বৃহস্পতিবার ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৮, ০২ ডিসেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

ইশরাক দেশবাসীর দৃষ্টি আকৃষ্ট করেছেন ॥ ফখরুল

ইশরাক দেশবাসীর দৃষ্টি আকৃষ্ট করেছেন ॥ ফখরুল

অনলাইন ডেস্ক ॥ ঢাকা দক্ষিণে বিএনপি মনোনীত মেয়রপ্রার্থী ইশরাক হোসেনের পক্ষে গণসংযোগে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, আমাদের এই তরুণ নেতা যিনি ইতোমধ্যে দেশবাসীর দৃষ্টি আকৃষ্ট করেছেন তার সাহসী বক্তব্যের মধ্যে দিয়ে। তার বক্তব্য প্রমাণ করেছে যে তিনিই একমাত্র নেতা যিনি ঢাকা সিটি করপোরেশনকে নেতৃত্ব দিতে পারেন।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে হাইকোর্ট গেটে দাঁড়িয়ে মির্জা ফখরুল একথা বলেন।

তিনি বলেন, সরকার নির্বাচনকে ছেলে খেলার দিকে নিয়ে যাচ্ছে। এই সরকার ইভিএম-এ নির্বাচন করতে যাচ্ছে। কারণ তারা জানে ইভিএম ছাড়া তাদের নির্বাচন করা সম্ভব না। আমরা বারবার ইভিএমের বিরোধিতা করেছি। তারপরও আমরা নির্বাচনে অংশ নিচ্ছি। আমরা জানি জনতার মধ্যে যে জোয়ার উঠেছে, ইশরাক মানুষের মধ্যে যে ভালোবাসা সৃষ্টি করেছেন সেই ভালোবাসার শক্তি নিয়ে এই সরকারের সমস্ত অপকৌশলকে বিলীন করে দেবেন।

এই নির্বাচন সম্পূর্ণভাবে পক্ষপাতদুষ্ট হচ্ছে দাবি করে বিএনপি মহাসচিব বলেন, আপনারা দেখেছেন নির্বাচন শুরু হওয়ার পর থেকে ইশরাকের ওপর আক্রমণ হয়েছে। তাবিথের ওপর আক্রমণ হয়েছে। মঙ্গলবার উত্তরের প্রার্থী তাবিথের ওপরে শারীরিকভাবে আক্রমণ করা হয়েছে। আমরা নিন্দা জানিয়েছি ও প্রতিবাদ করছি। এখন পর্যন্ত এই ঠুঁটো জগন্নাথ নির্বাচন কমিশন কোনো ব্যবস্থা নেয়নি। আমরা অবিলম্বে দোষীদের গ্রেফতারের আহ্বান জানাচ্ছি।

ঢাকাবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়ে ফখরুল বলেন, তরুণ সম্ভাবনাময় সম্পূর্ণভাবে উদ্দিপ্ত ইশরাক হোসেনকে ধানের শীষে ভোট দিয়ে আপনারা জয়যুক্ত করবেন। একই সঙ্গে দেশনেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তিকে তরান্বিত করবেন।

এসময় সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল বলেন, ঢাকা মহানগরের উন্নয়ন, দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনা ও দেশনেত্রী খালেদা জিয়াকে মুক্ত করাই আমাদের উদ্দেশ্য।

এসময় ইশরাক হোসেন বলেন, আজ পরিবর্তন দরকার। এই সরকার গত ১৩ বছর ক্ষমতায় থেকে কী করেছে। ঢাকা আজ পৃথিবীতে সবচেয়ে বসবাসের অযোগ্য তালিকায় এক নম্বরে। বায়ুদূষণের তালিকায়ও আমরা এক নম্বরে। এই যে ঢাকাকে তিলে তিলে ধ্বংস করে দেওয়া হয়েছে, তার কারণ হচ্ছে এই সরকারের জবাবদিহিতা নেই, জনগণের প্রতি দায়বদ্ধতা নেই। তারা পুলিশ প্রশাসনের ক্ষমতা ব্যবহার করে ক্ষমতায় এসেছে। তাদেরতো জবাবদিহিতা থাকার কথা নয়। আজ প্রশাসনকে দলীয়করণ করে ফেলা হয়েছে। তাদের ওপর ভর করে সরকার টিকে আছে।

এসময় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাডভোকেট জয়নাল আবেদিন, যুগ্ম-মহাসচিব সুপ্রিমকোর্ট আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার মাহবুব উদ্দিন খোকন, খায়রুল কবির খোকন, হাবিব-উন নবী খান সোহেল, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সুলতান সালাউদ্দিন টুকু, ছাত্রদলের সভাপতি ফজলুর রহমান খোকন, সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন শ্যামলসহ দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

শীর্ষ সংবাদ:
রাজশাহীতে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় তিনজনের মৃত্যু         সাভারে ৬ শিক্ষার্থীকে পিটিয়ে হত্যা মামলার রায়ে ১৩ জনের মৃত্যুদণ্ড         রাঙ্গামাটির সাজেকে পুড়েছে রিসোর্ট, রেস্তোরাঁ ও বসতবাড়ি         সিটি করপোরেশনের গাড়ির ধাক্কায় বৃদ্ধা আহত, চালক আটক         ডি কাপলড সিরিজে মাধবনের সঙ্গে দেখা যাবে মীরকে         ওমিক্রন পরিস্থিতি খারাপ হলে বন্ধ হতে পারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান         শুরু হলো এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা         ওসি প্রদীপসহ আসামিদের আত্মপক্ষ সমর্থনে সাফাই সাক্ষী দেয়ার সুযোগ         বেনজেমার একমাত্র গোলে রিয়াল মাদ্রিদের জয়         গত ২৪ ঘণ্টায় সারা বিশ্বে করোনায় মারা গেছেন ৮ হাজার ১৭৬ জন         বন্দুকযুদ্ধে কুমিল্লায় কাউন্সিলর হত্যার প্রধান আসামি শাহ আলম নিহত         গণমুখী প্রশাসন ॥ স্বাধীনতার ৫০ বছরে বড় অর্জন         ছাত্রদের কাজ লেখাপড়া, রাস্তায় নেমে যান ভাংচুর নয়         উন্নয়নে পাকিস্তানকে পেছনে ফেলেছে বাংলাদেশ         ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় নেতৃত্বের ভূমিকায় থাকবে         ১১ খাতে বিপুল বিনিয়োগ আসার সম্ভাবনা         ঐতিহাসিক পার্বত্য শান্তি চুক্তিতে বদলে গেছে পাহাড়         রামপুরায় ছাত্র বিক্ষোভ, মতিঝিলে গাড়ি ভাংচুর         দেশের প্রথম বর্জ্য বিদ্যুত কেন্দ্র অবশেষে বাস্তবায়ন হচ্ছে         বাল্যবিয়ে রোধে কাজীদের সচেতন করতে প্রশিক্ষণ দেয়া হচ্ছে