মঙ্গলবার ১১ কার্তিক ১৪২৮, ২৬ অক্টোবর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ই-অরেঞ্জের সোহেল রানাকে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা

  • দিল্লীর সাড়া নেই

শংকর কুমার দে ॥ প্রতারণার ফাঁদ পরিচিত ই-অরেঞ্জ নামক প্রতিষ্ঠানের কথিত পৃষ্ঠপোষক, ভারতে আটক বনানী থানার পরিদর্শক (বরখাস্ত) সোহেল রানাকে দেশে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা করছে সরকার। শীঘ্রই সোহেল রানাকে ফিরিয়ে আনার বিষয়টি অনেকটাই অনিশ্চিত। তাকে ফিরিয়ে আনার বিষয়ে পুলিশের মধ্যেই সৃষ্টি হয়েছে হতাশা। কারণ, ঢাকার পুলিশ তিন দফায় চিঠি দিয়েছে দিল্লীর পুলিশকে। কিন্তু দিল্লীর পুলিশের পক্ষ থেকে কোন জবাব পাওয়া যাচ্ছে না, সাড়া নেই। শেষ পর্যন্ত কূটনৈতিক চ্যানেলে তাকে ফিরিয়ে আনার বিষয়ে চেষ্টা করবে ঢাকা, এমনটাই পুলিশ সদর দফতরের দাবি।

পুলিশ সদর দফতর সূত্রে জানা গেছে, দিল্লীর ন্যাশনাল সেন্ট্রাল ব্যুরোকে (এনসিবি) চিঠি দিয়েছে বাংলাদেশ পুলিশের ন্যাশনাল সেন্ট্রাল ব্যুরো (এনসিবি)। দিল্লী পুলিশের কাছে তিন দফা চিঠি দিয়ে সোহেল রানাকে ফিরিয়ে দেয়ার জন্য অনুরোধ জানিয়েছে ঢাকার পুলিশ। কিন্তু চিঠির কোন জবাব পাওয়া যায়নি। এ কারণে আইনী প্রক্রিয়া শুরু করেছে সরকার। তবে আইনী প্রক্রিয়ায় কোন জটিলতা দেখা দিলে কূটনৈতিক প্রক্রিয়ায় গুরুত্ব দেয়া হবে। ক‚টনৈতিক প্রক্রিয়ায় হলেও সোহেল রানাকে ফিরিয়ে আনার বিষয়ে চেষ্টা করছে সরকার। সোহেল রানাকে ফিরিয়ে এনে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করানোর বিষয়ে সরকার খুবই আন্তরিক বলে জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের শীর্ষ কর্মকর্তারা। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে এ খবর জানা গেছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্রে জানা গেছে, ই-অরেঞ্জ কাণ্ডে বিতর্কিত বনানী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) শেখ সোহেল রানাকে দেশে ফিরিয়ে আনতে ভারতের কাছে দ্বিতীয় দফা চিঠি পাঠিয়েছে বাংলাদেশ পুলিশের ন্যাশনাল সেন্ট্রাল ব্যুরো (এনসিবি)। গত ৫ সেপ্টেম্বর সোহেল রানার বিষয়ে নয়াদিল্লীর এনসিবিকে চিঠি দেয়া হয়েছিল। ঢাকার চিঠির জবাব দেয়নি দিল্লীর পুলিশ। সম্ভবত দিল্লীর পুলিশ ই-অরেঞ্জ কাণ্ডসহ সোহেল রানার বিষয়ে আরও তথ্য সংগ্রহ করছে। রিমাইন্ডার হিসেবে দ্বিতীয় চিঠি দেয়া হয়েছে গত ৭ সেপ্টেম্বর। এরপর গত ১৮ সেপ্টেম্বর সর্বশেষ দিল্লী পুলিশের কাছে চিঠি ঢাকার পুলিশ। চিঠিতে সোহেল রানার মামলা সম্পর্কে বিস্তারিত জানানোর কথা বলা হয়েছে, পাশাপাশি তাকে ফিরিয়ে আনতে প্রয়োজনীয় দিক নির্দেশনা ও সহযোগিতা চাওয়া হয়েছে চিঠিতে। কিন্তু দিল্লীর পুলিশের পক্ষ থেকে কোন সাড়া পাওয়া যাচ্ছে না।

