রবিবার ২ কার্তিক ১৪২৮, ১৭ অক্টোবর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

রাঙ্গাবালীতে বন উজাড় করে চিংড়ি চাষ

  • নোটিসের পরও থামছে না গাছ কাটা

স্টাফ রিপোর্টার, গলাচিপা ॥ পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার উপকূলীয় বন বিভাগের কানকুনি বিটের আওতাধীন চর যমুনা এলাকার সংরক্ষিত বনাঞ্চলের গাছপালা কেটে উজাড় করে চলছে চিংড়ি মাছ চাষের উদ্যোগ। এরই মধ্যে বনাঞ্চলের কয়েক শ’ গাছ কেটে ফেলা হয়েছে। বেকু মেশিন দিয়ে মাটি তুলে খনন করা হয়েছে বিশাল জলাশয়ের ঘের। তার চারপাশে তৈরি করা হয়েছে মাটির উঁচু বেড়িবাঁধ। এছাড়া, ঘেরের পানি নিষ্কাশনের জন্য নর্দমাও কাটা হয়েছে। আর এসব করেছে স্থানীয় এক প্রভাবশালী। এ ধরনের বেপরোয়া কর্মকান্ডে গোটা বনাঞ্চলই ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে। অভিযোগ উঠেছে বন বিভাগের কতিপয় কর্মচারীর সঙ্গে গোপন যোগসাজশে এসব করা হয়েছে। যদিও বন বিভাগ থেকে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিকে নোটিস করা হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। কিন্তু এরপরেও থেমে নেই বন নিধন। বরং নোটিসের পরে আরও বেশ কিছু গাছ কেটে ফেলা হয়েছে বলে অভিযোগ করা হয়েছে। পটুয়াখালী উপকূলীয় বন বিভাগ সূত্রে জানা গেছে, রাঙ্গাবালী উপজেলার সদর ইউনিয়নের চর যমুনা এলাকায় ১৯৭৮-১৯৭৯ অর্থবছরে বন বিভাগ কেওড়া, ছৈলা, গেওয়া ও বাইন গাছের চারা লাগিয়ে বনায়ন কার্যক্রম শুরু করে। বন বিভাগ ২০০৩ সালের ৩০ অক্টোবর চর যমুনা এলাকার এক হাজার একর আয়তনের বনাঞ্চলকে সংরক্ষিত বন হিসেবে ঘোষণা দেয়। ওই ঘোষণায় চর যমুনা সংলগ্ন নদীতে যত চর জাগবে, সে সমস্ত চরও বন বিভাগের আওতায় থাকবে বলে উল্লেখ করা হয়। দীর্ঘ সময়ে বনাঞ্চলের গাছপালা বিশাল আকার নিয়ে বড় হয়ে উঠেছে এবং বনাঞ্চলটি গভীর অরণ্যে রূপ নিয়েছে। কিন্তু এরই মধ্যে চর যমুনা বনাঞ্চলের ওপর নজর পড়ে জুয়েল সিকদার নামের স্থানীয় এক প্রভাবশালীর। বনের জমির মালিকানা দাবি করে জুয়েল সিকদার বনাঞ্চলের গাছপালা কেটে চিংড়ি মাছের ঘের করার কার্যক্রম শুরু করে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে, এ বছরের জানুয়ারি মাসের শেষ দিকে সংরক্ষিত বনাঞ্চলে বেকু মেশিন নামিয়ে মাটি কেটে বাঁধ দিয়ে একটি অংশে চিংড়ি চাষের ঘের তৈরির কাজ শুরু হয়। ঘেরের বাঁধ দিতে গিয়ে বনের কয়েক শ’ কেওড়া, গেওড়া, ছৈলা ও বাইন গাছ কেটে ফেলা হয়েছে। ঘেরের পানি নিষ্কাশনের জন্য নর্দমাও তৈরি করা হয়েছে। সরেজমিনে দেখা গেছে, চর যমুনায় কয়েক একর সংরক্ষিত বনাঞ্চলের গাছপালা উজাড় করে মাটির বাঁধ দেয়া হয়েছে। বেকু মেশিন দিয়ে বনের মাটি কেটে তুলে ঘের তৈরি হয়েছে। প্রচুর গাছের গোড়া পড়ে আছে। কয়েকটি গাছের গোড়া আবার মাটি দিয়ে ঢেকে রাখা হয়েছে। ঘেরের চারপাশের বন কেটে নর্দমাও কাটা হয়েছে।

