ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ০৩ ডিসেম্বর ২০২২, ১৯ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

বসুন্ধরা পেপারের লেনদেন শুরু সোমবার

প্রকাশিত: ০৫:০৪, ২৯ জুন ২০১৮

বসুন্ধরা পেপারের লেনদেন শুরু সোমবার

অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ সম্প্রতি প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) সম্পন্ন করা বসুন্ধরা পেপার মিলের লেনদেন আগামী ২ জুলাই, সোমবার শুরু“ হবে। ওইদিন দুই স্টক এক্সচেঞ্জে (ডিএসই) কোম্পানিটি ‘এন’ ক্যাটাগরিতে লেনদেন শুরু করবে। ডিএসই সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে। সূত্র জানায়, ডিএসইতে বসুন্ধরা পেপারের ট্রেডিং কোড হবে ইচগখ। আর কোম্পানি কোড হবে ১৯৫১২। গত ২৫ জুন কোম্পানির আইপিওর লটারিতে বরাদ্দ প্রাপ্ত শেয়ার বিনিয়োগকারীদের বিও হিসাবে জমা হয়েছে। এর আগে প্রাথমিক গণপ্রস্তাব (আইপিও) সম্পন্ন করা বসুন্ধরা পেপার মিল লিমিটেডকে তালিকাভুক্তির অনুমোদন দিয়েছে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই)। গত ৩০ মে কোম্পানিটি বসুন্ধরা কনভেনশন মিলনায়তন-১, কুড়িল এ আইপি লটারি অনুষ্ঠান সম্পন্ন করে। তথ্যানুসারে, বসুন্ধরা পেপার পুঁজিবাজারে ২ কোটি ৬০ লাখ ৪১ হাজার ৬৬৭টি শেয়ার ইস্যুর মাধ্যমে ১৯৯ কোটি ৯৯ লাখ ৯৯ হাজার ৯৫২ টাকা সংগ্রহ করবে। এর মধ্যে কাট অফ প্রাইস বা ৮০ টাকা দরে ১ কোটি ৫৬ লাখ ২৫ হাজার শেয়ার ইলিজিবল ইনভেস্টরদের কাছে ১২৫ কোটি টাকায় ইস্যু করা হবে। বাকি ১ কোটি ৪ লাখ ১৬ হাজার ৬৬৬টি শেয়ার কাট অফ প্রাইসের ১০ শতাংশ কমে ৭২ টাকা করে সাধারণ বিনিয়োগকারীদের কাছে ৭৪ কোটি ৯৯ লাখ ৯৯ হাজার ৯৫২ টাকায় বিক্রি করা হবে। এর আগে আইপিওর মাধ্যমে বুক বিল্ডিং পদ্ধতিতে পুঁজিবাজার থেকে মূলধন সংগ্রহে ২০১৬ সালের ৩০ জুন রোড শোর আয়োজন করে বসুন্ধরা পেপার। রোড শোর এক বছরেরও বেশি সময় পরে ২০১৭ সালের আগস্টে কাট অফ প্রাইস নির্ধারণের জন্য বিডিংয়ের অনুমোদন পায় কোম্পানিটি। বিডিংয়ের মাধ্যমে কাট অফ প্রাইস নির্ধারণের পর গত ৩০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত কমিশন সভায় বিনিয়োগকারীদের কাছে বসুন্ধরা পেপারের শেয়ার ইস্যুর অনুমোদন দেয় বিএসইসি। এদিকে বসুন্ধরা পেপার ২০১৭-২০১৮ অর্থবছরের তৃতীয় প্রান্তিক প্রকাশ করেছে। জানা যায়, জানুয়ারি ’১৮ থেকে মার্চ ’১৮ পর্যন্ত তিন মাসে কোম্পানিটির কর পরিশোধের পর প্রকৃত মুনাফা হয়েছে ১৪ কোটি ৫০ লাখ ৫০ হাজার টাকা। আইপিও শেয়ার হিসাব করে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ০.৮৩ টাকা। আইপিও শেয়ার হিসাব না করে ইপিএস হয়েছে ০.৯৮ টাকা। এদিকে জুলাই ’১৭ থেকে মার্চ ’১৮ পর্যন্ত নয় মাসে কোম্পানিটির কর পরিশোধের পর প্রকৃত মুনাফা হয়েছে ৩২ কোটি ১৭ লাখ ৬০ হাজার টাকা। আইপিও শেয়ার হিসাব করে কোম্পানিটির শেয়ার প্রতি আয় (ইপিএস) হয়েছে ১.৮৫ টাকা। আইপিও শেয়ার হিসাব না করে ইপিএস হয়েছে ২.১৮ টাকা। এছাড়া শেয়ার প্রতি প্রকৃত সম্পদ মূল্য (এনএভি) হয়েছে ৩৪.০৭ টাকা। লেনদেনের ওপর নতুন চার্জ নির্ধারণ করল সিএসই অর্থনৈতিক রিপোর্টার ॥ চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জ (সিএসই) লেনদেনের ওপর নতুন চার্জ নির্ধারণ করেছে। বুধবার প্রতিষ্ঠানটির পরিচালনা পর্ষদের সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সিএসইর তথ্য অনুযায়ী, সভায় ট্রেডিংয়ের ক্ষেত্রে কনট্রাক্ট চার্জ সম্পূর্ণ বাতিল করা সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। আগে যেখানে প্রতি ট্রেডিংয়ে ২ টাকা করে চার্জ নেয়া হতো। আগে ৩ স্তরে কমিশন চার্জ নির্ধারণ ছিল। যা বাতিল করে একটি কমিশন চার্জ নির্ধারণ করা হয়েছে। নতুন কমিশন চার্জ শুধু ০.০২৩ শতাংশ করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে সিএসই। নতুন সিদ্ধান্ত হলো : যে কোন ট্রেডিং-এর কনট্রাক্ট চার্জ সম্পূর্ণ বাতিল। এছাড়া যে কোন সাধারণ ট্রেডের কমিশন চার্জ ০.০২৩ শতাংশ একইসঙ্গে বাল্ক এবং ফরেন ট্রেডের কমিশন চার্জ ০.০০৪ শতাংশ (৫০ লাখের ওপরে যে কোন সিঙ্গেল কনট্রাক্টের জন্য। সিএসই বলছে এই নতুন চার্জ আগামী ১ জুলাই ২০১৮ থেকে প্রযোজ্য হবে।
monarchmart
monarchmart