বৃহস্পতিবার ৮ আশ্বিন ১৪২৮, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা

সেনাকলোনি ত্যাগের নির্দেশ তালেবানের, হাজারো মানুষের বিক্ষোভ

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ তালেবানের বিরুদ্ধে দক্ষিণাঞ্চলীয় কান্দাহার শহরে হাজারও আফগান বিক্ষোভ করেছেন। সাবেক সরকারী কর্মকর্তারা বলেছেন, তালেবান সদস্যরা মঙ্গলবার একটি আবাসিক সেনা কলোনি খালি করার নির্দেশ দেয়ার পর ওই বিক্ষোভ করেন সেখানকার বাসিন্দারা। খবর রয়টার্সের।

প্রত্যক্ষদর্শী সাবেক সরকারী কর্মকর্তাদের মতে, প্রায় তিন হাজার পরিবারকে কলোনি খালি করতে বলার পর বিক্ষোভকারীরা কান্দাহারে গবর্নরের বাড়ির সামনে জড়ো হন। স্থানীয় গণমাধ্যমের ভিডিও ফুটেজে দেখা যায়, কান্দাহার শহরের একটি রাস্তা বন্ধ করে দিয়েছেন বিক্ষোভকারীরা। তালেবান সদস্যরা যে এলাকাটি খালি করতে বলেছেন, সেটি মূলত অবসরে যাওয়া আর্মি জেনারেল ও আফগান নিরাপত্তা বাহিনীর অন্য সদস্যদের বসবাসের এলাকা। এখানে কেউ কেউ ৩০ বছরের বেশি সময় ধরে বসবাস করে আসছেন। তাদের বাড়ি খালি করার জন্য তিন দিনের সময় বেঁধে দেয়া হয়।

মার্কিন কংগ্রেসে শুনানি, ব্লিনকেনের পদত্যাগ দাবি ॥ আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা প্রত্যাহার নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের কংগ্রেসে উত্তপ্ত শুনানি চলাকালে সমালোচনার জবাব দিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ্যান্টনি ব্লিনকেন। স্থানীয় সময় সোমবার এ শুনানির সময় কংগ্রেসের অন্তত দুইজন রিপাবলিকান সদস্য ব্লিনকেনের পদত্যাগের দাবি তোলেন। পাঁচ ঘণ্টার এ শুনানিতে ব্লিনকেন আফগানিস্তান থেকে মার্কিন সেনা সরানো নিয়ে প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনের সিদ্ধান্তের পক্ষে যুক্তি দেখান। খবর সিএনএন ও আল-জাজিরার।

তালেবানের সঙ্গে আলোচনা ছাড়া উপায় নেই-ইইউ ॥ আফগানিস্তানের নতুন তালেবান শাসকদের সঙ্গে আলোচনা করা ছাড়া ইউরোপীয় ইউনিয়নের (ইইউ) হাতে আর কোন উপায় নেই।

কাবুলে কূটনৈতিক উপস্থিতির ব্যাপারে দেশটির নতুন সরকারের সদস্যদের সঙ্গে সমন্বিতভাবে আলোচনার চেষ্টা করবে ব্রাসেলস। মঙ্গলবার এমন মন্তব্য করেছেন ইউরোপীয় ইউনিয়নের শীর্ষ কূটনীতিক।

চুক্তি ছাড়া কাবুল বিমানবন্দরের দায়িত্ব নেবে না কাতার ॥ চুক্তি ছাড়া আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের হামিদ কারজাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের দায়িত্ব নেবে না বলে সতর্কবার্তা উচ্চারণ করেছে কাতার।

দোহার পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, বিমানবন্দরের কার্যক্রম পরিচালনা নিয়ে তালেবানসহ জড়িত সব পক্ষের অংশগ্রহণে ‘স্পষ্ট’ একটি চুক্তি চায় তারা। কাতারের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শেখ মোহাম্মদ বিন আব্দুল রহমান আল-থানি এক প্রেস ব্রিফিংয়ে বলেছেন, ‘আমাদের নিশ্চিত করতে হবে যে সবকিছুই স্পষ্টভাবে বিবেচনায় নেয়া হয়েছে।

শীর্ষ সংবাদ: