ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ২৯ চৈত্র ১৪৩০

আপসের শর্তে যুব মহিলা লীগ নেত্রী মিমের জামিন

প্রকাশিত: ১৯:০৩, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

আপসের শর্তে যুব মহিলা লীগ নেত্রী মিমের জামিন

যুব মহিলা লীগ নেত্রী মিম।

প্রতারণার মামলায় গ্রেপ্তার পাবনা জেলা যুব মহিলা লীগের সদস্য মিম খাতুন ওরফে আফসানা মিম ও তার স্বামী মো. ওবাইদুল্লাহর জামিন মঞ্জুর করেছেন আদালত।

শুক্রবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট শান্তা আক্তারের আদালত শুনানি শেষে আপসের শর্তে জামিন মঞ্জুর করা হয়।

আরও পড়ুন : ব্যতিক্রমী উদ্যোগ, মায়ের পূজা করল অর্ধশত সন্তান

একদিনের রিমান্ড শেষে আজ তাদের আদালতে হাজির করা হয়। এরপর মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদের কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও গুলশান থানার উপ-পরিদর্শক মো. রোমেন মিয়া। এসময় আসামি পক্ষ তাদের জামিন চেয়ে আবেদন করেন।

আসামি পক্ষের আইনজীবী আদালতকে বলেন, ‘মামলার বাদির সঙ্গে তাদের আপস মীমাংসা হয়ে গেছে। বিচারক বাদি মনিরুজ্জামানের কাছে জানতে চান, জামিন দিলে কোনো আপত্তি আছে কি না। তখন আপত্তি নেই জানালে বিচারক বাদিকে লিখিত দিতে বলেন। পরে আপসের শর্তে তিন হাজার টাকা মুচলেকায় তাদের জামিন মঞ্জুর করেন আদালত।’

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার শুনানি শেষে আদালত জামিন নামঞ্জুর করে তাদের একদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

জানা গেছে, ওবাইদুল্লাহ নামে এক ব্যক্তিকে দুলাভাই হিসেবে মামলার বাদি মনিরুজ্জামানের সঙ্গে পরিচয় করে দেন মীম। পরে বিভিন্ন সময়ে ব্যবসার কথা বলে বাদির কাছ থেকে ১৩ লাখ ১৭ হাজার টাকা নেন মিম ও ওবাইদুল্লাহ। বিশ্বাস করে দলিল ছাড়া লেনদেন হলেও পরে দলিল করতে চাইলে তারা টালবাহানা শুরু করেন। পাওনা টাকা ফেরত দেবেন না বলে তারা বাদিকে হুঁশিয়ারি দেন এবং তাকে বিভিন্ন রকমের ভয়ভীতি ও হুমকি দেখান।

এ ঘটনায় আটঘড়িয়া উপজেলার যুবলীগ নেতা ও ব্যবসায়ী মনিরুজ্জামান বাবু বাদি হয়ে রাজধানীর গুলশান থানায় এ মামলা দায়ের করেন। মামলার পর পাবনা জেলা শহর থেকে তাদের গ্রেপ্তার করে পুলিশ।

এম হাসান

সম্পর্কিত বিষয়:

×