেওয়া হলেও সেই অর্থ তারা আজও বুঝে পাননি। 

এ নিয়ে গত মঙ্গলবার (২০ জুন) সান ফ্রান্সিসকোর ফেডারেল আদালতে টুইটারের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, ২০২২ সালে সাবেক প্রধান আর্থিক কর্মকর্তা নেড সেগালসহ টুইটারের নির্বাহী কর্মকর্তারা প্রতিশ্রতি দিয়েছিলেন, কর্মচারীদের ৫০ শতাংশ বোনাস দেওয়া হবে। গত বছর ইলন মাস্কের টুইটার অধিগ্রহণকে সামনে রেখে দেওয়া হয়েছিল এই প্রতিশ্রুতি। কিন্তু গত অক্টোবরে মাস্ক টুইটার কিনে নেওয়ার পর কর্মীদের প্রতিশ্রুত সেই বোনাস আর দেওয়া হয়নি।

এ কারণে টুইটারের বর্তমান এবং ২০২৩ সালের প্রথম প্রান্তিক পর্যন্ত কাজ করা সাবেক কর্মীদের পক্ষ থেকে মামলা করা হয়েছে। এই আইনি পদক্ষেপটি শুরু করেছেন টুইটারের ক্ষতিপূরণ বিভাগের সাবেক জ্যেষ্ঠ পরিচালক মার্ক শোবিঙ্গার। গত মাসেই ওই পদ থেকে পদত্যাগ করেন তিনি। বাদী পক্ষের অ্যাটর্নি শ্যানন লিস-রিওর্ডান বলেছেন, টুইটারের কাছে কর্মীদের পাওনা বোনাসের পরিমাণ ‘কোটি কোটি ডলার’।

টুইটার সম্প্রতি তার মিডিয়া রিলেশন্স বিভাগের সব কর্মীকে ছাঁটাই করেছে। ফলে বোনাস সংক্রান্ত মামলার বিষয়ে সংস্থাটির মন্তব্য পাওয়া সম্ভব হয়নি।
 
অবশ্য টুইটারের বিরুদ্ধে বর্তমান বা সাবেক কর্মীদের মামলা করার ঘটনা এটাই প্রথম নয়। ভাড়া পরিশোধ না করা কিংবা পাওনা টাকা না দেওয়ার অভিযোগে এর আগেও টুইটারের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা হয়েছে।

গত এপ্রিলেই মার্কিন আদালতে টুইটারের বিরুদ্ধে মামলা করেছিলেন সংস্থাটির সাবেক তিন শীর্ষ কর্মকর্তা। তাদের দাবি, টুইটারে কর্মরত থাকতে একাধিক মামলার শুনানি ও তদন্তে অংশ নিতে গিয়ে ১০ লাখ মার্কিন ডলারের বেশি খরচ হয়েছিল। কিন্তু দীর্ঘদিন পরেও সেই বকেয়া মেটায়নি ইলন মাস্কের মালিকানাধীন সংস্থাটি।

 

এমএস

×