ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ২০ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১

অপু-বুবলীকে নিয়ে চটেছেন শাকিব

প্রকাশিত: ১৯:০৫, ১৬ এপ্রিল ২০২৪

অপু-বুবলীকে নিয়ে চটেছেন শাকিব

অপু-শাকিব-বুবলী

ঢালিউড সুপারস্টার শাকিব খানের সাবেক দুই বধূ অপু বিশ্বাস ও শবনম বুবলীর দাম্পত্য কাহিনি শেষ হয়েও শেষ হলো না! কয়েক দিন পরপরই দুই নায়িকার মুখে উঠে আসে, তাদের বিয়েবিচ্ছেদ হয়নি। শাকিবপত্নী হিসেবে দুই নায়িকাই স্বামীর প্রতি এখনও ইতিবাচক মনোভাব প্রকাশ করেন। যদিও শাকিব খান বরাবরই অপু-বুবলীকে নিজের জীবনের ‘অতীত’ বলে মন্তব্য করে গেছেন। তবে দুই সন্তানের কারণে এখনও যোগাযোগ হয় শাকিব-অপু ও শাকিব-বুবলীর মাঝে। 

সম্প্রতি ঈদের আগে একটি বেসরকারি টেলিভিশনে সাক্ষাৎকার দিয়েছেন বুবলী। যেখানে অভিনেত্রী জানিয়েছেন, শাকিব খানের সঙ্গে এখনও বিয়েবিচ্ছেদ হয়নি তার। এ ক্ষেত্রে দুজনেই সময় নিচ্ছেন। সাবেক স্ত্রীর কাছ থেকে এসব শুনে বেজায় বিরক্ত শাকিব খান। অভিনেতা একটি গণমাধ্যমে বলেছেন-‘এদের কোনো কাজ নেই? আমি তো সবকিছু আগেই পরিষ্কার করে দিয়েছি। তবুও কেন নতুন করে এসব বিষয় নিয়ে ইস্যু বানায়?’

ওই সাক্ষাৎকারে বুবলী আরও বলেছেন-‘শাকিব খানকে ছাড়া আর দ্বিতীয় কোনো পুরুষকে আমার জীবনে ভাবতে পারি না। বুবলীর জীবনে রাজকুমার শাকিব। আমাদের ভবিষ্যৎ কী হবে সেটা হয়তো ভবিষ্যৎই বলে দেবে। কিন্তু তার আগে আমাদের একটা কথা বলার জায়গা আছে। পারিবারিকভাবেও কথা বলার জায়গা আছে। কারণ সন্তানের জন্য হয়তো অনেক কিছুই মানিয়ে নিচ্ছি। তবে আমার একটা অভিমান-কষ্টের জায়গা তো থাকছে।’

স্বামীর সঙ্গে বিচ্ছেদ হলেও এখনও নিয়মিত যোগাযোগ রয়েছে শাকিব-অপুর। তবে বুবলীর সাক্ষাৎকারের পর ঈদের দিন সন্তান আব্রামকে সঙ্গে নিয়ে শাকিব খানের বাসায় যেতে চাননি অপু বিশ্বাস। শাকিবের বাবা ও মা অপুকে বাসায় যেতে বলেন।  আব্রামকে সঙ্গে নিয়ে ঈদের দিন শ্বশুরবাড়িতে যান অপু। এদিন রাত প্রায় সাড়ে ১১টা পর্যন্ত শাকিব খানের বাসায় ছিলেন অপু বিশ্বাস। 

ঈদে শ্বশুরকে পাঞ্জাবি, শাশুড়িকে কিনে দিয়েছেন শাড়ি, ননদকে উপহার দিয়েছেন জামা। আর শাকিব খানকে নিজের শাড়ির সঙ্গে মিলিয়ে পাঞ্জাবি উপহার দিয়েছেন অপু বিশ্বাস। বাবা শাকিবকে ঈদ উপহারও দিয়েছেন জয়।

এদিকে এক সাক্ষাৎকারে অপু বিশ্বাস জানিয়েছেন ছেলে জয়কে বিদেশে লেখাপড়ার জন্য পাঠিয়ে দেবেন। এ অভিনেত্রী বলেন, ‘ছেলেকে বিদেশে পাঠালেও জয় ও নিজের কাজ নিয়ে থাকব। জয়ের বাবা শাকিবও সেভাবেই থাকবে। সেখানে জয় একা থাকবে না। আমাদের পরিবারের সদস্যরা মিলেমিশেই থাকা হবে। কারণ জয় শুধু আমার জীবনেই সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ নয়, ও আমাদের পরিবারের সবার কাছেই গুরুত্বপূর্ণ।’

পারিবারিক ও ব্যক্তিগত বিষয়গুলো আড়ালে রাখতে পছন্দ করেন শাকিব খান। কিন্তু তার সাবেক দুই স্ত্রী যেভাবে ব্যক্তিগত বিষয়গুলো দিন দিন প্রকাশ্যে আনছেন, এতে সামাজিকভাবে বিভিন্ন প্রশ্নের মুখে পড়েছেন শাকিব খান। এ ঈদে তার মুক্তি পাওয়া রাজকুমার ছবিটি শাকিবভক্তরা উপভোগ করছেন। সুন্দর এই মুহূর্ত পরিবারের সঙ্গে উদযাপন না করেই ভারতেই চলে গেছেন তিনি।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আগামী ২০ এপ্রিল থেকে ভারতে তুফান সিনেমার শুটিং হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু পারিবারিক বিষয়গুলো দিন দিন জটিল হওয়ায়, শনিবার সন্ধ্যায় ভারতে চলে যান শাকিব খান। টানা এক মাস সেখানে শুটিং শেষ করে ঢাকা ফিরবেন এ অভিনেতা। ‘তুফান’ সিনেমাটি ঈদুল আজহায় মুক্তি পাবে।

 

শহিদ

×