শনিবার ৯ কার্তিক ১৪২৭, ২৪ অক্টোবর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

মৌজা ও প্লটভিত্তিক ডিজিটাল ভূমি জোনিং ম্যাপ হচ্ছে

  • আজ একনেকে উপস্থাপন

স্টাফ রিপোর্টার ॥ মৌজা ও প্লটভিত্তিক দেশের সব ভূমিকে জাতীয় ডিজিটাল ভূমি জোনিং করা হচ্ছে। দেশের পুরো জমিকে অবস্থান ও গুণাগুণের ভিত্তিতে কৃষি, আবাসন, বনায়ন, বাণিজ্য পর্যটন এবং শিল্প প্লট হিসেবে শ্রেণীবিভাজন করে গ্রামাঞ্চলের জন্য মৌজা ও প্লটভিত্তিক ডিজিটাল ভূমি জোনিং ম্যাপ প্রণয়ন করা হবে। এজন্য ৩৩৭ কোটি ৬০ লাখ টাকা ব্যয়ে একটি প্রকল্প নিচ্ছে সরকার।

প্রকল্পটি চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য জাতীয় অর্থনৈতিক পরিষদের নির্বাহী কমিটির (একনেক) সভায় উপস্থাপন করা হবে। জানা গেছে, আজ মঙ্গলবার একনেক সভায় প্রকল্পটি উপস্থাপন করা হবে। গণভবন থেকে একনেক সভায় সভাপতিত্ব করবেন প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপার্সন শেখ হাসিনা।

পরিকল্পনা কমিশনের কৃষি, পানিসম্পদ ও পল্লী প্রতিষ্ঠান বিভাগের সদস্য (সচিব) জাকির হোসেন আকন্দ জানিয়েছেন, সারাদেশের ভূমিকে ডিজিটাল করার জন্য এখন একটি প্রকল্প চলমান রয়েছে। ওই প্রকল্পটির সঙ্গে সমন্বয় করে নতুন এই প্রকল্পটির মাধ্যমে সারাদেশের ভূমিকে মৌজা ও বিভিন্ন প্লটভিত্তিক আলাদা করা হবে। তখন যে কেউ যেখানে সেখানে যা ইচ্ছা নির্মাণ করতে পারবে না। পরিকল্পিতভাবে ভূমির ব্যবহার নিশ্চিত হবে। প্রতিবেশী ভারত তাদের ভূমিকে এ ধরনের জোনিং করে প্লটভিত্তিক ভাগ করে ব্যবহার করছে। জাকির হোসেন আকন্দ বলেছেন, প্রথমে যা ব্যয় চাওয়া হয়েছিল সেখান থেকে বিশাল অঙ্কের টাকা কমানো হয়েছে। প্রকল্পটি মঙ্গলবার একনেক সভায় উপস্থাপন করা হবে।

জানা গেছে, মাঠ পর্যায়ে ভূমি ব্যবস্থাপনার ওপর সিদ্ধান্ত নেয়ার সুবিধার্থে কেন্দ্রীয়ভাবে কম্পিউটারাইজড ভূমি তথ্য সংরক্ষণ পদ্ধতি স্থাপন করা ইত্যাদি এ প্রকল্পের উদ্দেশ্য। প্রথমে এ প্রকল্পের ব্যয় ৪৪৭ কোটি ৪০ লাখ টাকা। এখন প্রকল্পের ব্যয় কমে দাঁড়াচ্ছে ৩৩৭ কোটি ৬০ লাখ টাকা। ফলে প্রকল্পের ব্যয় সাশ্রয় হবে ১১০ কোটি টাকা। সম্পূর্ণ সরকারী অর্থায়নে প্রকল্পটি বাস্তবায়ন করা হবে। দেশের ৬৪ জেলার ৪৯৩ উপজেলায় ৪ হাজার ৫৬২টি ইউনিয়নের ৫৬ হাজার ৩৪৯টি মৌজা এ প্রকল্পের আওতায় থাকছে। প্রকল্পটি চলতি সময় থেকে ২০২৪ সালের জুন মেয়াদে বাস্তবায়ন করা হবে।

