ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১৫ আশ্বিন ১৪২৯

কংগ্রেসের অভিযোগ

ক্ষমতার নেশায় বুঁদ হয়ে আছেন মোদি

প্রকাশিত: ০৪:২২, ১৯ মার্চ ২০১৮

ক্ষমতার নেশায় বুঁদ হয়ে আছেন মোদি

ক্ষমতার নেশায় বুঁদ হয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বিদ্বেষ ছড়াচ্ছেন, রবিবার ভারতের রাজধানী নয়াদিল্লীতে বিরোধী কংগ্রেস পার্টির পূর্ণাঙ্গ অধিবেশনে দলটির নেতৃবৃন্দ এ অভিযোগ করেছেন। সম্মিলিত প্রগতিশীল মোর্চার (ইউপিএ) চেয়ারপার্সন সোনিয়া গান্ধী বললেন, কংগ্রেস গণমানুষের দল। রবিবার দলটির দু’দিনের অধিবেশন শেষ হয়। এনডিটিভি। সোনিয়া বলেন, কংগ্রেস সুখে দুখে সাধারণ মানুষের সঙ্গে আছে। সব সময় অন্যায়ের বিরুদ্ধে কথা বলে। সবাইকে সঙ্গে নিয়ে কংগ্রেসই পারে প্রতিশোধমুক্ত ভারত গড়ে তুলতে। শনিবার ছিল দুই দিনব্যাপী পার্টির পূর্ণাঙ্গ অধিবেশনের প্রথম দিন। অধিবেশনের প্রথম দিনই সারাদেশ থেকে আসা কংগ্রেস প্রতিনিধিদের সামনে রাহুল-সোনিয়া ২০১৯-এর সাধারণ নির্বাচনের কথা মনে করিয়ে দেন। রাহুল বললেন, ‘কংগ্রেস ও বিজেপির মধ্যে আসমান-জমিন ফারাক। বিজেপি বিশ্বাস করে বিদ্বেষে, কংগ্রেসের শক্তি মানুষের ভালবাসা। দেশজুড়ে বিদ্বেষের বীজ ছড়িয়ে দেয়া হচ্ছে। মানুষ মানুষের সঙ্গে হানাহানি করছে। দেশ ক্লান্ত। মানুষ মুক্তি চাইছে। নতুন পথের সন্ধান করছে। কংগ্রেস সেই পথের সন্ধান দেবে।’ রাহুলের সংক্ষিপ্ত ভাষণের পর সোনিয়া বলেন, ‘মোদি সরকার ক্ষমতার নেশায় বিভোর। দেশজুড়ে ঘৃণা ও বিদ্বেষ ছড়িয়ে দিচ্ছে। কংগ্রেস কোন দিন কোন চ্যালেঞ্জের সামনে মাথা নোয়ায়নি। নোয়াবেও না। একজোট হয়ে এই চ্যালেঞ্জের মোকাবেলা করবে।’ কংগ্রেস যে নিছকই এক রাজনৈতিক দল নয়, একটা দৃষ্টিভঙ্গি, প্রতিনিধিদের সে কথা মনে করিয়ে দিয়ে সোনিয়া বলেন, সনাতন ভারতীয় মূল্যবোধগুলো কংগ্রেসই রক্ষা করে চলেছে। মোদির সেøাগান, ‘সবকা সাথ সবকা বিকাশ’ এবং দুর্নীতিরোধে ‘না খাউঙ্গা, না খানে দুঙ্গা’ প্রতিশ্রুতির কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, এসবই ধোঁকাবাজ।