শনিবার ৩০ শ্রাবণ ১৪২৭, ১৫ আগস্ট ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

পটুয়াখালীতে শত কোটি টাকা নিয়ে নাভানা-মোনাভী কোম্পাণী উধাও ॥ মামলা

পটুয়াখালীতে শত কোটি টাকা নিয়ে নাভানা-মোনাভী কোম্পাণী উধাও ॥ মামলা

নিজস্ব সংবাদদাতা, পটুয়াখালী ॥ পটুয়াখালী জেলার প্রত্যন্ত এলাকা থেকে অন্তত শত কোটি টাকা নিয়ে উধাও হয়েছে নিউ নাভানা ও মোনাভী অল বাংলাদেশ নামে দুইটি কোম্পাণী। অধিক লভ্যাংশ দেয়ার প্রলভন দেখিয়ে জেলার বিভিন্ন এলাকার বোকার যুবক-যুবতীদের টাকা লুটে নেয় দুটি ভূয়া কোম্পানী। এ ঘটনায় পটুয়াখালী সদর থানায় ক্ষতিগ্রস্থদের পক্ষে হাজেরা বেগম নামের একজন মামলা দায়ের করেছে। এতে ৪ জন গ্রেফতার করা হয়েছে। এদিকে আমানত ফেরৎ পাওয়ার দাবিতে আজ বৃহস্পতিবার পটুয়াখালী প্রেসক্লাবের সামনে শত শত নারী পুরুষ মানবন্ধন করেছে।

জানাযায় পটুয়াখালীর নতুন বাস টার্মিনালস্থ পটুয়াখালী মিনি বাস মালিক সমিতির সাবেক সভাপতি রিয়াজ মৃধার মালিকানাধীন ভবন ভাড়া নিয়ে ২০১৮ সালে চক্রটি মোনাভী অল বাংলাদেশ নামে একটি কোম্পাণীর সাইনবোর্ড লাগিয়ে অধিক মুনাফার লোভনিয় অফার দিয়ে আর্থিক লেনদেনের কার্যক্রম শুরু করেন। কারো কারো কাছ থেকে এক লাখ করে টাকা নিয়ে মাসিক ২০ হাজার টাকার বেতন দেয়ার সুযোগ দিয়ে আমানত সংগ্রহ করে। এদের সাথে পটুয়াখালী সদর উপজেলার মরিচবুনিয়া ইউনিয়ন এলাকায় স্থানীয় নাসির উদ্দিন সবুজ, কুদ্দুস, বাদল, রহিম, আমিনুল, বাদল মোল্লাসহ ১৫ থেকে ২০ জন মিলে নিউ নাভানা কোম্পানী নামে আরো একটি কার্যালয় প্রতিষ্ঠা আর্থিক লেনদেনের কার্যক্রম শুরু করে। পর্যায় ক্রমে তাদের আর্থিক লেনদের কার্যক্রম জেলা-উপজেলা গুলোতে ছড়িয়ে পরে। কিন্তু ১৪ জানুয়ারি পটুয়াখালী নতুন বাস টার্মিনালস্থ মোনাভী কোম্পাণী কার্যালটি তালাবদ্ধ দেখে উধাও হওয়ার খবর ছড়িয়ে পরে।

পটুয়াখালী সদর থানায় হাজেরা বেগমের দায়ের হওয়া মামলায় উল্লেখ করেন-তার মেয়ে স্বামীকে মোনাভী কোম্পাণীর অফিস কার্যালয়ে চাকুরি দেয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়ে জামানত হিসেবে অভিযুক্তরা সাড়ে চার লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। পরে খোঁজ নিয়ে জানতে পারে একই ভাবে একাধিক ব্যক্তিদের কাছ থেকে চাকুরি এবং অধিক লভ্যাংশ দেয়া প্রতিশ্রুতি দিয়ে অন্তত ৭-৮ কোটি টাকা হাতিয়ে নেয়া হয়েছে। চাকুরি এবং লভ্যাংশ কোনটাই ফেরত দেয়নি তারা। হটাৎ ১৩ জানুযারী কার্যালয়টি তালা বদ্ধ দেখে পুলিশকে অবহিত করে ক্ষতিগ্রস্থ্যরা। ওই মামলায় বাকি আসামী হলো-টাঙ্গাইল জেলার ঘাটাইলের আকবর আলীর ছেলে জামাল হোসেন মুকুল। কেওয়াবুনিয়ার বেলাল হোসেন। কলাতলা এলাকার হাবিবুর রহমান ফারুক, দেলোয়ার হোসেন। মোঃ আনিছুর রহমান আনিছ, এনামুল হক আকাশের পরিচয় পাওয়া যায়নি। এছাড়াও ওই মামলায় ১৮ থেকে ২০ জনকে আসামী করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৮ সালের শেষ দিকে দিনাজপুর থেকে এই মোনাভী কোম্পাণী এলাকা থেকে একই ভাবে কোটি কোটি টাকা নিয়ে উধাও হয়ে পটুয়াখালীতে এসে আবার এ ব্যবসা শুরু করে।

শীর্ষ সংবাদ:
মৃত্যুঞ্জয়ী মুজিব ॥ শুধু খুনী নয়, নেপথ্যের কুশীলবদেরও বিচার দাবি         জাতির পিতার স্বপ্নপূরণে সাধ্যের সবটুকু উজাড় করে দেব ॥ প্রধানমন্ত্রী         ১৫ ও ২১ আগস্টের কুশীলবরা এখনও সক্রিয় ॥ কাদের         দক্ষিণ সুদানে গেল ৬৭ নৌ সদস্যের দ্বিতীয় গ্রুপ         কাঁদো বাঙালী কাঁদো ॥ বঙ্গবন্ধুর রাষ্ট্রদর্শন         যশোর কিশোর উন্নয়ন কেন্দ্রের কর্মকর্তারা পিটিয়ে খুন করে ৩ জনকে         কমিশনারের পরিচয়ে চাঁদাবাজি ॥ দুদিনের রিমান্ডে মোছাব্বির         বঙ্গবন্ধু ছিলেন গণমানুষের অন্তরের নেতা ॥ জি এম কাদের         বিষ দিয়ে পাঁচ কোটি টাকার মাছ নিধন         ভারতে ফের হাজারের বেশি মৃত্যু         সাগরে লঘুচাপ, বন্দরে ৩ নম্বার সতর্ক সঙ্কেত         বঙ্গবন্ধুর ছবিযুক্ত ১০০ ডাক টিকিট নিয়ে বইয়ের মোড়ক উন্মোচন করলেন প্রধানমন্ত্রী         দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৩৪ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ২৭৬৬         বঙ্গবন্ধুসহ সব শহীদের আত্মার মাগফেরাত কামনায় এক লাখ বার কোরআন খতমের উদ্যোগ         স্বাধীন বাংলা বেতার কেন্দ্রের শব্দসৈনিক মোতাহার হোসেন আর নেই         সিনহা হত্যা মামলায় ৭ আসামিকে নিয়ে গেল র্যাব         যশোর শিশু উন্নয়ন কেন্দ্রের ৩ কিশোর খুন ॥ পুলিশের তদন্ত শুরু         ১৫ আগস্ট খালেদা জিয়া জন্মগ্রহণ করেছেন ঘোষণাটি ছিল মিথ্যা ॥ তথ্যমন্ত্রী         বিশ্বজুড়ে করোনায় মৃত্যু সাড়ে ৭ লাখ ছাড়াল         বাজপেয়ীর রেকর্ড ভাঙলেন মোদি