ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

ঢেলে সাজানো হচ্ছে সড়ক ব্যবস্থাপনা

যানজটমুক্ত রাজধানীর স্বপ্ন

শংকর কুমার দে

প্রকাশিত: ২৩:১১, ৫ জুলাই ২০২২

যানজটমুক্ত রাজধানীর স্বপ্ন

যানজটমুক্ত

স্বপ্নের পদ্মা সেতু খুলে দেয়ার পর ঢাকার প্রবেশমুখে তীব্র যানজটের কারণে ঢেলে সাজানো হচ্ছে সড়ক ব্যবস্থাপনারাজধানীর যানজটের চাপ সামাল দিতে পদ্মা সেতু থেকে ঢাকা অভিমুখী  প্রবেশপথের রাস্তার দুই ধারের ফুটপাথের দোকান পসরা বিশেষ করে হানিফ ফ্লাইওভারের নিচের অংশের ফুটপাথ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে

এমনকি পদ্মা সেতুর দুই পাড় এলাকায় বিশেষ করে এক্সপ্রেসওয়েতেও ইতোমধ্যেই যানজট মোকাবেলা করে চলেছে পুলিশ প্রশাসনঅদূর ভবিষ্যতে রাজধানী ঢাকা ও আশপাশের এলাকায় তীব্র যানজট সৃষ্টি হওয়ার বিষয়ে বিশেষজ্ঞগণ যে আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন তার দিকে দৃষ্টি রেখেই পরিকল্পনা করার চিন্তাভাবনা করছে সরকারযানবাহন চলাচলের আধিক্যের কারণে যানজটের আশঙ্কা নিরসনকল্পে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণের নির্দেশ দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

পদ্মা সেতু উদ্বোধনের পর সড়কপথে খুব সহজে দেশের দক্ষিণ জনপদে পৌঁছানোর দুয়ার খুলে গেছেএতে রাজধানীর ওপর দিয়ে উভয়মুখী যানবাহনের চাপ ক্রমেই বাড়ছেএখনই যানজট সামাল দিতে হিমশিম খাচ্ছে পুলিশ প্রশাসনপদ্মা সেতু খুলে দেয়ার পর রাজধানী ঢাকার পোস্তগোলা, জুরাইন, যাত্রাবাড়ী এবং পুরান ঢাকার বাবুবাজার এলাকায় প্রতিদিনই যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে যা পুলিশের পক্ষে সামাল দেয়াটা খুবই কঠিন হয়ে পড়েছে

পদ্মা সেতু খুলে দেয়ার পর যে যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে তা দ্রুত নিরসন করতে নানামুখী পরিকল্পনা নিয়েছে সরকারআপাতত এ্যাড-হক সমাধান নিয়ে কাজ করছে সেতু বিভাগযানজট নিরসনের জন্য পোস্তগোলা, জুরাইন, যাত্রাবাড়ী এবং বাবুবাজার এলাকায় অতিরিক্ত ট্রাফিক পুলিশ মোতায়েন করে যানজট নিরসনের কাজ করছে পুলিশতবে আগামী দুই থেকে তিন বছর মেয়াদের পরিকল্পনায় তৈরি করা হচ্ছে আউটার রিং রোড এবং ইনার সার্কুলার রুট নির্মাণের চিন্তাভাবনা করা হচ্ছেঅন্য জেলাগামী যানবাহনগুলোকে রাজধানীর প্রবেশমুখের আগে যাতে ডাইভার্ট করা যায় সেটাও পরিকল্পনায় আছে

স্ট্র্যাটেজিক ট্রান্সপোর্ট প্ল্যান ফর ঢাকার (আরএসটিপি) আওতায় রাজধানীতে যানজট কমাতে সমীক্ষা করা, নক্সা প্রণয়ন ইত্যাদির পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে সরকারকরোনার কারণে গত দুই বছর এসব পরিকল্পনার কাজে হাত দিতে না পারার দরুন যে যানজটের আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে তার মোকাবেলা করাটাই এখন চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়িয়েছে বলে মনে করেন বিশেষজ্ঞগণ

স্বপ্নের পদ্মা সেতু গত ২৫ জুন উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাএরপরের দিন গত ২৬ জুন যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দেয়া হয় পদ্মা সেতুপদ্মা সেতু খুলে দেয়ার পর রাজধানীর মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারে ওঠার প্রতিটি প্রবেশমুখে বাড়তি চাপ দেখা গেছেহানিফ ফ্লাইওভারের ওপরে দীর্ঘ সময় যানচলাচল ছিল স্থবিরএর প্রভাবে রাজধানীর মতিঝিল, ওয়ারী, যাত্রাবাড়ী, চাঁনখারপুল, কাকরাইল, বিজয় সরণি, ফার্মগেট, কাওরান বাজার, তেজগাঁও, প্রেসক্লাব, গুলিস্তান, বাড্ডা, রামপুরা ও মগবাজার ফ্লাইওভারে যানবাহনের বাড়তি চাপ ছিল

