রবিবার ১৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ২৯ নভেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

মোবাইল ব্যাংকিংয়ের ক্যাশ আউট চার্জ কমানোর পরামর্শ

মোবাইল ব্যাংকিংয়ের ক্যাশ আউট চার্জ কমানোর পরামর্শ

অনলাইন রিপোর্টার ॥ ক্যাশ আউট খরচ কমিয়ে এক অংকে নামিয়ে আনতে মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস প্রদানকারীদের পরামর্শ দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা। লেনদেনের উচ্চ চার্জ গ্রামাঞ্চলের মানুষের পাশাপাশি ক্ষুদ্র এবং ছোট উদ্যোক্তাদের সেবা থেকে অনেক দূরে রেখেছে।

তারা সরকারের চলমান ডিজিটাল বাংলাদেশের প্রচারণা বাস্তবায়নের জন্য মোবাইল ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিস চার্জের একটি সীমা নির্ধারণ করে দেওয়ার জন্য নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গবর্নর খোন্দকার ইব্রাহিম খালেদ বলেন, মোবাইল ব্যাংকিং সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠানগুলো স্বেচ্ছায় ক্যাশ আউট চার্জ কমাবে না। ক্যাশ আউট চার্জ কমানোর জন্য বাংলাদেশ ব্যাংকের হস্তক্ষেপের বিকল্প নাই।

তিনি আরও বলেন, মোবাইল ব্যাংকিং সেবাদানকারীরা নিজেদের ইচ্ছেমত ব্যবসা করছেন। বাংলাদেশ ব্যাংক এখনো কোনো বিধি-নিষেধ আরোপ করেনি।

অপরদিকে, ই-কর্মাস অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের (ইক্যাব) পরিচালক আশীষ চক্রবর্তী বলেন, বিশ্বের অন্যান্য দেশের মোবাইল ব্যাংকিং সার্ভিস প্রদানকারী দেশগুলোর সঙ্গে তুলনা করলে দেখা যাবে বাংলাদেশে ক্যাশ আউট চার্জ অনেক বেশি। দেশের আর্থিক অর্ন্তভূক্তি ও ডিজিটাইলেশন প্রক্রিয়া ছড়িয়ে দিতে ক্যাশ আউট চার্জ এক অংকে নামিয়ে আনতে হবে।

বর্তমানে প্রতি এক হাজার টাকার ক্যাশ আউট চার্জ ১৮ দশমিক ৫০ টাকা। যদিও এজেন্টরা গ্রাহকের কাছ থেকে চার্জ হিসেবে ২০ টাকা নেন।

অন্য একটি মোবাইল ব্যাংকিং সেবাদানকারী প্রতিষ্ঠান ২১০০ টাকার কম ক্যাশ আউটে গ্রাহকের খরচ আগের মতই অ্যাপে ১৭.৫০ টাকা এবং ইউএসএসডিতে ১৮.৫০ টাকা থাকছে। আর ২১০০ টাকার বেশি হলে ভ্যাটসহ ইউএসএসডি দিয়ে ক্যাশ আউটে গ্রাহককে দিতে হচ্ছে ১৪.৯৪ টাকা আর অ্যাপে ১১.৪৯ টাকা।

ক্যাশ আউট চার্জ কমানোর এই উদ্যোগকে স্বাগত জানিয়ে আশীষ চক্রবর্তী বলেন, এটি গ্রাহককে সহায়তা করবে। কিন্তু কতদিন এটি বহাল রাখতে পারবে।

তিনি আরও বলেন, চার্জ যে অপারেটর কমিয়েছেন তাদের মত অন্যদেরও ক্যাশ আউট চার্জ কমানো উচিত। এতে মোবাইল ব্যাংকিং সেবার পরিধি আরও বৃদ্ধি পাবে।

