ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯

সংক্রমণ বাড়ায় ফের সামাজিক দূরত্ব জারি দক্ষিণ কোরিয়ায়

প্রকাশিত: ২২:৪৮, ২৩ আগস্ট ২০২০

সংক্রমণ বাড়ায় ফের সামাজিক দূরত্ব জারি দক্ষিণ কোরিয়ায়

জনকণ্ঠ ডেস্ক ॥ ভারতে করোনায় সর্বোচ্চ সংক্রমণের দিনে ৯৪৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনা সংক্রমণ বাড়ায় আবারও সামাজিক দূরত্ব জারি করেছে দক্ষিণ কোরিয়া। আর হংকংয়ের ৭৫ লাখ বাসিন্দার করোনা পরীক্ষার সিদ্ধান্ত হয়েছে। অন্যদিকে ওয়ার্ল্ডোমিটার জানিয়েছে, সারবিশ্বে শনিবার পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন দুই কোটি ৩২ লাখ ৬৬ হাজার ৪৩০ জন। মারা গেছেন আট লাখ পাঁচ হাজার ৮৬৪ জন। সুস্থ হয়েছেন এক কোটি ৫৮ লাখ ১৭ হাজার ৩৯৭ জন। এখনও চিকিৎসাধীন আছেন ৬৬ লাখ ১২ হাজার ২৭৪ জন। একদিনে বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন দুই লাখ ৫৮ হাজার ২৫২ জন। ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছেন ছয় হাজার ৬২ জন। খবর বিবিসি, সিএনএন, আলজাজিরা, এনডিটিভি, এএফপি, রয়টার্স ও ওয়ার্ল্ডোমিটার ডট ইনফোর। ভারতে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৯৪৫ জন মারা গেছেন। এ নিয়ে দেশটিতে মোট মারা গেছেন ৫৫ হাজার ৯৫০ জন। একদিনে রেকর্ড সর্বাধিক ৬৯ হাজার ৮৭৮ জন কোভিড-১৯ রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এতে দেশটিতে এখন পর্যন্ত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা দাঁড়াল ২৯ লাখ ৭৯ হাজার ৫৬২ জন। তাদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ২২ লাখ ২৩ হাজার ২০২ জন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন ৬৩ হাজার ৬৩১ জন। সুস্থতার হার ৭৪ দশমিক ৬৯ শতাংশ। শুধু শুক্রবার ভারতে ১০ লাখ ২৩ হাজার ৮৩৬ নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে, যা এখন পর্যন্ত সর্বাধিক। করোনায় সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত মহারাষ্ট্র রাজ্য। এরপরই রয়েছে যথাক্রমে তামিলনাড়ু, অন্ধ্রপ্রদেশ, কর্নাটক, উত্তরপ্রদেশ, দিল্লী, পশ্চিমবঙ্গ, বিহার, তেলেঙ্গানা, অসম ও গুজরাট। মহারাষ্ট্রে মারা গেছেন মোট ২১ হাজার ৬৯৮ জন। এরপর সর্বাধিক মৃত্যু হয়েছে যথাক্রমে তামিলনাড়ুতে ৬ হাজার ৩৪০ জন, কর্নাটকে ৪ হাজার ৫২২ জন এবং দিল্লীতে ৪ হাজার ২৭০ জন। সামাজিক দূরত্ব জারি দ. কোরিয়ার ॥ দক্ষিণ কোরিয়ায় করোনার সংক্রমণ নতুন করে বাড়ছে। সে কারণে দেশজুড়ে সামাজিক দূরত্বের কঠোর নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। এর আগে শুধু রাজধানী সিউলেই সামাজিক দূরত্বের বিধি-নিষেধ জারি ছিল। ওই বিধি-নিষেধ এবার পুরো দেশেই বিস্তৃত হলো। দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী পার্ক নিউং হো এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন, দক্ষিণ কোরিয়ায় নতুন করে আরও ৩৩২ জন প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। হংকংয়ের সব বাসিন্দার করোনা পরীক্ষা হবে ॥ চীনের বিশেষ প্রশাসনিক অঞ্চল হংকংয়ের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ক্যারি লাম বলেছেন, আগামী মাস থেকে সেখানকার ৭৫ লাখ বাসিন্দার সবার করোনা পরীক্ষা শুরু হবে। তবে চীন নিয়ন্ত্রিত কোম্পানির মাধ্যমে এই গণহারে করোনা পরীক্ষায় অঞ্চলটির কতসংখ্যক মানুষ অংশ নেবেন, সেটি স্পষ্ট নয়। মহামারী মোকাবেলায় শুরুর দিকে সফল হলেও সম্প্রতি করোনার তৃতীয় ঢেউয়ের মুখোমুখি হয়েছে হংকং। বিমানের যাত্রী, জাহাজের ক্রু ও ব্যবসায়ী ভ্রমণকারীকে করোনায় কোয়ারেন্টাইনের বিধি-নিষেধের বাইরে রাখার কারণে হংকংয়ে করোনার তৃতীয় ঢেউ শুরু হয়েছে বলে অনেকেই অভিযোগ করছেন।