মাওয়া-পদ্মা সেতুগামী যানবাহনের চাপ বেড়েছে, যার প্রভাব পড়েছে রাজধানীর মেয়র হানিফ ফ্লাইওভারের ওপরে ও নিচেযানবাহনের বাড়তি চাপ সামলাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে ট্রাফিক পুলিশ সদস্যদেরঢাকার বাইরে থেকে আগের চেয়ে বেশি গাড়ি ঢুকছেবেশিরভাগ ব্যক্তিগত গাড়িআগে এত গাড়ি ঢাকায় ঢুকত না, এখন পদ্মা সেতুর ওপর দিয়ে আসতেছে২১টি জেলার মাওয়া রুট ব্যবহারকারী বাসসহ যানবাহনগুলো এতদিন ফেরিতে পারাপার হতো

এখন বঙ্গবন্ধু এক্সপ্রেসওয়ে হয়ে যানবাহন আসছে কেরানীগঞ্জ থেকে বুড়িগঙ্গা সেতু আর বাবুবাজার ব্রিজ হয়ে ঢুকছে ঢাকায়একই পথে ঢাকা থেকে যানবাহন ছুটছে পদ্মা সেতুর দিকেকদমতলী ট্রাফিক পুলিশের পরিদর্শক পীযূষ কুমার মালো বলেন, চুনকুটিয়ায় হাইওয়ে সড়ক দিয়ে এক্সপ্রেসওয়েতে নামা ও ওঠার যে লেইন আছে তা থেকে প্রচুর গাড়ি ওই লেন ধরে যাওয়া-আসা করেছেএমনকি পোস্তগোলার বুড়িগঙ্গা ব্রিজ থেকে যাত্রাবাড়ী আসতে ঘণ্টার পর ঘণ্টা চলে যাচ্ছে এমন অভিযোগ ইতোমধ্যে আসতে শুরু করেছে

রাজধানীর গুলিস্তান ফুলবাড়িয়া এলাকায় দায়িত্বরত একজন ট্রাফিক পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, পদ্মা সেতু যানবাহন চলাচলের জন্য খুলে দেয়ার পর গাড়ির চাপ দ্বিগুণ বেড়ে গেছেমানুষও রাস্তায় নেমেছে প্রচুরআগের চেয়ে এখন ডাবল কাজ করতে হচ্ছেআগে যে গাড়িগুলো মাওয়া ঘাটে যাত্রী নামিয়ে দিয়ে আসত এখন ওপারের গাড়ি সরাসরি ঢাকায় ঢুকছেআবার অনেকে পদ্মা সেতু উদ্বোধন হলে বাড়ি যাবেন বলে অপেক্ষার প্রহর গুনছিলেন তারা এখন ঈদের মতো বাড়ি যাচ্ছেনতাই রাস্তায় প্রচ- চাপ রয়েছে

ঢাকা মহানগর পুলিশের একজন কর্মকর্তা বলেছেন, পদ্মা সেতুর ওপর দিয়ে আসা কিছু গাড়ি ঢাকায় ঢুকছে, কিছু ফ্লাইওভার ব্যবহার করে নারায়ণগঞ্জ ও চট্টগ্রাম রোডের দিকে চলে যাচ্ছেঅফিস আদালত খোলার সময়টায় সেতু হয়ে আসা গাড়ি বাড়ায় চাপ বেশি মনে হচ্ছেবেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে তা অনেকটা স্বাভাবিক হয়ে আসছেঅনেক গাড়ি ঢাকায় প্রবেশ করবে আবার বের হবে, সেখানে ঢাকায় চাপ একটু হবেই, সেটা মোকাবেলার জন্য অতিরিক্ত ট্রাফিক পুলিশ মোতায়েন করাসহ পরিকল্পনা করে এ্যাড-হক ভিত্তিতে প্রস্তুতি নিয়েছে পুলিশ

ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করেছেন, পদ্মা সেতুর দুই পাড়েই যানজট, ভোগান্তি, দুর্ভোগের সম্মুখীন হতে হচ্ছেতবে ঢাকা-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়েতে টোল আদায় শুরু হওয়ার পর পদ্মা সেতু ব্যবহারকারী যানবাহন ও যাত্রীরা পড়েছেন চরম ভোগান্তিতেঢাকা থেকে ছেড়ে যাওয়া যানবাহনগুলোকে ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসের ধলেশ্বরী টোল প্লাজায় কয়েক ঘণ্টা পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হচ্ছেপ্রায় ২ কিলোমিটার দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি হচ্ছে, যা টোল আদায়ে চরম অব্যবস্থাপনার কারণে এই অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করছেন

