শুক্রবার ১০ আশ্বিন ১৪২৭, ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

দেশকে অস্থিতিশীল করতে দেয়া হবে না ॥ তথ্যমন্ত্রী

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, দেশকে অস্থিতিশীল করতে দেয়া হবে না। যারা দেশকে অস্থিতিশীল করবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে। দেশের শান্তি বিনষ্ট করার সুযোগ তাদের দেয়া হবে না।

মঙ্গলবার ধানম-িতে আওয়ামী লীগ সভাপতির রাজনৈতিক কার্যালয়ের নতুন ভবনে দলের কেন্দ্রীয় নেতৃব্রন্দের সঙ্গে সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে রাখতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন।

ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ নজরুল ইসলামের সভাপতিত্বে এবং সাধারণ সম্পাদক মজিবুর রহমানের পরিচালনায় সভায় আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ড. শাম্মি আহমেদ, সংগঠনের উপদেষ্টা এম এ গনি, ফিনল্যান্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মোঃ হুমায়ুন কবির, ফ্রান্স আওয়ামী লীগ নেতা মোঃ আতিকুজ্জামান প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, দেশকে অস্থিতিশীল করার চক্রান্ত চলছে। তারই অংশ হিসেবে ভোলার ঘটনাকে কেন্দ্র করে একটি মহল আন্দোলনের পাঁয়তারা করছে। কিন্তু দেশের শান্তি বিনষ্ট করার সুযোগ তাদের দেয়া হবে না। সর্ব ইউরোপিয়ান আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের উদ্দেশে তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ থেকে অনুপ্রবেশকারীদের বের করে দেয়ার কাজ চলছে। বিদেশে যারা আওয়ামী লীগ করেন তাদেরও অনুপ্রবেশকারীদের সংগঠন থেকে বের করে দেবেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার দক্ষ নেতৃত্বের কারণে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশের উন্নয়ন দেখে পাকিস্তানীরা হতাশ হচ্ছে। আমরা সর্বক্ষেত্রে এগিয়ে যাচ্ছি। দেশের উন্নয়নের সঙ্গে সঙ্গে মানুষের ভাগ্যের উন্নয়ন হয়েছে। মানুষের মাথাপিছু আয় বেড়েছে। গ্রামে এখন আর কুঁড়েঘর দেখা যায় না। বাড়ি থেকে বের হয়ে কাদা মাটির রাস্তা পাড়াতে হয় না। এটি বিএনপির ভাল লাগে না।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, বিএনপির সমালোচনা করা অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। তারা দেশের উন্নয়নে বিভিন্ন সুবিধা ভোগ করছে কিন্তু সেটি স্বীকার করে না। পদ্মা সেতু নিয়ে অনেকবার বিরোধিতা করেছে। সমালোচনা করেছে। পদ্মা সেতু ব্যবহার করবে কিন্তু সেটি বিএনপি স্বীকার করবে কি-না, সেটিই প্রশ্ন। তিনি বলেন, দেশকে অস্থিতিশীল করতে ফেসবুকে অপপ্রচার চালানো হয়। অপপ্রচারকারীদের বিরুদ্ধে সরকার কঠোর দৃষ্টি রাখছে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সজাগ রয়েছে।

উন্নত দেশ ও উন্নত জাতি গঠন আমাদের লক্ষ্য ॥ তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, আমাদের লক্ষ্য হচ্ছে- উন্নত দেশ গঠনের পাশাপাশি উন্নত জাতি গঠন করা। শুধুমাত্র বস্তুগত উন্নয়ন দিয়ে উন্নত জাতি গঠন সম্ভব না। আমরা দেখতে পাচ্ছি ইউরোপে অনেক বস্তুগত উন্নয়ন হয়েছে, কিন্তু ইউরোপের সব জাতি কি উন্নত জাতি হিসাবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে? সেখানে পরিবার ভেঙ্গে গেছে, মানুষ আত্মকেন্দ্রিক হয়ে গেছে, সহমর্মিতা কমে গেছে। উন্নত জাতি গঠনে সাংবাদিকদের ভূমিকা রয়েছে। সাংবাদিকরা গণমাধ্যম চালায়, গণমাধ্যম সমাজের দর্পণ। সাংবাদিকরা মানুষের মনন তৈরি, সরকারকে দিকনির্দেশনা দেয়া, সমাজের অসঙ্গতি তুলে ধরা এবং সমাজকে প্রতিবাদী হওয়ার ক্ষেত্রে ভূমিকা রাখতে পারে।

