মঙ্গলবার ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ০২ জুন ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

করোনা রোগীর সংস্পর্শে এসেছিলেন কি-না জানা যাবে

করোনা রোগীর সংস্পর্শে এসেছিলেন কি-না জানা যাবে
  • শীঘ্রই ‘করোনা ট্রেসিং এ্যাপস’

ফিরোজ মান্না ॥ করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এবার টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগ ‘করোনা ট্রেসিং এ্যাপস’ তৈরি করেছে। আগামী এক দুই সপ্তাহের মধ্যে এই এ্যাপস মানুষ তার স্মার্ট ফোনে ডাউনলোড করে করোনা রোগীর সংস্পর্শে এসেছিলেন কি না তা জানতে পারবেন। একই সঙ্গে স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মকর্তারাও এই এ্যাপসের সঙ্গে যুক্ত থাকবেন। তারাও জানতে পারবেন কোন ব্যক্তি করোনা রোগীর সংস্পর্শে ছিলেন। এছাড়া ঘরে বসে করোনা পরীক্ষা, ভার্চুয়াল হাসপাতাল, কোভিড-১৯ ট্র্যাকারসহ নানা প্লাটফর্ম চালু করা সম্ভব হবে এ্যাপসটির মাধ্যমে। সরকার তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির সর্বোচ্চ ব্যবহার করে সঠিক তথ্যের মাধ্যমে মানুষকে সচেতন করার পাশাপাশি স্বাস্থ্যসেবা ও খাদ্যের মতো পণ্যের সরবরাহ চলমান রাখতে বদ্ধপরিকর। প্রযুক্তির সহযোগিতা ছাড়া মানুষকে সাহয্য করা বর্তমানে কঠিন হয়ে পড়েছে। প্রযুক্তি নির্ভরতা এখন সবচেয়ে জরুরী। জনকণ্ঠকে এ তথ্য জানিয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

মন্ত্রণালয় সূত্র জানিয়েছে, কন্ট্যাক্ট ট্রেসিং হচ্ছে একটি পদ্ধতি যা সংক্রামক রোগ ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে ব্যবহার করা হয়। সেখানে রোগীদের বলা হয় তারা যেসব মানুষের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হয়েছেন তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে। করোনাভাইরাস মহামারীর ক্ষেত্রে, যেসব মানুষ দীর্ঘ সময় ধরে আক্রান্ত ব্যক্তির সংস্পর্শে এসেছেন তাদের স্বেচ্ছা আইসোলেশনে যেতে বলা হয়। এটা সাধারণত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির বন্ধু এবং পরিবারের সদস্যদের ফোনের মাধ্যমে জানানো হয়। সঙ্গে একটা স্বয়ংক্রিয় লোকেশন ট্র্যাকিং মোবাইল এ্যাপও সংযুক্ত থাকে। করোনাভাইরাসের মারাত্মক প্রাদুর্ভাবের শিকার দেশগুলোতে এরই মধ্যে কন্ট্যাক্ট ট্রেসিং পদ্ধতি ব্যবহার করা হচ্ছে। যেমন হংকং, সিঙ্গাপুর, জার্মানি, যুক্তরাজ্যসহ বেশ কয়েকটি দেশ। ফলে কয়েক সপ্তাহ ধরে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার কারণে প্রাদুর্ভাব খুঁজে বের করা বা ট্র্যাক করাটা সহজ হবে। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের সাম্প্রতিক চলাফেরা সম্পর্কে খোঁজ খবর নেবে এবং তারপর তারা যাদের সঙ্গে মেলামেশা করেছেন তাদেরকে ফোন করে খবর নেয়া হবে। ফ্রিএই এ্যাপটির ব্যবহারকারীরা যখন একে অন্যের কাছাকাছি আসে তখন এটি ব্লুটুথ ব্যবহার করে ট্র্যাক করবে। যার ফলে স্বয়ংক্রিয়ভাবেই কন্ট্যাক্ট ট্রেসিং করা সম্ভব হবে।