ফরিদপুরের ভাঙ্গা এলাকার বগাইল টোল প্লাজাতেও একই অবস্থার সৃষ্টি হয়েছে বলে জানা গেছেঢাকা-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়েতে, ধলেশ্বরী ও বগাইল টোল প্লাজা, বগাইল টোল প্লাজা এলাকাতেও টোল আদায়ে সমস্যা না হওয়ায় ভোগান্তি ও দুর্ভোগ শুরু হয়

সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, ঢাকা থেকে ভাঙ্গাগামী ৫৫ কিলোমিটার এক্সপ্রেসওয়ের পদ্মা সেতু পার হয়ে শরীয়তপুরের জাজিরা এলাকা থেকে ভাঙ্গা পর্যন্ত ২৩ কিলোমিটার এই মহাসড়ক ব্যবহার করলে একটি বড় বাস, মিনিবাস, মাইক্রোবাস, প্রাইভেটকারে নির্দিষ্ট হারে টোল দিতে গিয়ে আপাতত একটু সমস্যা ও ভোগান্তি হচ্ছে, যা সাময়িক, এটা থাকবে না

সেতু বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, এখন যেসব যাত্রী বা পণ্যবাহী গাড়ি শিমুলিয়া-বাংলাবাজার এবং পাটুরিয়া-দৌলতদিয়া হয়ে দক্ষিণের বিভিন্ন গন্তব্যে যায়, সেসব যানবাহন সেতু দিয়ে পদ্মা পার হচ্ছে, তাতে কমে আসছে যাত্রার সময়পদ্মা সেতু চালু হওয়ায় পণ্যবাহী যানবাহনের একটা অংশ হতে যাচ্ছে ভারতেরদেশটির পশ্চিমাংশ থেকে পূর্বাংশে পণ্য পরিবহন হতে যাচ্ছে এই পথেএডিবির ধারণা অনুযায়ী, শুরুর দিকে প্রতিদিন এই সেতু দিয়ে প্রায় ২৪ হাজার যানবাহন চলাচল করলেও, পরে তা আরও বাড়বে

এমনকি যানবাহন চলাচলের সংখ্যা ৭৫ হাজার ছাড়িয়ে যেতে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছেউত্তরবঙ্গ বা ময়মনসিংহ বিভাগ থেকে সরাসরি সড়ক পথে দক্ষিণবঙ্গে যেতে হলে ঢাকার ওপর দিয়েই পদ্মা সেতুতে উঠতে হচ্ছেআবার ফিরতি পথেও সেসব গাড়িকে রাজধানী পার হতে হচ্ছেচট্টগ্রাম বা সিলেটগামী যানবাহনও ঢাকার যাত্রাবাড়ী হয়েই যাচ্ছেঢাকাকে এড়িয়ে যাওয়ার পথ না থাকায় পুরো চাপ পড়ছে রাজধানীর ওপর, যদিও ঢাকায় তাদের হয়তো থামার প্রয়োজনই হতো না বলে মনে করা হচ্ছে

পরিবহন বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এতদিন পদ্মা নদী পার হতে হতো ফেরিতেতাতে অনেক সময়ক্ষেপণ হতোফলে এক সঙ্গে অনেক গাড়ি ঢাকায় প্রবেশের সুযোগ ছিল নাকিন্তু সেতু চালু হওয়ার কারণে দক্ষিণবঙ্গের গাড়ি দ্রুতই ঢাকা চলে আসছেপদ্মা সেতু থেকে নেমে বিভিন্ন জেলায় যাওয়ার জন্য রাস্তা হিসেবে ব্যবহার করতে হচ্ছে ঢাকার সড়কগুলোকেইএকইভাবে বিভিন্ন জেলা থেকে এসে ঢাকার ওপর দিয়েই পদ্মা সেতুর দিকে যাচ্ছে গাড়ি

তাতে ঢাকার প্রবেশ পথ, বিশেষ করে বাবু বাজার ব্রিজ, যাত্রাবাড়ী, মেয়র হানিফ ফ্লাইওভার, মুন্সীগঞ্জ থেকে নারায়ণগঞ্জগামী রাস্তা, পোস্তগোলা থেকে নারায়ণগঞ্জে যাওয়ার রাস্তায় যানজট বাড়ছেএমনিতেই নিত্যদিনের যানজট সামলাতেই যেখানে ঢাকা হিমশিম খাচ্ছে, রাজধানীর প্রবেশপথগুলোতে যেখানে প্রায়ই জট লেগে থাকছে, বাড়তি গাড়ি সেখানে সেতুতে পৌঁছতে দীর্ঘ সময়ের দুর্ভোগ, ভোগান্তি তো পোহাতে হবেই