পুলিশ সদর দফতরের এআইজি মহিউল ইসলাম বলেছেন, আমরা ইন্টারপোল ডিপার্টমেন্ট মূলত বিভিন্ন দেশে নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ রেখে ওয়ান্টেড আসামিদের নামে রেড এ্যালার্ট জারি করি। আমাদের মাধ্যমে আসামি ফিরিয়ে আনা খুবই জটিল প্রক্রিয়া। ভারতের সাথে যেহেতু বাংলাদেশের বন্দী বিনিময় চুক্তি আছে, তাই পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এটা খুব সহজেই করতে পারবে। বলা যায়, আমরা প্রক্রিয়া শুরু করেছি। এটা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে জানাব। বাকিটা মন্ত্রণালয় দেখবে। আমরা ভারত থেকে মামলার বিস্তারিত ও দিকনির্দেশনা পেলে তা মন্ত্রণালয়কে জানিয়ে দেব। সোহেল রানার বিরুদ্ধে রেড এ্যালার্ট জারি করা হবে কিনা, এমন প্রশ্নের জবাবে মহিউল বলেন, এটা ভারতের এনসিবি আমাদের জানাবে। সোহেলকে ফিরিয়ে দিতে তাদের যদি রেড এ্যালার্ট প্রয়োজন পড়ে, তাহলে আমরা তা জারি করব। তবে বন্দী বিনিময় চুক্তির কারণে সম্ভবত রেড এ্যালার্ট জারির প্রয়োজন পড়বে না।

শীর্ষ সংবাদ:
রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহ হত্যা ॥ তিন আসামি ২ দিনের রিমান্ডে         ঢাবি থেকে নবজাতকের মরদেহ উদ্ধার         অপপ্রচার করাই বিএনপির শেষ আশ্রয়স্থল ॥ কাদের         দেশের সম্প্রীতি বিনষ্টে পরিকল্পনা হয়েছে লন্ডনে বসে ॥ তথ্যমন্ত্রী         মতিঝিলে বিআইসিসি ভবনের আগুন নিয়ন্ত্রণে         ‘শিগগিরই পূজামণ্ডপে সহিংসতায় ইন্ধনদাতাদের নাম প্রকাশ’         মৃত্যুশূন্যের একদিন পর রামেকে আরও চারজনের মৃত্যু         রফতানি পণ্যের উৎপাদন বাড়ানোর উপর গুরুত্বারোপ প্রধানমন্ত্রীর         স্বনামে চাল বিপণনের উদ্যোগ নিয়েছে নীলফামারীর মিলাররা         খালেদা জিয়াকে কেবিনে স্থানান্তর         নতুন রাজনৈতিক দল ঘোষণা করলেন নুর         সাকিব ছাড়াও টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আসর মাতাবেন যেসব ক্রিকেটার         নাইজেরিয়ায় মসজিদে বন্দুকধারীদের হামলায় নিহত ১৮         মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে ইসমাইল হোসেনের নাম অন্তর্ভুক্তির দাবি         চীন থেকে আরও দেড় লাখ টিকা আসছে বিকেলে         মাদক মামলায় পরীমনির জামিন মঞ্জুর         পুলিশের লাঠিচার্জ ॥ বিএনপির সম্প্রীতি মিছিল পণ্ড         খুলনায় স্বামী, স্ত্রী ও মেয়েকে হত্যা করে লাশ পুকুরে ফেলে দিয়েছে দুর্বৃত্তরা         ঝিনাইদহের হরিণাকুন্ডুতে সড়ক দুর্ঘটনায় নসিমন চালক নিহত         চিকিৎসা শেষে দেশে ফিরলেন রাষ্ট্রপতি