ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ০৫ অক্টোবর ২০২২, ১৯ আশ্বিন ১৪২৯

‘আঞ্চলিক বৈষম্য দূর না হলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন সম্ভব নয়’

প্রকাশিত: ০৫:১২, ২৬ ডিসেম্বর ২০১৬

‘আঞ্চলিক বৈষম্য দূর না হলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়ন সম্ভব নয়’

বাংলানিউজ ॥ আঞ্চলিক বৈষম্য দূর করতে না পারলে মুক্তিযুদ্ধের প্রকৃত চেতনা বাস্তবায়ন সম্ভব নয় বলে অভিমত ব্যক্ত করেছেন চট্টগ্রাম সাংবাদিক ইউনিয়ন (সিইউজে) সভাপতি ও পেশাজীবী সমন্বয় পরিষদ চট্টগ্রামের সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ হায়দার চৌধুরী। তিনি চট্টগ্রামের দক্ষিণ রাউজান মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা পরিষদের সমাপনী দিনের আলোচনায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ অভিমত দেন। রাউজানের বিজয় মেলায় এই পেশাজীবী নেতা মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় উন্নত কল্যাণ রাষ্ট্র প্রতিষ্ঠায় জাতির সামনে এখন জঙ্গীবাদ-সন্ত্রাসবাদ, ইতিহাস বিকৃতি, সাংস্কৃতিক আগ্রাসন ও বৈষম্যরোধসহ ৭ দফা চ্যালেঞ্জ তুলে ধরে বলেন, নতুন প্রজন্মের জন্য কালিমামুক্ত বাংলাদেশ নিশ্চিতে বর্ণচোরা ও হাইব্রিডদের অপতৎপরতা ও সকল ষড়যন্ত্রের ব্যাপারে সজাগ থাকতে হবে। যারা স্বাধীন রাষ্ট্রে জাতির জনকের কন্যা, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যা করতে চায় তাদের রুখতে না পারলে বাংলাদেশের স্বাধীনতা সার্বভৌমত্ব নিরাপদ নয়। দক্ষিণ রাউজান মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলাটি উদ্বোধন করেছিলেন গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন এমপি। সমাপনী দিনের আলোচনা সভায় মেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও স্থানীয় চেয়ারম্যান দিদারুল আলমের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন রিয়াজ হায়দার চৌধুরী। বিশেষ অতিথি ছিলেন তরুণ রাজনীতিবিদ অধ্যাপক মাসুম চৌধুরী, মুক্তিযোদ্ধা-সিএনসি-স্পেশাল ফেরদৌস হাফিজ খান রুমী, সৈয়দ রফিকুল ইসলাম ও কমান্ডার রেজাউল করিম। সঞ্চালনায় ছিলেন দিদারুল আলম ও নাজিমউদ্দিন। আলোচনা শেষে অনুষ্ঠান মঞ্চে স্থানীয় মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মাননা দেয়া হয়। রিয়াজ হায়দার চৌধুরী বলেন, মুক্তিযুদ্ধের স্বপ্নপূরণ আর মুক্তিযোদ্ধাদের প্রতি প্রকৃত সম্মান জানাতে হলে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বাস্তবায়নের পথ মসৃণ রাখতে হবে। এক্ষেত্রে কোনভাবেই চট্টগ্রাম বা ঢাকার বাইরের কোন অঞ্চলকে তার ন্যায্য মর্যাদা বা অধিকার থেকে বঞ্চিত করা ঠিক হবে না। যারা যুদ্ধাপরাধীদের ফাঁসির রায় কার্যকর হওয়ার পর তাদের জন্য গায়েবানা জানাজা পড়েন, সেই সব দেশবিরোধীদের চিহ্নিত করে সামাজিকভাবে বয়কট ও প্রশাসনিক ব্যবস্থা নিতে হবে। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে অধ্যাপক মাসুম চৌধুরী বলেন, সব মেলার সেরা মেলা, মুক্তিযুদ্ধের বিজয় মেলা। যারা যুদ্ধাপরাধীদের গাড়িতে মন্ত্রিত্বের পতাকা দিয়েছে তাদের হাতে দেশ নিরাপদ নয়।