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক সামছুল হক বলেছেন, বর্তমান অবকাঠামোর মধ্যে এর কোন সমাধান তিনি দেখছেন নাযে কোন ব্রডব্যান্ড দিয়ে কানেকশন দিলে ক্যাপিটালে প্রবেশের জন্য লিংক রোড দিয়ে চতুর্দিকে ছড়িয়ে দেয়ার সুযোগ থাকেআমরা দেখছি যে সময়টা ফেরির জন্য পদ্মায় ব্যয় হতো, সেই সময়টা এখন যাবে ঢাকায়দুদিন আগেও আমি ফ্লাইওভারে ৪০-৪৫ মিনিট বসেছিলামএখন নতুন যে ট্রাফিক ফ্লো হবে, সেটার চাপ নেয়ার মতো সক্ষমতা নেই

ঢাকার যানজট সামলাতে ব্যর্থ হলে পদ্মা সেতুর সুফল অনেক ক্ষেত্রে নষ্ট হতে পারে বলেও সতর্ক করলেন পুরকৌশল বিভাগের এই অধ্যাপকলোকাল উপযোগিতা তৈরি হলেও সম্পূরক সার্বিক অর্থনৈতিক বেনিফিট যেটা, সেটা কম হবেএখন ঢাকায় অতিরিক্ত যানজট তৈরি হওয়ার নতুন এলিমেন্ট হলো, রিং রোড নেই, বিকল্প ব্যবস্থা করা হয়নিএই ফসল সম্পূর্ণ ঘরে তুলে আনতে পারব না

ঢাকার যানজট নিরসনের জন্য ২০০৪ সালে সরকারের একটি মহাপরিকল্পনায় (এসপিটি) নগরীকে ঘিরে চক্রাকার পথ তৈরির সুপারিশ করা হয়েছিলপরে ২০১৫ সালে সংশোধিত এসটিপিতেও (আরএসটিপি) রাজধানীর চারদিকে সার্কুলার রোড করার সুপারিশ করা হয়ওই পরিকল্পনা নিয়ে ২০১৫ সালে সম্ভাব্যতা যাচাই শুরু করে সড়ক ও জনপথ (সওজ) অধিদফতর২০২০ সালের ডিসেম্বরে সেই কাজ শেষ হলেও নির্মাণ কাজ এখনও শুরু হয়নিঅথচ এ প্রকল্পের বাস্তবায়ন হলে ঢাকা শহরকে এড়িয়ে উত্তর-দক্ষিণের জেলাগুলোর চলাচলের একটি পথ তৈরি হতে পারত

বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক পরিবহন বিশেষজ্ঞ হাদীউজ্জামান বলেছেন, আরএসটিপিতে ইনার সার্কুলার রুট ছিল অগ্রাধিকার প্রকল্পসেখানে আটটি রেডিয়াল সড়কের কথা আছে, যার একটি ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়েএ সড়ক তৈরি হয়েছে পদ্মা সেতুর ফরওয়ার্ড লিঙ্কহিসেবেব্যাকওয়ার্ড লিঙ্কহিসেবে ইনার সার্কুলার রোড হওয়ার কথা ছিল, সেটা হয়নিতিনি বলেছেন, পদ্মায় ফেরি পার হয়ে এতদিন ঢাকার দিকে গাড়ি আসত ধাপে ধাপেএখন সেতু হওয়ায় গাড়ি ঢাকায় আসবে খুব দ্রুত, সংখ্যাও বেশি হবেএবার ঢাকা থেকেও একইভাবে বের হতে চাইবেতাতে ঢাকার ট্রাফিক ব্যবস্থা পড়বে উভমুখী সঙ্কটে

ইনার সার্কুলার রুটের গাবতলী সোয়ারিঘাট হয়ে কেরানীগঞ্জের সাড়ে ১২ কিলোমিটার অংশ অগ্রাধিকার দিয়ে করে ফেলা উচিতবিদেশী অর্থায়ন না পেলে প্রয়োজনে সরকারের নিজস্ব অর্থায়নে করতে হবে, এটা করা জরুরী বলে মনে করেন এই পরিবহন বিশেষজ্ঞ

সড়ক ও জনপথ (সওজ) অধিদফতরের একজন কর্মকর্তা বলেছেন, প্রকল্প অনুযায়ী কাজ করতে দীর্ঘ সময় লেগে যাবেযেহেতু পদ্মা সেতু ২৫ জুন চালু হয়েছে সেই হিসেবে ট্রাফিকের অগ্রাধিকার বিবেচনায় আর্থিক সক্ষমতার মধ্যে ইন্টারমিডিয়েট ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি

ঢাকা মহানগর পুলিশের ট্রাফিক বিভাগের একজন কর্মকর্তা জানান, পদ্মা সেতুর পাশাপাশি ডাইভারসানের জন্য আলাদা প্রজেক্ট নিয়ে থাকলেও দৃশ্যমান কিছু হয়নিএখানে আলাদা রিং রোড, ডাইভারশন রোড, এমনকি পদ্মা সেতু থেকে গাড়িগুলো ঢাকায় প্রবেশ না করে অন্য পথ দিয়ে প্রবেশের পরিকল্পনা নিতে হবেসেখানে আমাদের পুলিশ তখন দায়িত্ব পালন করছেযতটুকু রাস্তা আছে সেটাতে আমাদের দায়িত্ব আমরা পালন করছিযখন রাস্তা বাড়বে, তখন আমাদের দায়িত্ব বাড়বেঢাকায় নতুন করে পরিকল্পনা নেয়ার তেমন কিছু নেইঢাকার প্রবেশ মুখগুলোতে আমাদের পুলিশ সদস্যরা তপর আছেই

৩০ হাজার কোটি টাকার বেশি ব্যয়ে ৬.১৫ কিলোমিটার দীর্ঘ সেতু স্বপ্নের পদ্মা নির্মাণ করা হয়েছেদেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের ২১ জেলার সঙ্গে রাজধানীর সরাসরি যোগাযোগ প্রতিষ্ঠা হয়েছেএতে ঢাকার সঙ্গে দক্ষিণাঞ্চলসহ ৪১ জেলার যোগাযোগ সহজ হয়েছেপদ্মা সেতু চালু হওয়ার পর এখন প্রতিদিন যানবাহন চলাচলের সংখ্যা আনুমানিক ২৫ হাজারে উন্নীত হচ্ছেআগামী দশ বছরের মধ্যে প্রতিদিন ৪৫ হাজার থেকে ৭৫ হাজার পর্যন্ত যানবাহন চলাচলের সংখ্যায় উন্নীত হতে পারে বলে বিশেষজ্ঞদের ধারণাপদ্মা সেতু যানবাহনের জন্য খুলে দেয়ার ফলে নদী পারাপারে অর্থ ও সময়ের সাশ্রয় হচ্ছে, জীবনের ঝুঁকিও কমে আসছে ঠিকইকিন্তু রাজধানীতে তুলনামূলক গাড়ির সংখ্যা বেড়ে যাচ্ছেএর ফলে কোন রাস্তায় কী ধরনের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হতে পারে, সেগুলো চিহ্নিত করে ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে পুলিশ প্রশাসনরাজধানীতে প্রবেশের রাস্তাগুলোতে যাতে যানজটের সৃষ্টি না হয় সেজন্য বিভিন্ন সংস্থার সমীক্ষা, সুপারিশ ও আশু করণীয় নিয়ে সরকার যে কর্মপরিকল্পনা করছে তার বাস্তবায়নে পদক্ষেপ গ্রহণ করার প্রস্তুতি নিচ্ছে ডিএমপির ট্রাফিক বিভাগ

বিশেষজ্ঞরা  বলেছেন স্বপ্নের পদ্মা সেতু দেশের দক্ষিণাঞ্চল ও রাজধানী ঢাকার মধ্যে যাতায়াতের সময় কমিয়ে দিচ্ছে বটে।  কিন্তু এই সেতু চালু হওয়ার পর যানবাহনের সংখ্যা বৃদ্ধির কারণে রাজধানীর প্রবেশপথগুলোতে ভয়াবহ যানজটের সৃষ্টি হতে পারে বলেও যে শঙ্কা রয়েছে তা ক্রমেই বাস্তবতার মুখ দেখতে যাচ্ছেসেতুটি উদ্বোধনের পর থেকে কয়েক বছরের মধ্যে ঢাকা-মাওয়া-ভাঙ্গা এক্সপ্রেসওয়েতে যানবাহনের সংখ্যা দ্বিগুণ হওয়ার সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে, অন্যদিকে এক্সপ্রেসওয়ের সংক্ষিপ্ত রুটের কারণে ঢাকা-আরিচা রুট ৪০ শতাংশ আকর্ষণ হারাবেএর ফলে ঢাকা-মাওয়া এক্সপ্রেসওয়েতে মসৃণ যাত্রার পর অভ্যন্তরীণ যানবাহনগুলো রাজধানীর দুটি প্রবেশপথ- যাত্রাবাড়ী ও বাবুবাজারে আটকে থাকবেযার ফলে এই রুটে ভ্রমণে অতিরিক্ত সময় লেগে যাবে

