ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪, ১২ ফাল্গুন ১৪৩০

নির্জনার রঙিন ক্যানভাস

মুহাম্মদ শফিকুর রহমান 

প্রকাশিত: ০১:২৮, ১০ ডিসেম্বর ২০২৩

নির্জনার রঙিন ক্যানভাস

পড়াশোনার পাশাপাশি এখনকার তরুণ-তরুণীরা নানা ধরনের শৌখিন কাজ করে

পড়াশোনার পাশাপাশি এখনকার তরুণ-তরুণীরা নানা ধরনের শৌখিন কাজ করে। অবসর সময়ে তাদের এসব কাজে দুটি লাভ হয়। পকেট খরচের টাকা আসে এবং নির্দিষ্ট বিষয়ে দক্ষতা অর্জন সম্ভব হয়। যা পরবর্তী জীবনে কাজে লাগতে পারে। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণিবিদ্যা বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী নুসরাত জাহান নির্জনা। পড়াশোনার পাশাপাশি ছবি আঁকেন। তার ‘নিরস প্যাশন’ নামে একটি ফেসবুক পেজ আছে। যেটার মাধ্যমে ছবির বেচাবিক্রি করেন তিনি। ছোটে বেলা থেকেই তার আঁকাআকির প্রতি ঝোঁক। তখন নির্জনা ৪র্থ শ্রেণিতে পড়ে। একটি ছবি আঁকার প্রতিযোগিতায় তৃতীয় হন। সেটি ছিল গ্রামের একটি দৃশ্য। প্রকৃতিক দৃশ্য তার খুব পছন্দ।
ছবি আঁকার মধ্যে আশার আলো দেখতে পান তিনি। মানসিক শান্তি অনুভব করেন। ক্যানভাসে এক্রেলিক রং দিলে ছবিগুলোর স্থায়িত্ব বেশি হয়। আবার একটু বার্নিশ দিয়ে দেন। যা ছবিকে আর টেকশই করে তোলে। এ পর্যন্ত নির্জনা কয়েকশ ছবি এঁকেছেন বলে জানান। কিন্তু এতে পড়াশোনার কোনো ক্ষতি হয়নি। জানতে চাইলে তিনি বলেন, পড়াশোনার পরে অবসর সময়ে ছবি আঁকি। তাই ক্ষতি হওয়ার সুযোগ নেই। প্রতিমাসে ছবি বিক্রি করে যে আয় হয় তাতে নির্জনা সন্তুষ্ট। তিনি মনে করেন, স্টুডেন্টরা পড়াশোনার পাশাপাশি ছবি এঁকে আয় করতে পারে। তবে প্রথম দিকে সফলতা না পেলে হতাশ হওয়া যাবে না। অসংখ্য প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছেন নির্জনা।

এর মধ্যে ব্রিটিশ কাউন্সিল চিত্রাংকন প্রতিযোগিতায় তৃতীয় হয়েছেন। শুধু ছবি আঁকা নিয়ে প্রায় ৫০টির মতো সার্টিফিকেট আছে তার। তার আঁকা ছবি শিল্প-বাংলা আর্ট এক্সিবিশন ২০২২ (২৭-৩০ জুন), অ্যানুয়াল স্টুডেন্ট আর্ট শো হেলড ইন দুবাই, ইন্টারন্যাশনাল আর্ট এক্সিবিশন (৫-৬ নভেম্বর, ২০২২), সিক্সথ টিউন অব আর্ট হেল্ড ইন বাংলাদেশ, সেকেন্ড ইন্টারন্যাশনাল আর্ট ফেস্টিভ্যাল (২৬-২৮ ডিসেম্বর, ২০২২), ওয়ে টু আর্টির্স্টি ড্রিমআর্ট এক্সিবিশন (২৩-২৪ সেপ্টেম্বর, ২০২২) এ শিল্পবোদ্ধাদের ব্যাপক প্রশংসা পায় বলে জানান। দুবাইতে একটি এক্সিবিশনে নির্জনার ছবি ছিল। এটি তার জীবনের সবচেয়ে আনন্দের ঘটনা বলে জানান। তবে তিনি বলেন, মানুষ ছবির শিল্প মূল্য বুঝে না। আলু-পটলের মতো ছবির দর দাম করে। আজে-বাজে কথা বলে। এই বিষয়গুলো নির্জনাকে খুব কষ্ট দেয়।

নতুন যারা ছবি আঁকতে চায় তাদের জন্য নির্জনার পরামর্শ হলো- ধৈর্য রাখতে হবে। শুধু বিক্রির জন্য ছবি আঁকবেন এই মনোভাব রাখা যাবে না। ছবি আঁকার মাঝে আপনার শান্তি খুঁজে পাবেন যখন, তখনই আপনি ভালো ফলাফল পাবেন। হতাশ হওয়া যাবে না। ভবিষ্যতে ছবি আঁকা নিয়ে নির্জনার পরি কল্পনা হলো- নিজস্ব আর্ট গ্যালারি করবেন। ছবি আঁকা নিয়ে ক্যারিয়ার গড়ার ভাবনাও আছে তার।

×