টেলিটক সূত্র জানিয়েছে, প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস নিয়ে ভীতি দূর করতে, সচেতনতা বাড়াতে এবং আশপাশের মানুষ কেউ এ ভাইরাসে আক্রান্ত কিনা সে বিষয়ে তাৎক্ষণিক তথ্য দেয়ার জন্য ‘করোনা আইডেন্টিফায়ার’ বা ‘করোনা ট্রেসিং এ্যাপস’ নামে একটি মোবাইল এ্যাপ্লিকেশন তৈরি করেছে ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ। এই এ্যাপটি পরিচালনার দায়িত্ব পেয়েছে টেলিটক এবং এ্যাপটির কারিগরি সহায়তা দিচ্ছে রেডিসন ডিজিটাল টেকনোলজিস লিমিটেড। ‘করোনা আইডেন্টিফায়ার’ এ্যাপটির পরীক্ষা চলছে। শীঘ্রই এ্যাপটি গুগল প্লে স্টোর এবং আইওএস স্টোরে পাওয়া যাবে। তবে ইতোমধ্যেই এ্যাপটি এপিকের মাধ্যমে (যঃঃঢ়:// পড়ৎড়হধরফবহঃরভরবৎ. ঃবষবঃধষশ. পড়স.নফ/) অনেকেই ব্যবহার শুরু করেছেন। এ্যাপটি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট দফতর আইইডিসিআর’র সঙ্গে সংযুক্ত থাকবে। বাংলাদেশে করোনাভাইরাসের ভয়াবহতা বিবেচনা করে দেশের মানুষজনকে করোনাভাইরাস সম্পর্কে আরও আপডেটেড রাখতে উক্ত মোবাইল এ্যাপ নিয়ে হাজির হলো ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের অধীনস্থ প্রতিষ্ঠান টেলিটক।

এদিকে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক জনকন্ঠকে বলেন, কোভিড-১৯ মহামারীকালে জনগণের কাছে সর্বশেষ তথ্য পৌঁছে দেয়ার লক্ষ্যে ডিজিটাল হেলথ সার্ভিস ইনফোবটের নিয়ে এসেছে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ (আইসিটি)। আইসিটি বিভাগের সহযোগিতায় স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্যসেবা বিভাগ ও হোয়াটসএ্যাপের চালুকৃত ইনফোবটে হোয়াটসএ্যাপে ০১৬৭৮৩৮০০৫৬ (দেশে) বা +৮৮০১৬৭৮৩৮০০৫৬ (বিদেশ থেকে) নম্বরে এই সেবা পাওয়া যাবে। এই মোবাইল কন্ট্যাক্টে নাম্বারটি সেভ করে বাংলায় ‘হ্যালো’ কিংবা ইংরেজীতে ঐবষষড় লিখলেই সেবাটি চালু হবে। তখন স্বয়ংক্রিয়ভাবে সর্বশেষ তথ্য ও বিবিধ সেবা গ্রহণ করা যাবে।

শীর্ষ সংবাদ:
রেড, ইয়েলো, গ্রীন ॥ করোনা ঠেকাতে তিন জোনে ভাগ হচ্ছে         মানব পাচারকারী চক্রের অন্যতম হোতা হাজী কামাল গ্রেফতার         করোনায় আয় কমেছে ৭৪ শতাংশ পরিবারের ॥ ১৪ লাখের বেশি প্রবাসী শ্রমিক বেকার         পরিস্থিতির অবনতি হলে কঠিন সিদ্ধান্ত ॥ কাদের         ৬০ বছরের বেশি বয়সী রোগীর মৃত্যুহার সর্বোচ্চ         করোনা মোকাবেলায় ৪ প্রকল্প একনেকে উঠছে আজ         ১০ হাজার কোটি টাকার জরুরী তহবিল         স্বাস্থ্যবিধি মানা না মানার চিত্র         একসঙ্গে ২৫ শতাংশের বেশি কর্মীর অফিসে থাকা মানা         সঙ্কট মোকাবেলায় খাদ্য উৎপাদন আরও বাড়াতে হবে         চলমান ক্ষুদ্র ও বৃহৎ উন্নয়ন প্রকল্পের মেয়াদ বাড়ছে         শাহজালালসহ তিন বিমানবন্দর চেনা রূপে         গুজব রটনাকারীদের গ্রেফতারে বিশেষ অভিযান         কর্তব্যে অবহেলা করলে চাকরিচ্যুতি         দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ২২ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৩৮১         জনগণের স্বার্থে যেকোনো সময়ে ঝটিকা পরিদর্শনে যাবো : মেয়র তাপস         অফিসে ২৫ শতাংশের বেশি কর্মকর্তার উপস্থিতে মানা         করোনা : প্রশাসনিক কাজে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অফিস খোলার অনুমতি         সারাদেশকে লাল, সবুজ ও হলুদ জোনে ভাগ করা হবে : স্বাস্থ্যমন্ত্রী         আগামী ১৫ জুনের মধ্যে হজের বিষয়ে সিদ্ধান্ত        
//--BID Records