বনাঞ্চল উজাড় করে ঘের করার বিষয়ে জুয়েল সিকদার জানান, বনাঞ্চলের জমি তার রেকর্ডীয় সম্পত্তি এবং নিজের জমি কেটেই তিনি ঘের তৈরি করছেন। এখানে বন বিভাগের কোন জমি নেই। তার নামে মিথ্যা নোটিস পাঠানো হয়েছে বলেও তিনি দাবি করেন। তবে গাছপালা কাটার বিষয়ে তিনি কোন কথা বলেননি।

এ বিষয়ে উপকূলীয় বন বিভাগের পক্ষে রাঙ্গাবালী বিট কর্মকর্তা মোঃ গোলাম কাওসার জানান, সরেজমিনে গিয়ে ঘেরের সকল কাজ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। এছাড়া জুয়েল সিকদার বরাবরে নোটিস দিয়ে তার বিরুদ্ধে অবৈধভাবে গাছকাটা ও জমি দখলের অভিযোগ আনা হয়েছে। একই সঙ্গে বনাঞ্চলের জমিতে জুয়েল সিকদারের পক্ষে বৈধ কাগজপত্র থাকলে তা দেখানোর নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।

শীর্ষ সংবাদ:
বিশ্বব্যাপী পুরুষরা বেশি আত্মহত্যাপ্রবণ         গুচ্ছভুক্ত ২০ বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা শুরু হয়েছে আজ         ‘করোনা মহামারী প্রেক্ষাপটে উন্নত স্যানিটেশনের গুরুত্ব বেড়েছে’         ‘বাঙালীর মুক্তিযুদ্ধের গৌরবময় ইতিহাস বিশ্ববাসীকে জানাতে হবে’         পর্যটক প্রিয় হয়ে উঠেছে সাতছড়ি জাতীয় উদ্যান         ‘দেশের ৯৯ শতাংশ মানুষ স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশনের আওতায়’         মুহিবুল্লাহ হত্যাকাণ্ডে জড়িত আত্মগোপনে থাকা রোহিঙ্গা ক্যাডার গ্রেফতার         নাসার মাহকাশযান সৌরজগৎ তৈরির রহস্য উম্মোচনে পরীক্ষা চালাচ্ছে         রাঙ্গামাটিতে আওয়ামী লীগ নেতা ও চেয়ারম্যান প্রার্থীকে গুলি করে হত্যা         গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় মারা গেছেন ৫ হাজার ৩২৩ জন         দেশ বিক্রি করে ক্ষমতায় আসব না ॥ বিশ্ব খাদ্য দিবসের অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী         নিরাপদে দেশে ঢুকছে ভয়ঙ্কর আইস         দিগঙ্গনার অঙ্গন আজ পূর্ণ তোমার দানে ॥ এসেছে হেমন্তলক্ষ্মী         করোনাপরবর্তী স্বাভাবিক জীবনে ছন্দপতন         ‘আগের রাতেই মণ্ডপে কেউ কোরান শরীফ রেখে যায়’         ২৩ অক্টোবর সারাদেশে ছয় ঘণ্টার গণঅনশন         উন্নয়নে পিছিয়ে নেই শেরপুর         পাকিস্তানী যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের উদ্যোগ নিতে হবে         সরকারের সঙ্গে আলেম ওলামাদের কোন বিরোধ নেই         ত্রিশালে সড়ক দুর্ঘটনায় এক পরিবারের ৫ জনসহ নিহত ৭