ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩, ২৩ মাঘ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

যশোরে শিকল ভাঙল দলিত নারীরা

প্রকাশিত: ২১:২৪, ২৩ অক্টোবর ২০২০

যশোরে শিকল ভাঙল দলিত নারীরা

স্টাফ রিপোর্টার, যশোর অফিস ॥ সদর উপজেলার আরবপুর ইউনিয়নের সুজলপুর গ্রামে যশোরের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো নারীদের নেতৃত্বে দুর্গাপূজার আয়োজন করা হয়েছে। শাশ্বাসী দলিত নারী ও শিশু উন্নয়ন সংস্থার সদস্যদের নেতৃত্বে এই পূজা আয়োজিত হচ্ছে। যশোরের পূজার ইতিহাসে এটি নারীদের নেতৃত্বে প্রথম পূজা এটি। একইসঙ্গে পুরোহিতসহ সংশ্লিষ্ট সকলেই দলিত যেটি সনাতন সমাজের প্রথা ভেঙ্গে নতুনের দিকে যাত্রা। নমঃশুদ্র, পৌন্ড্র ক্ষত্রিয়, ঋষি, জেলে, ডোম, হেলা, পাটনী কায়পুত্র, বাগদী, খাসি, বুনো, সরদার, কর্মকার, নানা সম্প্রদায়ের পিছিয়ে পড়া মানুষদের হিন্দু সম্প্রদায়ের প্রভাবশালীরা তাদের যেমন কোথাও স্থান দেয় না, একইসঙ্গে সম্মানও দেয় না, আবার দলিত নারীদেরও তাদের সম্প্রদায়ের পুরুষেরা ঘরের বাইরে বের হতে দেয় না। ফলে তারা নিম্ন জাতের ও নিম্ন শ্রেণীতে অবস্থান করে। সেজন্য শাশ্বাসী দলিত নারী ও শিশু উন্নয়ন সংস্থার নারীদের উদ্যোগে নারীদের নেতৃত্বে পূজা করে এই ইতিহাস তৈরির আয়োজন বলে জানালেন পূজা কমিটিতে থাকা দলিত নারীরা। পূজা উদযাপনের জন্যে গঠিন ১০ সদস্যের ১০ জনই নারী, যেটি যশোরের পূজা উদযাপনের ইতিহাসে কখনো হয়নি। শাশ^াসী দলিত নারী ও শিশু উন্নয়ন সংস্থার শারদীয় দুর্গোৎসবের সভাপতি জয়ন্তী রানী দাস ও সাধারণ সম্পাদক আয়নামতি বিশ্বাস। কোষাধক্ষ্যের দায়িত্বে আছেন আরতি দাস। পূজা কমিটির সভাপতি জয়ন্তী রানী দাস বলেন, আমাদের শাশ^াসী দলিত নারী ও শিশু উন্নয়ন সংস্থার মিটিংয়ে আলোচনায় উঠে আসে দলিত নারীরা ঘর থেকে পুরুষতান্ত্রিকতার চাপে বের হতে পারেন না। একে আমরা পিছিয়ে পড়া জাতি, আমাদের পুরুষদেরও শিক্ষা নেই, অর্থনৈতিক সক্ষমতা নেই। সেজন্য আমরা নারীরাও যেন আমাদের পরিবারের ও সন্তানের ভবিষ্যত তৈরি করতে পারি, তারা যেন আমাদের মতো অবহেলিত জীবন যাপন না করে, সেজন্য আমরা নারীদের নেতৃত্ব প্রতিষ্ঠা ও ঘর থেকে বের করে কাজে আনার জন্য নারীদের নেতৃত্বে এই পূজা আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেই।
monarchmart
monarchmart