ঢাকা, বাংলাদেশ   বুধবার ১৭ এপ্রিল ২০২৪, ৩ বৈশাখ ১৪৩১

রোজার আগেই ১০ হাজার পণ্যের দাম কমাল আরব আমিরাত

প্রকাশিত: ১৫:৫৪, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

রোজার আগেই ১০ হাজার পণ্যের দাম কমাল আরব আমিরাত

সুপার শপ। ছবি: ইন্টারনেট থেকে

পবিত্র রমজান মাস উপলক্ষ্যে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতে (ইউএই) প্রায় ১০ হাজার পণ্যের দাম কমানোর ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। শারজাহ কো-অপারেটিভ সোসাইটি নামে একটি রিটেইলার প্রতিষ্ঠান গত বুধবার (২১ ফেব্রুয়ারি) এই মূল্য ছাড়ের ঘোষণা দেয়।

দাম কমানো এসব আইটেমের বেশিরভাগই অত্যাবশ্যকীয় খাদ্য পণ্য। এছাড়া রান্নার তেল এবং ময়দার মতো পণ্যের দামও ৭৫ শতাংশ পর্যন্ত হ্রাস পাবে। গত বুধবার এক প্রতিবেদনে এই তথ্য জানিয়েছে সংবাদমাধ্যম খালিজ টাইমস।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শারজাহ কো-অপারেটিভ সোসাইটি গত বুধবার ঘোষণা করেছে। তারা ২০২৪ সালের পবিত্র রমজান মাসের জন্য ৩৫ মিলিয়ন দিরহাম বরাদ্দ করেছে এবং প্রায় ১০ হাজার আইটেমের দাম কমিয়েছে।

তারা বলছে, দাম কমানো এই আইটেমগুলোর প্রায় ৮০ শতাংশই অত্যাবশ্যকীয় খাদ্য পণ্য এবং সমগ্র আমিরাত জুড়ে অবস্থিত তাদের ৬৭টি শাখায় এগুলো পাওয়া যাবে। রান্নার তেল, ময়দা এবং চালের মতো প্রধান মুদি পণ্যের দাম ৭৫ শতাংশ পর্যন্ত হ্রাস পাবে।

খালিজ টাইমস বলছে, গত ২২ ফেব্রুয়ারি থেকেই পণ্যের এই মূল্যছাড় শুরু হয়েছে। এছাড়াও প্রাথমিকভাবে ওই ১০ হাজার পণ্যের বাইরে থাকা আইটেমগুলোর ওপর সাপ্তাহিক অফারগুলোতেও অতিরিক্ত আরও মূল্যছাড় পাওয়া যাবে।

এর পাশাপাশি এই ক্যাম্পেইনের অধীনে ৩০০ দিরহাম বা তার বেশি খরচ করা ক্রেতাদের জন্য বড় বড় পুরস্কার পাওয়ার সুযোগও রয়েছে। যার মধ্যে প্রতি সপ্তাহে দুটি সুজুকি ডিজায়ার গাড়ি, ৩০টি আসবাবপত্র উপহার কার্ড। যার মূল্য ৫ হাজার দিরহাম এবং এক হাজার দিরহাম মূল্যের ৩২টি শপিং গিফট কার্ড।

শারজাহ কো-অপারেটিভ সোসাইটির সিইও মাজিদ আল জুনায়েদ জানান, বিশ্বব্যাপী সরবরাহ শৃঙ্খল সংক্রান্ত চ্যালেঞ্জ সত্ত্বেও শারজাহ কো-অপারেটিভ সোসাইটি তার সকল শাখায় প্রয়োজনীয় সমস্ত পণ্যের পর্যাপ্ত সরবরাহের নিশ্চয়তা দিয়েছে।

তিনি বলেন, পবিত্র রমজান মাসে সম্ভাব্য মূল্যবৃদ্ধির বিষয়ে গ্রাহকদের উদ্বেগ থাকলেও সোসাইটি সাশ্রয়ী মূল্যে পণ্য হাতে তুলে দেওয়ার ব্যাপারে জনসাধারণকে আশ্বস্ত করেছে।

এছাড়া যানজট নিরসনে এবং গ্রাহকদের আরও বেশি সুবিধা প্রদানের জন্য ড্রাইভ-থ্রু শপিংয়ের মতো সুযোগ চালু করার দিকেও নজর দিচ্ছে আরব অমিরাতের এই খুচরা বিক্রেতা সংস্থাটি।

সূত্র: খালিজ টাইমস।
 

এসআর

×