ঢাকা, বাংলাদেশ   সোমবার ০৫ ডিসেম্বর ২০২২, ২০ অগ্রাহায়ণ ১৪২৯

monarchmart
monarchmart

ঈদ আনন্দ কেনাকাটায়

প্রকাশিত: ০৯:০১, ২৭ মে ২০১৯

ঈদ আনন্দ কেনাকাটায়

মুসলমানদের যত ধর্মীয় উৎসব রয়েছে তার মধ্যে ঈদ-উল-ফিতর বা রোজার ঈদ অন্যতম। সামনে আসছে কিছুদিন পর রোজার ঈদ। রোজার ঈদের আনন্দ মানেই কেনাকাটা। ঈদকে কেন্দ্র করে যার যার সাধ্যমতো কেনাকাটার প্রস্তুতি নেবে আয়োজন সম্পূর্ণ করতে। সাধ ও সাধ্যের সমন্বয়ে পছন্দের জিনিসটা হয়ত মিলবে, হয়ত কিছু থেকে যাবে নাগালের বাইরে। এই প্রাপ্তি এবং অপ্রাপ্তির সমীকরণের মাঝেই ঈদ আসবে আনন্দের বার্তা নিয়ে। বর্তমানে সবাই দুইভাবে কেনাকাটা করে থাকে। একটি ভার্চুয়াল দোকান অন্যটি শপিং মল। তবে, ভাচুয়াল দোকান থেকে আরামে কেনাকাটা করা গেলেও ভিড়ের মাঝে শপিং মলে গিয়ে কেনাকাটার মজাই আলাদা। প্রকৃতপক্ষে, ঈদের কেনাকাটা রমজানের প্রথম দিন থেকেই শুরু হয়, যা চলে একেবারে চাঁদ রাত পর্যন্ত। তবে গত কয়েক বছরে ঈদের সময়ের কেনাকাটার পোশাক পরিবর্তনের সঙ্গে শপিং করার ধরনও পাল্টে গেছে। ক্রেতাদের সুবিধার জন্য বড় বড় ব্র্র্যান্ডগুলো তাদের পণ্য অনলাইনে দেখার সুযোগ করে দিয়েছে। রয়েছে হোম ডেলিভারির ব্যবস্থা। আবার পেমেন্ট ব্যবস্থায়ও অনেক পরিবর্তন হয়েছে। অনেক টাকা সঙ্গে নিয়ে কেনাকাটা করতে হয় না এখন। বিকাশ, রকেট, ক্রেডিট, ডেবিট কার্ড ব্যবহার করেই এখন কেনাকাটার পেমেন্ট দেয়া যাচ্ছে। ঈদের কেনাকাটাকে কেন্দ্র করে রাজধানী থেকে শুরু করে সারাদেশের প্রধান প্রধান শপিং মলে পোশাক থেকে শুরু করে বিভিন্ন পণ্যের পসরা সাজিয়েছে। বিভিন্ন শপিং মলে চলছে অফারের মৌসুম। রাজধানীর বসুন্ধরা শপিং মল, যমুনা ফিউচার পার্ক, ইস্টার্ন প্লাজা, মৌচাক মার্কেট, নিউমার্কেট, আজিজ সুপার মার্কেটসহ ছোট-বড় সব মার্কেটে চলছে ঈদের কেনাকাটায় বিশেষ ছাড়। তাতে থাকছে গাড়ি, টিভি, সোনার গহনাসহ অসংখ্য পুরস্কার। এসব ছাড় পেয়ে ক্রেতারাও অতি আগ্রহে ঈদের কেনাকাটা করছে। শুধু শপিং মল নয়, ঈদকে সামনে রেখে ই-কমার্স সাইডগুলোও বিভিন্ন ছাড়ের অফার দিচ্ছে। এখন ইন্টারনেট ব্যবহারকারীর সংখ্যা বেশি হওয়ায় শপিং মলের পাশাপাশি জমে উঠেছে ই-কমার্স ব্যবসাগুলো। ঈদ মানে কেনাকাটার আনন্দ, নতুন পোশাক সবই স্বাভাবিক বিষয়। পরিবারের সর্বকনিষ্ঠ থেকে বয়োজ্যেষ্ঠদের নতুন জামা থাকবে ঈদে। এটাই স্বাভাবিক। মন ভরে কেনাকাটা করবেন, ঠিক আছে। কিন্তু তার পরেও কিছু কথা থেকে যায়। যেমন, অযথা অর্থের অপচয় না করা। প্রয়োজনের অধিক পোশাক না কেনা। তাই ঈদ কেনাকাটায় কিছু বিষয় মাথায় রেখে করতে পারেন ঈদের শপিং- * ঈদ মানে