পরিকল্পনা রাজধানীর যানজট এড়াতে একটি আউটার রিং রোডের পরিকল্পনা করেছে সরকারযেখানে থেকে অন্য জেলাগামী যানবাহনগুলোকে রাজধানীর প্রবেশমুখের আগে ডাইভার্ট করা যায়স্ট্র্যাটেজিক ট্রান্সপোর্ট প্ল্যান ফর ঢাকার (আরএসটিপি) আওতায় রাজধানীতে যানজট কমাতে পদ্মা সেতু থেকে চট্টগ্রাম পর্যন্ত বাইপাস হিসেবে রিং রোডের দক্ষিণ অংশের উন্নয়ন করা ছিল সর্বোচ্চ অগ্রাধিকারতবে এই সড়কটির নির্মাণকাজ এখনও শুরু হয়নিসরকার সবেমাত্র এই সড়কটির সম্ভাব্যতা সমীক্ষা শেষ করে একটি নক্সা প্রণয়ন করেছেযেহেতু এটি সম্পূর্ণ নতুন রাস্তা হতে যাচ্ছে তাই কর্তৃপক্ষকে আগে জমি অধিগ্রহণ করতে হবেজমি প্রস্তুত হলেই নির্মাণ কাজ শুরু হবে

দীর্ঘ ৪৮ কিলোমিটার রাস্তাই সমাধান ॥  সড়ক ও জনপথ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, প্রস্তাবিত ৪৮ কিলোমিটার সড়কটি সাভারের হেমায়েতপুর থেকে শুরু হয়ে কেরানীগঞ্জের কালাকান্দিতে মাওয়া এক্সপ্রেসওয়ের সঙ্গে মিলিত হবেকলাকান্দি থেকে এটি সৈয়দপুর ও মদনপুরে তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতুর দিকে যাবে, যা এন৫, এন৮ এবং এন১-কে সংযুক্ত করবেপদ্মা সেতু থেকে নামার পর অন্য জেলাগামী যানবাহনগুলো এসব সড়কে গেলে তাদের আর রাজধানীতে প্রবেশ করা লাগবে না৪৮ কিলোমিটারের মধ্যে ১২ কিলোমিটার রাস্তা তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতু থেকে মদনপুর পর্যন্ত আগে থেকেই আছে, তবে রাস্তাটির আরও উন্নয়নের প্রয়োজননতুন ৩৬ কিলোমিটার দীর্ঘ সড়কটি হেমায়েতপুর থেকে কালাকান্দি হয়ে তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতু পর্যন্ত চলবেএই ৩৬ কিলোমিটার সড়ক নির্মাণ করতে হবেএদিকে মদনপুর থেকে একটি ঢাকা বাইপাস সড়ক রয়েছে যা গাজীপুরের কোড্ডা পর্যন্ত যায়, এই সড়কটি আউটার রিং রোডের একটি অংশ এবং এই চার লেনের এক্সপ্রেসওয়ের নির্মাণ কাজ ইতোমধ্যে চলছেরিং রোডের আরেকটি অংশ হেমায়েতপুর থেকে নবীনগর থেকে বাইপাইল থেকে চন্দ্রা পর্যন্ত যাবে, এটিও রিং রোডের একটি অংশ যা আগে থেকেই আছেসুতরাং, আউটার রিং রোডের ১৩২ কিলোমিটারের মধ্যে, শহরের চারপাশে ট্রাফিক ডাইভার্ট করার জন্য আমাদের মাত্র ৪৮ কিলোমিটার নির্মাণ এবং উন্নয়ন করতে হবেনতুন ৩৬ কিলোমিটার রাস্তাটি জাপান সরকার-টু-সরকার (জিটুজি) ভিত্তিতে নির্মাণ করবেপ্রথমে কলাকান্দি থেকে তৃতীয় শীতলক্ষ্যা পর্যন্ত ১৮ কিলোমিটার সড়ক নির্মাণ করা হবে এবং বাকি অংশ পর্যায়ক্রমে নির্মাণ করা হবেশীতলক্ষ্যা থেকে মদনপুর পর্যন্ত ১২ কিলোমিটার বিদ্যমান অংশের উন্নয়ন করবে আরএইচডিঅন্যদিকে, তৃতীয় শীতলক্ষ্যা সেতুর নিরাণ কাজ শেষ হতে আরও ছয় মাস সময় লাগতে পারেব্রিজ থেকে কোড্ডা পর্যন্ত রাস্তা তৈরির কাজ ইতোমধ্যেই চলছেযা শেষ হতে আরও তিন বছর লাগবেআউটার রিং রোডের সামগ্রিক দক্ষিণ অংশে ভূমি মালিকদের জমি অধিগ্রহণের ক্ষতিপূরণসহ ১৩ হাজার কোটি টাকা ব্যয় হবেবাজেটের মধ্যে ১১ হাজার কোটি টাকা নতুন রাস্তা এবং জমি অধিগ্রহণে ব্যয় করা হবে এবং আরএইচডি ১২ কিলোমিটার রাস্তার উন্নয়নে ২ হাজার কোটি টাকা ব্যয় করা হবেডবল ফ্লাইওভার এবং লুপসহ মদনপুরে একটি বিশাল মোড় থাকবে

