শনিবার ৯ মাঘ ১৪২৮, ২২ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

এবার চরমোনাই পীরের হুঙ্কার ॥ ওলামাদের পাল্টাপাল্টি সংবাদ সম্মেলন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ জাতির জনকের ভাস্কর্য ভাঙ্গার ঘটনায় রাষ্ট্রদ্রোহী মামলা দায়েরের পর এবার সেই মামলা প্রত্যাহারের দাবি তুলেছে চরমোনাই পীরের ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ। মামলা তুলে তাদের বিরুদ্ধে চলা কর্মকাণ্ড বন্ধ করা না হলে প্রতিরোধ গড়ে তোলারও হুমকি দিয়েছেন দলটির আমির সৈয়দ মোহাম্মাদ রেজাউল করিম। ভাস্কর্য ইস্যুতে সাম্প্রদায়িক উগ্রবাদী গোষ্ঠীর বিরুদ্ধে সোচ্চার সংগঠনকেই ‘উগ্রবাদী শক্তি’ অভিহিত করেন রেজাউল করিম। এদিকে জামায়াত-বিএনপি ইন্ধন দিয়ে হুজুরদের রাস্তায় নামিয়েছে বলে অভিযোগ তুলেছে আরেকটি ইসলামী দল ইউনাইটেড ইসলামী পাটি। পার্টির চেয়ারম্যান মাওলানা মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেন বলেছেন, বিএনপি-জামায়াতই হেফাজত, চরমোনাই পীরকে উস্কানি দিয়ে দেশে অশান্তি সৃষ্টির পাঁয়তারা করছে।

জাতির জনকের ভাস্কর্য ভাঙ্গা ও উস্কানিমূলক বক্তব্যের ঘটনায় হেফাজত ও চরমোনাই পীরের সংগঠনের তিন উগ্রবাদী নেতার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলার প্রেক্ষাপটে মঙ্গলবার রাজধানীতে পৃথক পৃথক সংবাদ সম্মেলনে এসব দাবি করেছেন ইসলামী দলের নেতারা। দলীয় কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে দেশের শান্তি ও স্থিতিশীলতা বজায় রাখার স্বার্থে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ সীমাহীন ধৈর্যের পরিচয় দিয়েছে বলে দাবি করেছেন দলটির নেতারা।

আলেমদের বিরুদ্ধে মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়ে তারা বলছেন, আমরা বিষয়টিকে রাজনৈতিক ইস্যু মনে করিনি, যে কারণে ধৈর্যের সঙ্গে পরিস্থিতি পর্যাবেক্ষণ করেছি মাত্র। কিন্তু উগ্রবাদী শক্তি ও তাদের উচ্ছৃঙ্খল সহযোগীরা এ নীরবতাকে দুর্বলতা ভেবেছে। তারা দেশের ঐক্য বিনষ্ট করতে উস্কানি দিয়ে যাচ্ছে। সরকার যদি তাদের কর্মকাণ্ড বন্ধ করতে ব্যর্থ হয় তবে মানুষ প্রতিরোধ গড়ে তুলতে বাধ্য হবে।

এদিকে জামায়াত-বিএনপিই হেফাজত, চরমোনাই পীরকে উস্কানি দিয়ে দেশে অশান্তি সৃষ্টির পাঁয়তারা করছে বলে অভিযোগ এনেছেন বাংলাদেশ ইউনাইটেড ইসলামী পার্টির চেয়ারম্যান মাওলানা মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেন। জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। মাওলানা মোহাম্মদ ইসমাইল হোসেন বলেন, ভাস্কর্য নির্মাণের বিষয়টি ইস্যু করে সরকারের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে জামায়াত-বিএনপি। তারা ঘোলা পানিতে মাছ শিকার করবে। এমনটা তাদের করতে দেয়া যাবে না। হুঙ্কার দিয়ে ইসলাম প্রচার হয়না, সমাজ প্রতিষ্ঠা করা যায় না।

তিনি বলেন, চরমোনাইয়ের পীর সাহেব আওয়ামী লীগ সরকারের অধীনে জাতীয় নির্বাচন করেছেন। আপনি প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে বসে মাধুর্য ভাষায় কথাগুলো বলতে পারতেন। ভাস্কর্য যদি খারাপ হয়ে থাকে, তাহলে চরমোনাইয়ের পীর সাহেব হুঙ্কার দিচ্ছে কেন? হুঙ্কার দিয়ে তো ইসলাম প্রচার হয় না। আলোচনা করে সমাধান করতে হবে।

