ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ২৯ নভেম্বর ২০২২, ১৫ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

মন্ত্রিসভা থেকে জাপার বেরিয়ে যাওয়ার ইঙ্গিত কাদেরের

প্রকাশিত: ০৭:০২, ২৭ জানুয়ারি ২০১৬

মন্ত্রিসভা থেকে জাপার বেরিয়ে যাওয়ার ইঙ্গিত কাদেরের

স্টাফ রিপোর্টার ॥ সরকারের মন্ত্রিসভায় জাতীয় পার্টি না থাকার ইঙ্গিত দিয়ে দলটির কো-চেয়ারম্যান ও সাবেক মন্ত্রী জিএম কাদের বলেছেন, মন্ত্রিসভায় থাকলে বিরোধী দল হিসেবে আমরা জনগণের বিশ্বাস অর্জন করতে পারব না। তাছাড়া দেশে তো কোন জরুরী অবস্থা চলছে না যে, সব দল নিয়ে মন্ত্রিসভা হতে হবে। মঙ্গলবার জাতীয় সাংস্কৃতিক পার্টির উদ্যোগে আয়োজিত পার্টির কো-চেয়ারম্যান হিসেবে জিএম কাদের ও মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদারের সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। পার্টির চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয়ে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। এদিকে ৩১ জানুয়ারি জাতীয় পার্টির যৌথসভা আহ্বান করেছেন এরশাদ। দুই বছর পর দলের পক্ষ থেকে এ ধরনের সভার আয়োজন করা হলো। এ সময় জিএম কাদের বলেন, ‘জাতীয় পার্টিকে শক্তিশালী বিরোধী দল হিসেবে কাজ করার সুযোগ দিন। কারণ জনগণ জাতীয় পার্টিকে কলঙ্কমুক্ত দেখতে চাইছে। মাঠপর্যায়ে এখন রাজনৈতিক শূন্যতা বিরাজ করছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, সরকারী দলের লোকেরা সরকারের পক্ষে বলছেন। কিন্তু কোন বিরোধিতা নেই। জনগণ চাচ্ছে জাতীয় পার্টি সত্যিকার অর্থে বিরোধী ভূমিকা নিয়ে সামনের দিকে এগিয়ে যাক। বিরোধিতা হোক। এর মধ্য দিয়ে দেশ সঠিক পথে এগিয়ে যাবে। মানুষ শান্তিতে বসবাস করতে পারবে। জাতীয় সাংস্কৃতিক পার্টির সভাপতি বাদল খন্দকারের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন জাপার মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার, যুগ্ম মহাসচিব এ্যাডভোকেট রেজাউল ইসলাম ভুঁইয়া, প্রেসিডিয়াম সদস্য মাসুদ পারভেজ সোহেল রানা, মীর আব্দুস সবুর আসুদ ও সাংস্কৃতিক পার্টির সাধারণ সম্পাদক নাজমুল খান প্রমুখ। ৩১ জানুয়ারি দলের যৌথসভা ॥ জাতীয় পার্টিতে (জাপা) চলমান অস্থিরতা নিরসনে যৌথসভা আহ্বান করেছেন দলের চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ। রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে সকাল ১০টায় এ সভা হবে আগামী ৩১ জানুয়ারি। মঙ্গলবার রাতে সভার বিষয়টি জনকণ্ঠকে নিশ্চিত করেছেন জাপা মহাসচিব রুহুল আমিন হাওলাদার। জাপার প্রেসিডিয়াম সদস্য, এমপি, উপদেষ্টা, কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য, জেলার ও অঙ্গসংগঠনের সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকদের যৌথসভায় আমন্ত্রণ জানানো হবে। তিনি বলেন, যৌথসভায় নেতাকর্মীরা যদি আমাকে না চায়, তাহলে কো-চেয়ারম্যানের পদ থেকে সরে দাঁড়াব।
monarchmart
monarchmart