দুই বছরের মধ্যে শুরু হতে পারে নতুন সড়ক নির্মাণ কাজ সড়ক ও জনপথ বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, কোভিড-১৯ মহামারির কারণে উন্নয়ণ কাজ দুই বছরেরও বেশি সময় ধরে বন্ধ ছিলসম্ভাব্যতা সমীক্ষা ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে এবং বর্তমানে জাপানী প্রকৌশলীরা পরিকল্পনাটি যাচাই-বাছাই করছেনশীঘ্রই জমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়া শুরু হবেএই প্রক্রিয়া চলমান থাকাকালীন, নারায়ণগঞ্জ ও মুন্সীগঞ্জকে সংযোগকারী মুক্তারপুর সেতুর পাশে জাপান সেখানে সেতুর নির্মাণ কাজ শেষ করা হবেসরকার প্রাথমিকভাবে জমি অধিগ্রহণ প্রক্রিয়ায় দুই বছর সময় লাগবে এবং রাস্তা নির্মাণে আরও দুই বছর সময় লাগবে বলে অনুমান করা হচ্ছে

সরকার একটি এ্যাড-হক সমাধান নিয়ে কাজ করছে যেহেতু আউটার রিং রোডের দক্ষিণ অংশের নির্মাণ কাজ শেষ করতে বিলম্ব হবে বিধায় সরকার এখন পোস্তগোলা-চাষারা এবং গাবতলী-সদরঘাট সড়কসহ সক্ষমতা বৃদ্ধির জন্য আরও ভালো অভ্যন্তরীণ নেটওয়ার্কংয়ের জন্য বিদ্যমান কিছু রাস্তার উন্নয়নে মনোনিবেশ করা হচ্ছেএ সংযোগে গাবতলী সেতুকে আট লেনে উন্নীত করা হবেএটি গ্রিডলকগুলোকে সহজ করতে সাহায্য করবে কারণ যানবাহনগুলোকে সেখানে ঘুরিয়ে  দেয়া যেতে পারে বলে সড়ক ও জনপথ বিভাগের দাবিপদ্মা সেতু চালুর পর যাত্রাবাড়ী থেকে মূল যানজট শুরু হবে বলে আশঙ্কা করছে কর্তৃপক্ষইকুরিয়া থেকে যান চলাচল করবে পোস্তগোলা ও বাবুবাজারেগাবতলীতে যানবাহন চলাচলের জন্য বাবুবাজারের সড়ক ও ছোট ব্রিজগুলো মেরামত করা হবেপোস্তগোলা ব্রিজ থেকে চাষাড়া পর্যন্ত রাস্তা ও সংস্কার করা হবেযাত্রাবাড়ীর সাইনবোর্ড থেকে চট্টগ্রামমুখী রাস্তা ছয় লেনে উন্নীত করা হবেবাবুবাজার সেতুটি শহরের পশ্চিম দিকে গাবতলী, ধানম-ি ও কল্যাণপুরে যাতায়াতের জন্য ব্যবহার করা হবেসেতু থেকে রাস্তা প্রশস্ত করা হবেসব সবজি বাজার ও বাদামতলী ফলের বাজার অন্যত্র স্থানান্তর করা হতে পারেএছাড়াও কেরানীগঞ্জে স্থানীয় রাস্তা আছে যেগুলো উন্নত করা হবে যাতে বসিলা দিয়েও যানবাহন চলাচল করতে পারে