সম্প্রতি বাংলাদেশ ব্যাংক এক নির্দেশনায় মোবাইল আর্থিক সেবা (এমএফএস)-এ ভ্যাটসহ কী পরিমাণ টাকা কাটা হচ্ছে তা নির্দিষ্ট করে গ্রাহকদের জানাতে এমএফএস প্রতিষ্ঠানগুলোকে একটি নির্দেশনা দিয়েছে। এতে বলা হয়েছে, সার্ভিস চার্জ/মাশুল হার সংক্রান্ত বিভ্রান্তি পরিহারকল্পে বিভিন্ন গণযোগাযোগ (সংবাদপত্র, পত্রিকা, রেডিও, টেলিভিশন, ইউটিউব চ্যানেল ইত্যাদি) এবং সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে (ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম, লিংকডইন ইত্যাদি) প্রচার প্রচারণাসহ সব ক্ষেত্রে ভ্যাটসহ সার্ভিস চার্জ/মাশুল হার উল্লেখ করতে হবে।

ব্যাংকিং খাতের সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন উদ্যোক্তা ক্যাশ আউট চার্জ কমাতে চায় না। বরং তারা গ্রাহকদের সেবা গ্রহণে আগ্রহী করতে বিভিন্ন ধরণের অফার দিচ্ছে।

এ বিষয়ে বাংলাদেশ ব্যাংকের নির্বাহী পরিচালক ও মুখপাত্র সিরাজুল ইসলাম বলেন, মোবাইল ব্যাংকিংয়ে ক্যাশ আউট চার্জ কোন প্রতিষ্ঠান কী পরিমান নিচ্ছে তা জানাতে গণমাধ্যমে বিজ্ঞাপনসহ সব ক্ষেত্রে প্রচার করতে বলা হয়েছে। ক্যাশ আউট চার্জ কমানোর জন্য সম্মিলিতভাবে আলোচনার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

শীর্ষ সংবাদ:
অপরাধীর রক্ষা নেই ॥ তৈরি হচ্ছে জাতীয় ডিএনএ ডাটাবেজ         ২৫ পৌরসভায় আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী চূড়ান্ত         শুরু হচ্ছে যমুনায় পৃৃথক রেলসেতুর নির্মাণ কাজ         রাষ্ট্র ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা বিরোধী বক্তব্য সহ্য করা হবে না         বাবুনগরীর বক্তব্য রাষ্ট্রদ্রোহিতার শামিল         আজীবন সম্মাননা পেলেন তোয়াব খান         আয়কর রিটার্ন দাখিলের সময় বাড়তে পারে         দশটি ধারা নিয়ে বিপত্তি ॥ সড়ক আইন         করোনায় মৃত্যু ও নতুন রোগী শনাক্তের হার বেড়েছে         বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য প্রতিষ্ঠিত হবেই ॥ হানিফ         মামুনুল-ফয়জুলকে ৩ দিনের মধ্যে গ্রেফতার করুন ॥ মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ         পেনসিলভানিয়ার ভোট নিয়ে আপীলেও হারলেন ট্রাম্প         কালুরঘাট রোড-কাম রেল সেতুর টোল আদায়ের লিজ নিয়ে কারসাজি         কিশোর গ্যাং ও সন্ত্রাসী রোহিঙ্গারা ফের বেপরোয়া         আবহাওয়ার হেয়ালি আচরণ, কখনও শীত কখনও গরম         বিএসএমএমইউর ৪ চিকিৎসকের বিরুদ্ধে শাহবাগ থানায় হত্যা মামলা         মামুনুল-ফয়জুলকে ৩ দিনের মধ্যে গ্রেফতারের দাবি মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চের         রাজনৈতিকভাবে ব্যর্থ ষড়যন্ত্রকারীদের থেকে সতর্ক থাকুন : তথ্যমন্ত্রী         স্থগিত সাত ব্যাংকের নিয়োগ পরীক্ষা         বেসরকারি খাতে ঋণের গতি আবারও কমছে