বৃহস্পতিবার ১৪ মাঘ ১৪২৮, ২৭ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

রায় কার্যকর হলে আরও খুশি হব ॥ আবরারের বাবা

রায় কার্যকর হলে আরও খুশি হব ॥ আবরারের বাবা

অনলাইন ডেস্ক ॥ ছেলের হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় করা মামলায় ট্রাইব্যুনালের ঘোষিত রায়ের প্রতিক্রিয়ায় আবরারের বাবা বলেন, আমি আপাতত সন্তুষ্ট। তবে রায়টি যদি উচ্চ আদালতে বহাল থাকে এবং রায়টি কার্যকর হলে আমি আরও সন্তুষ্ট হবো। এছাড়াও পলাতক বাকি তিনজন আসামিকে অতিদ্রুত আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবি জানাই।

আজ বুধবার (৮ ডিসেম্বর) দুপুরে ২০ আসামির ফাঁসি ও ৫ জনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দিয়ে দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১-এর বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামানের আদালত রায় ঘোষণার পর তাৎক্ষণিক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এমন প্রতিক্রিয়া দেন।

এদিকে রায়ের পর্যবেক্ষণে ট্রাইব্যুনাল বলেন, শিবির সন্দেহে মিথ্যা, বানোয়াট, ভিত্তিহীন অভিযোগ এনে আবরারকে হত্যা করা হয়। এ ঘটনা বাংলাদেশের সকল মানুষকে ব্যথিত করেছে। বুয়েটের মেধাবী ছাত্র আবরার ফাহাদকে নৃশংস হত্যাকাণ্ডের মতো ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে আর কখনো না ঘটে, তা রোধকল্পে আসামিদের শাস্তি প্রদানের সিদ্ধান্ত গৃহীত হলো।

আলোচিত এ মামলার রায় ঘোষণায় মধ্য দিয়ে দেশ কলঙ্কমুক্ত হয়েছে বলে তাৎক্ষণিক প্রতিক্রিয়ায় জানিয়েছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী মোশারফ হোসেন কাজল।

অপরদিকে রায়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে আসামিপক্ষের আইনজীবী ফারুক আহাম্মেদ উপস্থিত সাংবাদিকদের বলেছেন, এ রায়ে আসামিপক্ষ সন্তুষ্ট না। এ মামলায় যারা মাস্টারমাইন্ড ছিল তাদের সামনে আনা হয়নি। অনেক সাক্ষীর বক্তব্য সেভাবে শোনা হয়নি। আমরা এ বিষয়ে উচ্চ আদালতে আপিল করবো।

ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের বিভিন্ন চুক্তির সমালোচনা করে ফেসবুকে স্ট্যাটাস দেওয়ার জেরে আবরার ফাহাদকে ২০১৯ সালের ৬ অক্টোবর রাতে ডেকে নেন বুয়েট শাখা ছাত্রলীগের কয়েকজন নেতাকর্মী। ওই দিনগত রাত ৩টার দিকে শেরেবাংলা হলের দোতলার সিঁড়ির করিডোর থেকে তার মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

ওই ঘটনায় আবরারের বাবা বরকত উল্লাহ বাদী হয়ে চকবাজার থানায় ১৯ জনের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন। ২০১৯ সালের ১৩ নবেম্বর ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে ২৫ জনকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট দেন মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ডিবি পুলিশের পরিদর্শক ওয়াহিদুজ্জামান।

২০২০ সালের ১৫ সেপ্টেম্বর ঢাকার দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনাল-১-এর বিচারক আবু জাফর মো. কামরুজ্জামান আসামিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন।

অভিযুক্ত ২৫ জনের মধ্যে এজাহারভুক্ত ১৯ জন ও তদন্তে প্রাপ্ত আরও ছয়জন। এজাহারভুক্ত ১৯ জনের মধ্যে ১৭ জন ও এজাহার-বহির্ভূত ছয়জনের মধ্যে পাঁচজনকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতারদের মধ্যে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন আটজন। মামলায় মোট ৬০ জন সাক্ষীর মধ্যে ৪৬ জনের সাক্ষ্যগ্রহণ করেন আদালত।

শীর্ষ সংবাদ:
সমালোচনা বন্ধ করতে হলে মার্শাল ল দিতে হবে ॥ সিইসি         সার্চ কমিটিতে থাকবেন নারী         ৫ বছরে ২২৮ এনজিওর নিবন্ধন বাতিল         রাজশাহীতে করোনায় নারীর মৃত্যু ॥ শনাক্তের হার ৬০.৩৯ ভাগ         এক রেখায় দৃশ্যমান হলো স্বপ্নের মেট্রোরেল         ইসি গঠন আইন পাস         দক্ষ জনবলের অভাবে এনআইডিতে ভুল-ভ্রান্তি ॥ আইনমন্ত্রী         ইউক্রেনে সেনা সদস্যের গুলিতে পাঁচজন নিহত         অসংখ্য স্প্লিন্টার দেহে নিয়ে বেঁচে আছেন আব্দুল্লাহ সরদার         হবিগঞ্জে বৈদ্যের বাজার ট্র্যাজেডির ১৭ বছর         ‘সংস্কৃতি চর্চার মাধ্যমে মানুষের হৃদয়ে পৌঁছানো যায়’         ‘বাংলাদেশের চলমান ঘটনা গভীরভাবে পর্যবেক্ষণ করছে ইইউ’         আফ্রিকান নেশন্স কাপে মিসর কোয়ার্টার ফাইনালে         অনৈতিক কার্যকলাপ ॥ হাইকমিশনের প্রথম সচিব ঢাকায় ফেরত         গত ২৪ ঘন্টায় মমেক হাসপাতালে করোনায় ৪ জনের মৃত্যু         ইসি গঠন আইন পাসের কার্যক্রম শুরু         গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় মারা গেছেন ১০ হাজার ২২১ জন         সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী সস্ত্রীক করোনায় আক্রান্ত         অবশেষে অনশন ভঙ্গ ॥ শাহজালালের ঘটনায় কিছুটা স্বস্তি         শিক্ষার্থীদের সব দাবি বাস্তবায়নের আশ্বাস শিক্ষামন্ত্রীর