ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ০১ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০

মাত্র ৪৮ ঘন্টা সচল থাকবে গাজার সব হাসপাতাল!

প্রকাশিত: ১৬:৩০, ১৪ নভেম্বর ২০২৩; আপডেট: ১৬:৩৮, ১৪ নভেম্বর ২০২৩

মাত্র ৪৮ ঘন্টা সচল থাকবে গাজার সব হাসপাতাল!

গাজার হাসপাতাল

জ্বালানি সংকটে আর মাত্র ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে বন্ধ হয়ে যাবে গাজার সব হাসপাতাল! গাজা উপত্যকার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ডা. আশরাফ আল-কুদরা এ তথ্য জানিয়েছেন।

মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরাকে দেয়া এক সাক্ষৎকারে ডা. আশরাফ আল-কুদরা বলেন, ‘জ্বালানির সংকটের কারণে গাজা উপত্যকার হাসপাতালগুলো ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে বন্ধ হয়ে যাবে।’ গাজায় একদিকে ইসরাইলি বাহিনীর অবিরাম হামলা, অন্যদিকে জ্বালানি সংকট। এ অবস্থায় উত্তর গাজার বেশির ভাগ হাসপাতালই বন্ধ হয়ে গেছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

সোমবার (১৩ নভেম্বর) গাজার সবচেয়ে বড় দুই হাসপাতাল আল-শিফা এবং আল-কুদস জ্বালানি সংকট ও ইসরাইলি হামলার ভয়ে বন্ধ হয়ে গেছে। গাজায় চিকিৎসার অভাবে প্রতিদিন মারা যাচ্ছে শত শত মানুষ। ফিলিস্তিনি স্বাস্থ্যমন্ত্রী মাই আল-কাইলা জানান, ইসরাইলি স্নাইপাররা আল-শিফা হাসপাতালের কাছে কাউকে দেখতে পেলেই তাকে লক্ষ্য করে গুলি চালাচ্ছেন। ভয়াবহ এ পরিস্থিতিতে লাশগুলো দাফন করারও সুযোগ পাওয়া যাচ্ছে না। আল-শিফা হাসপাতালের চত্বরে স্তূপ করে রাখা হয়েছে বহু মরদেহ। এ অবস্থাতেই পচে যাচ্ছে সেগুলো।
 
জাতিসংঘের ফিলিস্তিনের শরণার্থী এবং ত্রাণ সংস্থা (ইউএনআরডব্লিউএ) গাজার বর্তমান পরিস্থিতিকে 'ভয়াবহ' বলে উল্লেখ করে গাজায় বাস্তুচ্যুত ফিলিস্তিনিদের জন্য যুদ্ধবিরতি এবং জরুরি মানবিক সহায়তা সরবরাহের আহ্বান জানিয়েছে।
 
৭ অক্টোবর থেকে ফিলিস্তিনের গাজায় বর্বর হত্যাযজ্ঞ চালাচ্ছে ইসরাইল। এতে এখন পর্যন্ত ১১ হাজার ২০০ জনেরও বেশি মানুষ নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে শিশুই সাড়ে চার হাজার।

 

এস

সম্পর্কিত বিষয়:

×