ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ২১ জুন ২০২৪, ৭ আষাঢ় ১৪৩১

খবর দ্য গার্ডিয়ানের

ব্রিটেনে কর্মীদের সাপ্তাহিক ছুটি ৩ দিন 

প্রকাশিত: ১৫:৪৬, ২৯ নভেম্বর ২০২২

ব্রিটেনে কর্মীদের সাপ্তাহিক ছুটি ৩ দিন 

ব্রিটেনের কর্মী

সপ্তাহে মাত্র একদিন ছুটি মেলে। কোথাও কোথাও ছুটি থাকে দুইদিন। কিন্তু অফিস সময় শেষ হয়ে সেই সাপ্তাহিক ছুটি যেন আসতে চায় না।

তবে যুক্তরাজ্যের ১০০টি কোম্পানির কর্মীদের এই সাপ্তাহিক ছুটির অপেক্ষা কমছে। ওইসব কোম্পানি ঘোষণা দিয়েছে— তাদের কর্মীরা এখন থেকে ৩ দিন সাপ্তাহিক ছুটি পাবেন। এতে করে সপ্তাহে কর্মদিবস হবে চারদিন। কিন্তু এরপরও কোনও অর্থ কেটে রাখা হবে না। 

যে ১০০টি কোম্পানি সাপ্তাহিক ছুটি ৩ দিন করার ঘোষণা দিয়েছে সেগুলোতে কাজ করেন প্রায় ২ হাজার ৬০০ জন কর্মী। এসব কোম্পানিতে এ নিয়ে আগে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালানো হয়েছে। এরপর ঘোষণা দেওয়া হয়েছে এখন থেকে স্থায়ীভাবে সব কর্মী ৩ দিনের সাপ্তাহিক ছুটি পাবেন। অর্থাৎ এসব কোম্পানির কর্মীরা সপ্তাহে চারদিন কাজ করবেন। আর তিনদিন ছুটি কাটাবেন।

তিন দিন সাপ্তাহিক ছুটি দেওয়ার বিষয়টিকে সমর্থনকারীরা সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানকে জানিয়েছেন, সপ্তাহে পাঁচ কর্মদিবসের পর ছুটি দেওয়ার বিষয়টি আধুনিক অর্থনীতিতে একটি বাজে ব্যবস্থা।

তারা জানিয়েছেন, চারদিন কাজের পর যেসব কোম্পানিতে ছুটি দেওয়া হয় সেসব কোম্পানির উৎপাদন বেড়ে যায় এবং কর্মীরা এই কম সময়ের মধ্যেই  নিজেদের কাজ সম্পন্ন করতে পারেন। যেসব কোম্পানি ‘তিন দিনের সাপ্তাহিক ছুটির ফর্মুলা’ গ্রহণ করেছে সেখানে কর্মীদের যোগ দেওয়া এবং বেশিদিন থাকার আগ্রহ তৈরি হয়।

যে ১০০টি কোম্পানি এ ঘোষণা দিয়েছে তার মধ্যে রয়েছে- অ্যাটম ব্যাংক এবং বৈশ্বিক মার্কেটিং কোম্পানি আউইন। তাদের যুক্তরাজ্য শাখায় প্রায় ৯০০ কর্মী রয়েছে।

গার্ডিয়ান জানিয়েছে, যুক্তরাজ্যের ক্যামব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়, অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়, যুক্তরাষ্ট্রের বোস্টন বিশ্ববিদ্যালয় এবং থিংকট্যাংক অটোনমি যৌথভাবে ছুটির বিষয়টি নিয়ে একটি পাইলট প্রজেক্ট পরিচালনা করছে। বিশ্বের মোট ৭০টি কোম্পানির ৩ হাজার ৮০০ কর্মীকে নিয়ে চলছে তাদের এ মহাযজ্ঞ।

এ পাইলট  প্রজেক্টে অংশ নেওয়া ৭০টি কোম্পানির ৮৮ ভাগ চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে জানিয়েছিল, তাদের ব্যবসায় এটি ‘ভালো’ প্রভাব রাখছে। এছাড়া ৯৫ ভাগ প্রতিষ্ঠান জানিয়েছিল, তাদের উৎপাদন একই আছে অথবা একটু বেড়েছে। কিন্তু কমেনি।

 

টিএস

সম্পর্কিত বিষয়:

×