বাংলাদেশের মোট কৃষি জমি প্রায় ৮৪ শতাংশ। কিন্তু এখন এ জমি কমে যাচ্ছে। ভূমি ব্যবহার নীতি-২০০১ বাস্তবায়নকল্পে ভূমি মন্ত্রণালয় ২০০৬-২০১১ মেয়াদে উপকূলীয় ভূমি জোনিং প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছে। যার মাধ্যমে ১৫২টি উপকূলীয় উপজেলার ভূমি জোনিং ও ভূমি ব্যবহার পরিকল্পনা প্রণয়ন করা হয়েছে। দ্বিতীয় পর্যায়ে দেশের ৩৩৬ উপজেলায় ভূমি জোনিং এবং ভূমি ব্যবহার পরিকল্পনা ও ম্যাপ প্রণয়ন করা হয়েছে। এখন টেকসই উন্নয়ন অভীষ্ট ও ডেল্টা প্ল্যান-২১০০ বাস্তবায়নের জন্য মৌজা ও প্লটভিত্তিক জাতীয় ডিজিটাল ভূমি জোনিং প্রকল্প হাতে নেয়া হয়েছে।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
৪২৫৪৯৩৮৩
আক্রান্ত
৩৯৭৫০৭
সুস্থ
৩১৪৫৬২৭৯
সুস্থ
৩১৩৫৬৩
শীর্ষ সংবাদ:
রোহিঙ্গা সংকট নিরসনে জাতিসংঘের দৃঢ় ভূমিকা চান প্রধানমন্ত্রী         দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়ে ১৯ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ১০৯৪         বনানীতে স্ত্রীর পাশে চিরনিদ্রায় শায়িত রফিক-উল হক         দেশে আইনের শাসন প্রতিষ্ঠায় ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের অবদান অনস্বীকার্য় ॥ রাষ্ট্রপতি         ব্যারিস্টার রফিক-উল হকের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক         করোনায় পুলিশের কার্যক্রম প্রশংসনীয় ॥ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী         অভয়ারণ্যে ডলফিন বেড়েছে ৫৫ শতাংশ         নিরাপদ সড়ক নিশ্চিত করতে চালু করা হয়েছে রোড সেফটি অডিট ॥ সেতুমন্ত্রী         দুর্বল হয়ে লঘুচাপে পরিণত নিম্নচাপ, নামল সতর্ক সংকেত         সেবাই জনপ্রতিনিধিদের মূল উদ্দেশ্য হওয়া উচিত ॥ শিক্ষামন্ত্রী         ডিএসসিসি ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরের উন্নয়ন অংশীদার ছিল, আছে ও থাকবে : মেয়র তাপস         আবিষ্কারের সঙ্গে সঙ্গে দেশের সকল মানুষকে করোনার টিকা দেয়া হবে ॥ অর্থমন্ত্রী         ফাঁড়িতে রায়হানের মৃত্যু ॥ আরেক পুলিশ সদস্য গ্রেফতার         আগামীকাল থেকে ফিরতে পারেন সেন্টমার্টিনের পর্যটকরা         গাজীপুরে ফায়ার সার্ভিসের দুটি মডার্ন স্টেশনের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন         শীতকালে করোনায় আমেরিকায় ভয়াবহ অবস্থা হবে ॥ গবেষণা         আগুনমুখায় স্পিডবোট ডুবিতে নিখোঁজ ৫ জনেরই লাশ উদ্ধার         ভারত-চীন সীমান্ত পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা হবে: যুক্তরাষ্ট্র         রেমডেসিভিয়ারকে সম্পূর্ণ ছাড়পত্র দিল ট্রাম্প প্রশাসন         নির্বাচিত হলে বিনামূল্যে ভ্যাকসিন দেবেন বাইডেন