মঙ্গলবার রাতে জেলা শিল্পকলা একাডেমিতে মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের নবনির্বাচিত কমিটির অভিষেক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। তিনি আরও বলেন, মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের বাকি আট শতাংশ জমি এবং আধুনিক ভবন নির্মাণের জন্য তিনি স্থানীয় দুই সাংসদ ও বাসসের এমডিকে নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছে যাবেন। একই সঙ্গে প্রয়োজন অনুযায়ী কল্যাণ ভাতা প্রদানসহ মুন্সীগঞ্জের সাংবাদিকদের জন্য সব রকমের সহায়তা দেবেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, মানুষ যন্ত্র হয়ে যাচ্ছে। মানবিকতা হারিয়ে যাচ্ছে, মূল্যবোধ হারিয়ে যাচ্ছে। মানুষ শুধু নিজেকে নিয়ে ভাবে। এমনকি মা বাবাকে নিয়ে ভাবার সময়ও মানুষের নেই। এটা শুধু সমাজের জন্য নয়, মানুষের জন্যও অশুভ। সেক্ষেত্রে গণমাধ্যম ভূমিকা পালন করতে পারে।

মন্ত্রী আরও বলেন, অবশ্যই সমালোচনা সমাজে থাকতে হবে। অবশ্যই সরকারের সমালোচনা হবে, মন্ত্রীর সমালোচনা হবে এবং এই সমালোচনাকে সমাদৃত করার সংস্কৃতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার সরকার লালন করে। আমাকে যখন পরিবেশ মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেয়া হয়েছিল তখন যেই পত্রিকায় কোথায় পরিবেশ বেশি নষ্ট হচ্ছে, কোথায় সরকার নজর দিচ্ছে না সে ব্যাপারে লিখেছে এবং আমাকে নিয়ে পর্যন্ত কার্টুন বানিয়েছে, সেই পত্রিকাকে ডেকে আমি জাতীয় পরিবেশ পদক দিয়েছি।

আমি মনে করি, দায়িত্বে যিনি থাকেন, তার সমালোচনা হবে। কারণ, কোন মানুষের পক্ষে শতভাগ নির্ভুল কাজ করা সম্ভব না। কোন সরকারের পক্ষে শতভাগ নির্ভুল কাজ করা সম্ভব না। পৃথিবীতে অতীতেও এমন কোন সরকার ছিল না, ভবিষতেও এমন কোন সরকার থাকবে না যে শতভাগ নির্ভুল কাজ করতে পারে। ভুল সবার থাকবে, সমালোচনাও থাকবে। কিন্তু, কিছু সাংবাদিক বন্ধুর মধ্যে ধারণা আছে ব্যাড নিউজ ইজ গুড নিউজ, গুড নিউজ ইজ নো নিউজ। এই মানসিকতা পরিহার করার জন্য বিনীত অনুরোধ সবার কাছে। সরকারের ভুল ত্রুটি তুলে ধরতে হবে, একই সঙ্গে সরকারের ভাল কাজের প্রশংসা করতে হবে।

মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের জমকালো এই অভিষেক অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির ভাষণ দেন মুন্সীগঞ্জ-৩ আসনের সংসদ সদস্য ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক স¤পাদক এ্যাডভোকেট মৃণাল কান্তি দাস, জাতীয় সংসদের সাবেক মুন্সীগঞ্জ-২ আসনের সংসদ সদস্য অধ্যাপিকা সাগুফতা ইয়াসমিন এমিলি, বাংলাদেশ সংবাদ সংস্থার (বাসস) ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান স¤পাদক আবুল কালাম আজাদ, জাতীয় প্রেসক্লাবের সভাপতি সাইফুল আলম, জাতীয় প্রেসক্লাবের সিনিয়র সহ-সভাপতি ওমর ফারুক। গেস্ট অব অনারের বক্তব্য রাখেন মুন্সীগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোঃ মনিরুজ্জামান তালুকদার ও পুলিশ সুপার মোহাম্মদ জায়েদুল আলম পিপিএম (বার)।

