মঙ্গলবার ৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৯, ১৭ মে ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা

এনএফটি একটি ধারণা

  • রেজা নওফল হায়দার

ডিজিটাল মার্কেট প্লেস ধারণাটি এখনও আমাদের সামনে খুব বেশি স্পষ্ট নয়। তবে পৃথিবীর বহু দেশে এই ধারণা নিয়ে কাজ হচ্ছে। আমরা যদি আলীবাবা ডটকমের কথা বলি তাহলে কিন্তু সেটা একটা মার্কেট প্লেস কিন্তু আলীবাবা ডটকম এজেন্টনির্ভর। আজ আমরা আলোচনা করব, এনএফটি বা ডিজিটাল টোকেন। এই শব্দটির সঙ্গে এরই মধ্যে আমরা পরিচিতি লাভ করতে শুরু করেছি। এনএফটি হলো, এক ধরনের ডিজিটাল সম্পত্তি যা একটি ব্লকচেনে জমা থাকে। নেওয়ার্কে যুক্ত একটি কম্পিউটারের মাধ্যমে ব্লক চেনের লেনদেন ও জমা খরচের হিসাব রাখে। ব্লক চেনটি এনএফটির বিষয়ে কোন তথ্যের সত্যতা এবং এর মালিকের পরিচয় নিশ্চিত করে। বেশিরভাগ ডিজিটাল আইটেমগুলো যেখানে অসংখ্যবার পুনরুৎপাদন করা যায়, এনএফটির ক্ষেত্রে বিষয়টি তার উল্টো। প্রতিটা এনএফটির একটি করে ইউনিক ডিজিটাল স্মারক রয়েছে। সব ধরনের ডিজিটাল আইটেম। যেমন ছবি, ভিডিও, সঙ্গীত, টেক্সট এমন কি টুইট পর্যন্ত এনএফটি হিসেবে বেচাকেনা করা যেতে পারে।

এই মার্কেট প্লেসটি ডিজিটাল এবং এটাতে বিশেষ বিষয়ের ওপর ক্রয় করা যাবে ছবি। এর একপাশে থাকেন ওই বিষয়ে পারদর্শী বিক্রেতা আর আপর পাশে থাকে ক্রেতা। আরও বিষয়দভাবে বলি তাহলে বিষয়টা দাঁড়ায় এই যে, সম্প্রতি বিশ্বের নামকরা সংবাদ সনস্থা এপি (এ্যাসোসিয়েট প্রেস) এবার ফটো সাংবাদিকদের জন্য একটা এনএফটি চালু করেছে। সেখানে বিশ্বের নামকরা ফটো সাংবাদিকরা বিষয়ভিত্তিক ছবি পোষ্ট করবেন। উল্লেখ থাকবে বর্ণনা। তাদের এনএফটি কিনতে হলে ‘ভার্চুয়াল লাইনে’ অপেক্ষা করতে হবে আগ্রহীদের। আর পুলিৎজার জয়ী ছবির চাহিদা ধরে রাখতে ওই ছবিগুলোর এনএফটি উন্মুক্ত করা হবে দুই সপ্তাহ পর পর। ক্রেতা এপির নিজস্ব প্লাটফর্মেই আবার ওই এনএফটিগুলো বিক্রির সুযোগও পাবেন।

এনএফটি সাধারণত ক্রিপ্টোকারেন্সি বা ডলারে কেনা হয় এবং ব্লক চেন লেনদেনের রেকর্ড রাখে। যে কেউ এনএফটি দেখতে পারলেও শুধু ক্রেতাই এর অফিসিয়াল মালিক। এক ধরনের ডিজিটাল মর্যাদার বিষয়। একটি ছবি বা ভিডিওর এনএফটি কেনার অর্থ এই নয় যে ক্রেতা ওই আইটেমটির মূল বস্তুর কপিরাইট পায়। এনএফটির ব্যাপক ব্যবহার দেখে অনেকে বিভ্রান্তও হতে পারেন। ভাবতে পারেন, শুধু ডিজিটাল ফর্মেটে অস্তিত্ব রয়েছে এরকম একটি জিনিসের জন্য কেন এত অর্থ ব্যয় করা হচ্ছে। যেটি যে কেউ বিনামূল্যেও দেখতে পারেন। তবে, এর সমর্থকরা একে শিল্প সংগ্রহণের পরবর্তী ধাপ হিসেবে দেখছেন।

এনএফটি বেচে সংগৃহীত তহবিল সংবাদ সংগ্রহের কাজেই খরচ করা হবে বলে জানিয়েছে এপি। নিজস্ব প্ল্যাটফর্মে এনএফটি’র পুনবিক্রয় থেকেও আয় হবে সংবাদসংস্থাটির। এনএফটি মার্কেটপ্লেইস নির্মাণের জন্য ‘জোয়া (Xooa)’ নামের একটি প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে জোট বেঁধেছে এপি। ব্লকচেইনভিত্তিক মার্কেটপ্লেইস এবং অ্যাপ নির্মাণ করে প্রতিষ্ঠানটি।

এনএফটির পুনবিক্রয় থেকে পাওয়া আয় দুই প্রতিষ্ঠান ভাগাভাগি করে নেবে বলে ভার্জকে এক ইমেইলে জানিয়েছেন ‘জোয়া’র মুখপাত্র লরেন ইস্টন।

শীর্ষ সংবাদ:
হালদায় আবারও ডিম ছেড়েছে মা মাছ         তামিমের সেঞ্চুরিতে ভালো অবস্থানে বাংলাদেশ         এবারও ম্যাঙ্গো স্পেশাল ট্রেন চালু হচ্ছে ২২ মে         ওপেনিং জুটিতে ১৫০ পার টাইগারদের         পি কে কোন কোন দেশে টাকা রেখেছেন, জানতে চান হাইকোর্ট         আশুলিয়ায় গণপিটুনিতে ছিনতাইকারী নিহত         পি কে হালদারকে কোর্টে হাজির করা হবে আজ         তামিমের হাফসেঞ্চুরিতে এগোচ্ছে বাংলাদেশ         অব্যাহত থাকবে ভ্যাপসা গরম         ডলার বাজার অস্থির ॥ আমদানি ব্যয় পরিশোধের চাপ         শেখ হাসিনার স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস আজ         চট্টগ্রাম আওয়ামী লীগে হাইব্রিডদের দাপট স্বেচ্ছাচারিতা         উপবৃত্তির ভুয়া এসএমএস, কৌশলে হাতিয়ে নেয়া হচ্ছে অর্থ         আইসিসিতে বাংলাদেশী বিচারক