তিনি বলেন, ভাস্কর্য ইস্যুতে আমরা চাই সন্ধি। আলোচনার মাধ্যমে সমাধান চাই। দেশে কোন বিশৃঙ্খলা হোক এটা আমরা চাই না। বাংলাদেশ একটা গণতান্ত্রিক দেশ। সংবিধান অনুযায়ী দেশ চলে। যারা আলেম অবশ্যই তাদের দেশ ও দেশের মানুষের কল্যাণের কথা ভাবতে হবে। কোন দুষ্কৃতিকারী মহলকে সুযোগ দেয়া যাবে না। বেশ কিছুদিন ধরেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমকে ব্যবহার করে দেশে ভাস্কর্য বিষয়ে এক প্রকার উত্তেজনার সৃষ্টি হয়েছে। বাংলাদেশে ভাস্কর্য নির্মাণ করা কোন নতুন বিষয়ও নয়। প্রাচীনকালে ঈশা খাঁর আমল থেকেই দেশের সোনারগাঁয়ে ভাস্কর্য স্থাপন করা রয়েছে। সারাদেশে মুক্তিযুদ্ধের বিভিন্ন ভাস্কর্য রয়েছে। জিয়াউর রহমান, মওলানা আব্দুল হামিদ খান ভাসানীর ভাস্কর্য আছে। পৃথিবীর ইতিহাসে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, ওমান, কাতার, মিসর, পাকিস্তান ও তুরস্কে ভাস্কর্য রয়েছে। এসব ইতিহাসকে সংরক্ষণের জন্য নির্মাণ করা হয়েছে।

‘ভাস্কর্য ভাংচুর দুঃখজনক‘ মামুনুল হক ॥ হেফাজতের যুগ্ম মহাসচিব ও বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মামুনুল হক বলেছেন, কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাংচুরের ঘটনা দুঃখজনক। সোমবার রাতে নিজের ফেসবুক পেজে ‘ভাস্কর্য নিয়ে বিরোধ, রাষ্ট্রদ্রোহ মামলাসহ উদ্ভূত সার্বিক পরিস্থিতি’ নিয়ে ফেসবুকে দেয়া বক্তব্যে তিনি এ মন্তব্য করেন।

মামুনুল হক বলেছেন, কুষ্টিয়ায় বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙ্গার ঘটনা অনাকাক্সিক্ষত, দুঃখজনক ও নিন্দনীয়। ভাস্কর্য ভাঙ্গার সঙ্গে কেউ কেউ আমার নাম জড়ানোর চেষ্টা করছেন। কিন্তু অত্যন্ত দ্ব্যর্থহীন ভাষায় বলছি, আমার কোন বক্তব্যের মাধ্যমে অথবা আমার কোন কথায় এভাবে আইন হাতে তুলে নেয়ার কোন কথা আমি বলিনি। ‘ইসলামী দৃষ্টিকোণ থেকে ভাস্কর্য রাখা নাজায়েজ ও হারাম- সেটা যথাযথ কর্তৃপক্ষকে আমি জানিয়ে দিয়েছি এবং আমরা আমাদের বক্তব্যে এ কথা স্পষ্ট করে দিয়েছি। যদি আল্লাহ কখনও আমাদের রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে সক্ষমতা দান করেন তাহলে শরিয়াহর আলোকে সব কার্যক্রম ঢেলে সাজাব ইনশাআল্লাহ।’

শীর্ষ সংবাদ:
সাকিবের হাসিতে শুরু বিপিএল         ফের বন্ধ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ॥ করোনার লাগাম টানতে পাঁচ জরুরী নির্দেশনা         বাবার সম্পত্তিতে পূর্ণ অধিকার পাবেন হিন্দু নারীরা ॥ ভারতীয় সুপ্রীমকোর্ট         উচ্চারণ বিভ্রাটে...         বাণিজ্যমেলার ভাগ্য নির্ধারণে জরুরী সিদ্ধান্ত কাল         আলোচনায় এলেও আন্দোলনে অনড় শিক্ষার্থীরা         ‘আমার প্রিয় বিশ্ববিদ্যালয়টি ভালো নেই’         করোনা ভাইরাসে আরও ১২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১১৪৩৪         ‘১৫ ফেব্রুয়ারি বইমেলা শুরু’         ঢাবির হল খোলা, ক্লাস চলবে অনলাইনে         করোনারোধে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের ৫ জরুরি নির্দেশনা         আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত বন্ধ স্কুল-কলেজ         ভরা মৌসুমে চড়া দামে বিক্রি হচ্ছে সব ধরনের সবজি         মাদারীপুরে সেতুর পিলারে মোটরসাইকেলের ধাক্কা, ২ শিক্ষার্থী নিহত         বিপিএম-পিপিএম পাচ্ছেন পুলিশের ২৩০ সদস্য         অভিনেত্রী শিমু হত্যা : ফরহাদ আসার পরেই খুন করা হয়         দিনাজপুরে মাদক মামলায় নবনির্বাচিত ইউপি সদস্য গ্রেফতার         শাবিপ্রবিতে গভীর রাতে শিক্ষার্থীদের মশাল মিছিল         ঘানায় ভয়াবহ বিস্ফোরণে ৫শ’ ভবন ধস, নিহত ১৭         করোনায় রেকর্ড সাড়ে ৩৫ লাখ শনাক্ত, মৃত্যু ৯ হাজার