পদ্ম সেতু চালুর পর যানজটের সমাধানের পরিকল্পনা ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি) একজন কর্মকর্তা বলেছেন, পদ্মা সেতু খুলে দেয়া হয়েছেযানবাহনের বাড়তি চাপ সামাল দেয়ার উদ্ভূত পরিস্থিতিতে যাতায়াত ও গাড়ির গতি ঠিক রাখতে রাস্তায় সব ধরনের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা অব্যাহত আছেমাওয়া পার হওয়ার পর যানবাহনগুলো যাতে স্বল্প সময়ে রাজধানীতে ঢুকতে পারে, টার্মিনালে পৌঁছাতে পারে, যেন দীর্ঘ যানজটের সৃষ্টি না হয় সে বিষয়ে কাজ করা হচ্ছেটার্মিনালগুলোতে ধারণক্ষমতা পর্যালোচনা করে গাড়ির সংখ্যা পর্যালোচনার পাশাপাশি কী ধরনের বাড়তি গাড়ির চাপ হতে পারে, সে বিষয়েও কাজ করা হচ্ছেসব বিষয় মাথায় রেখেই গাড়ির চাপ সামলে কিভাবে যানজট নিয়ন্ত্রণ করা যায়, গাড়িগুলোর আসা-যাওয়া নিশ্চিত করা সম্ভব হয়, সে বিষয়ে পরিকল্পনা এবং কাজ চলমান রয়েছেঢাকা মহানগর পুলিশের দায়িত্বশীল কর্মকর্তারা যে পরিকল্পনা তৈরি করেছে তাতে রাজধানীতে ঢোকার জন্য মূলত দুটি রাস্তা রয়েছে, যার একটি বাবুবাজার ব্রিজ হয়ে এবং অন্যটি শ্যামপুর জুরাইন হয়েবর্তমানে সে সব রাস্তা দিয়ে কোন্ ধরনের যানবাহন চলাচল করছে, সে বিষয়ে সার্ভে করা হয়েছেপদ্মা সেতু চালু হওয়ার পর ফেরি পারাপারের কোন ঝামেলা না থাকার কারণে গাড়িগুলো মাওয়া হয়ে রাজধানীতে চলে আসতে পারছেযেসব রুট দিয়ে গাড়ি রাজধানীতে প্রবেশ করছে কিংবা রাজধানী থেকে বের হচ্ছে, সেসব রুটে যেন কোন ধরনের প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি না হয় সে বিষয়েও গুরুত্ব দেয়া হচ্ছেযত্রতত্র গাড়ি থামিয়ে যাত্রী ওঠানামার কারণে যেন যানজট সৃষ্টি না হয়, সে বিষয়ে ও লক্ষ্য রাখা হচ্ছেযে সব রোড দিয়ে গাড়ি চলাচল বেশি হয়, সে সব রোডের দিকে বেশি নজর দেয়া হচ্ছেরাস্তাগুলোর পয়েন্ট-টু-পয়েন্টে ভিত্তিক পর্যালোচনা করে ব্যবস্থা নেয়ার পরিকল্পনা নেয়া হয়েছেপদ্মা সেতু পার হয়ে আসা গাড়িগুলোর রাতে ঢাকায় ঢোকার এন্ট্রি পয়েন্ট ফ্রি রাখা গেলে যানজট অনেকটাই নিয়ন্ত্রণ করার পরিকল্পনা অনুযায়ী কাজ করা হচ্ছেকোন গাড়ির যেন ঢাকায় প্রবেশের ক্ষেত্রে কোন ধরনের ধীর গতির এবং যাত্রী ওঠাতে ও নামাতে না পারে সে বিষয়গুলো নজরে রেখেই কাজ করার পরও যানজটের সম্মুখীন হতে হচ্ছেতবে অদূর ভবিষ্যতে ইনার রিং রোড, আউটার রিং রোড, ডাইভারশন ইত্যাদির পরিকল্পনার বাস্তবায়ন হলে যানজট তো হবেই না, রাজধানী ঢাকার যানবাহনের শৃঙ্খলা ফিরে আসবে

ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২

শীর্ষ সংবাদ:

দেশে করোনায় মৃত্যু আরও ২, শনাক্ত ২১৮
কক্সবাজারের লাবণী ও সুগন্ধা বিচে ভাঙন
বিদ্যুত সাশ্রয়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে সাপ্তাহিক ছুটি দুইদিন হতে পারে
ইউক্রেনে পৌঁছালো যুক্তরাজ্যের অস্ত্রের নতুন চালান
অন্যান্য দেশের তুলনায় আমরা বেহেশতে আছি : পররাষ্ট্রমন্ত্রী
সারাদেশে ব্যাংকের শাখায় কেনাবেচা হবে ডলার
বিএনপির হাঁকডাক লোক দেখানো : ওবায়দুল কাদের
তেলের পাচার ঠেকাতেই দাম বাড়ানো হয়েছে : তথ্যমন্ত্রী
একদিন এগিয়ে কাতার বিশ্বকাপ শুরু ২০ নভেম্বর
নিয়ন্ত্রণের বাইরে জিনিসপত্রের দাম দিশেহারা জনজীবন
সরকার রাষ্ট্র পরিচালনায় ব্যর্থ: ফখরুল
টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে দুই বোনের শ্রদ্ধা
জনসন অ্যান্ড জনসন টেলকম পাউডারের বিক্রি বন্ধ
এলাকাভেদে শিল্প-কারখানার সাপ্তাহিক ছুটি ভিন্ন দিনে
বিয়ের ২৫ ভরি স্বর্ণ হাতিয়ে নিতে স্ত্রীকে খুন
বগুড়ায় সার ব্যবসার কালোবাজর নিয়ন্ত্রণ করছে সিন্ডিকেট
বাকেরগঞ্জ অবৈধভাবে বালু উত্তলনের মহাউৎসব