এলোমেলো শপিং নয়। বরং ঈদের শপিং করুন পরিকল্পনা করে। কি কিনবেন, কার জন্য কিনবেন তা আগেই তালিকা করুন এবং সেই তালিকা অনুযায়ী কেনাকাটা করুন। * ঈদ মানেই আনন্দ ভাগ করে নেয়া। তাই নিজেদের কেনাকাটার পাশাপাশি তাদের জন্যও কিছু কিনুন। যাদের কেনাকাটার সামর্থ্য নেই। * ঈদের পোশাক কিনতে বেশি করে মূল্য যাচাই করুন। কারণ, ঈদকে কেন্দ্র করে দাম ৪-৫ গুণ বেশি চায়। * পোশাক তৈরি করে পরতে চাইলে আগেই দর্জির কাছে দিয়ে দিন। এর ফলে আপনি আগেই কাপড়ের ডেলিভারি পাবেন এবং কোন সমস্যা থাকলে তা ঠিক করে নিতে পারবেন। ঈদে আপনি কম বা বেশি দামী যে পোশাকেই কিনুন না কেন তা অবশ্যই ট্রায়াল দিয়ে দেখুন। তা না হলে মানানসই জামা না কিনতে পারার কষ্টে ঈদের আনন্দই নষ্ট হতে পারে। ঈদের কেনাকাটায় বেশি তাড়াহুড়া করা ঠিক নয়। আজকে আপনি সময় পেয়েছেন। যথাসম্ভব আজকেই সেরে ফেলুন কিছু কেনাকাটার কাজ। জিনিসপত্র যেহেতু পছন্দমতো কিনতে হবে সেহেতু একটু রয়েসয়েই কেনা ভাল। ঈদের শপিং যথাসম্ভব চেষ্টা করুন সবার পছন্দের জামাটি কেনার। কারণ, কেনাকাটার আসল উদ্দেশ্যই হলো সবাইকে খুশি করা। তাই সবার পছন্দের গুরুত্ব দিন। এ ছাড়া কারও জন্য গিফট দিতে চাইলেও তার পছন্দের বিষয় মাথায় রেখে কেনাকাটা করুন। ঈদের পোশাকের কারণে কারও যেন মন খারাপ না হয় আপনার দোষে, সেদিকে খেয়াল রাখুন। ঈদের কেনাকাটায় নিজের রুচি ও পছন্দমতো পোশাক কেনা অনেক কঠিন। এর মূল কারণ শপিং মলের অত্যধিক ভিড়। অনলাইনে কেনা যায়, তবে শপিং মলে গিয়ে শপিং করার মজাটাই আলাদা। রোজার ঈদের কেনাকাটায় ইফতারের আগে না গিয়ে ইফতারের পরে যাওয়াই ভাল। কেনাকাটার সময় পরিবারের কাউকে সঙ্গে নিলে ভাল হয়। এ ছাড়া কোন অভিজ্ঞ বন্ধুকেও সঙ্গে নিতে পারেন। এতে শপিং করতে বিরক্তিও আসবে না এবং ভাল সাপোর্ট পাবেন। ঈদের শপিং যার জন্য করবেন কাছে থাকলে তাকে অবশ্যই সঙ্গে নিন। এতে তার পছন্দমতো পোশাকটা কিনতে আলাদা কোন ঝামেলা হবে না। সর্বশেষ ভিড়ের মধ্যে কেনাকাটায় নিজের ব্যাগ ও পকেট সামলে রাখুন। কারণ, ঈদের ভিড়ে চোর, বাটপারের সংখ্যা বেড়ে যায়। ঈদ মানে খুশি ঈদ মানে সবার সঙ্গে সবার আনন্দ ভাগ করে নেয়া। তাই ঈদে শুরু নিজের আনন্দের কথা না ভেবে অন্যের আনন্দের কথাও ভাবুন। সাধ্যমতো চেষ্টা করুন পরিবারকে খুশি করতে। পাশাপাশি নিন আত্মীয়স্বজনসহ কোন পরিচিত অভাবী মানুষ থাকলে। তাকেই সাহায্য করুন ঈদের আনন্দ আনন্দিত করতে। সবার ঈদ ভাল কাটুক এবং সবাইকে অগ্রিম ঈদ মোবারক। ছবি : রাহুল চৌধুরী মডেল : মুকুল জামিল, নিহারীকা ফিওনা, সেলিম ও নওমি কৃতজ্ঞতা : ডিমান্ড ফ্যাশন হাউস
monarchmart
monarchmart