অভিব্যক্তি প্রকাশ করেন মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের নবনির্বাচিত সভাপতি মীর নাসিরউদ্দিন উজ্জ্বল ও সাধারণ স¤পাদক মামুনুর রশীদ খোকা। বিদায়ী সভাপতি রাসেল মাহমুদের সভাপতিত্বে আলোচনা করেন ঢাকা রিপোর্টাস ইউনিটির সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও ঢাকার মুন্সীগঞ্জ-বিক্রমপুর সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি রাজু আহম্মেদ, মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক আহ্বায়ক আতিকুর রহমান, মুন্সীগঞ্জ প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি কাজী সাব্বির আহম্মেদ দীপু, সাবেক সভাপতি সাবেক সভাপতি শহীদ-ই-হাসান তুহিন। স্বাগত ভাষণ দেন বিদায়ী সাধারণ স¤পাদক ভবতোষ চৌধুরী নুপুর। এর আগে নতুন কমিটিকে ফুল দিয়ে ও উত্তরীয় পরিয়ে অভিষিক্ত করেন প্রধান অতিথি তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ।

শীর্ষ সংবাদ:
একসঙ্গে দুটি বিরল রোগে আক্রান্ত নবজাতক         করোনায় আরও ২১ জনের মৃত্য ॥ নতুন আক্রান্ত ১৩৮৩         জলবায়ু পরিবর্তন ॥ পৃথিবী রক্ষায় প্রধানমন্ত্রীর ৫ প্রস্তাব         সার্কভুক্ত দেশগুলোকে নিবিড় সহযোগিতার আহ্বান পররাষ্ট্রমন্ত্রীর         লন্ডনে থানার ভেতর পুলিশ কর্মকর্তাকে গুলি করে হত্যা         বাংলাদেশ-ভারত সহযোগিতা নিছক দেনাপাওনার ঊর্ধ্বে ॥ রীভা গাঙ্গুলি         নিয়মতান্ত্রিকভাবেই ক্ষমতা হস্তান্তর করা হবে ॥ প্রতিশ্রুতি রিপাবলিকানদের         মহামারিতে বিশৃঙ্খলায় বিশ্ব ॥ নিরাপত্তা পরিষদে উত্তপ্ত বাক্যবিনিময়         হাতিয়ায় মাছধরা ট্রলার ডুবি, ২ জেলের মৃতদেহ         করোনা ভাইরাস ॥ যুক্তরাষ্ট্রে আক্রান্ত ৭০ লাখ ছাড়ালো         ভারত ছাড়ল হার্লে ডেভিডসন         সিংহের লেজ নিয়ে নাড়াচাড়া করবেন না ॥ ট্রাম্পকে ইরান         ১৩ ঘণ্টা পর নারায়ণগঞ্জের ট্রেন চালু         অর্থনীতি দ্রুত পুনরুদ্ধারই চ্যালেঞ্জ ॥ করোনার দ্বিতীয় ঢেউ মোকাবেলায় লকডাউন নয়         সরকারের সর্বাত্মক প্রচেষ্টায় সঙ্কট কাটল সৌদি প্রবাসীদের         একক নিয়ন্ত্রণের কোন কমিটি অনুমোদন নয়         দ্বিচারিতা আর ষড়যন্ত্রই বিএনপির রাজনৈতিক দর্শন ॥ কাদের         কক্সবাজারে কর্মকর্তাসহ ২৬৪ পুলিশ সদস্য একযোগে বদলি         মিয়ানমার থেকে বছরে আসছে ৬ হাজার কোটি টাকার ইয়াবা         ড. কামাল হোসেনের গণফোরাম ভাঙছে