সোমবার ৪ মাঘ ১৪২৮, ১৭ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

বুধবার পর্দা উঠছে একাদশ জাতীয় সংসদের

সংসদ রিপোর্টার ॥ আগামীকাল বুধবার পর্দা উঠছে ঘটনাবহুল একাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম অধিবেশনের। স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে ওইদিন বিকেল তিনটায় শুরু হবে এ অধিবেশন। সংসদের প্রথম ও বছর শুরুর অধিবেশন হওয়ায় সংবিধান অনুযায়ী আগামীকাল প্রথম অধিবেশনে ভাষণ দেবেন রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ। সোমবারই শেষ হয়েছে দশম জাতীয় সংসদের মেয়াদ।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রস্তুতি ইতোমধ্যে সম্পন্ন করেছে সংসদ সচিবালয়। সংসদ ভবনের চতুর্দিকে নেয়া হয়েছে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা। অধিবেশন শুরুর দিন কাল রাষ্ট্রপতি তাঁর ভাষণে সরকারের বিভিন্ন উন্নয়নমূলক কর্মকান্ড জাতির সামনে তুলে নানা দিকনির্দেশনা দেবেন। পরে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাব জানাতে সাধারণ আলোচনার প্রস্তাব আনা হবে। তবে সংসদীয় রেওয়াজ অনুযায়ী চলমান চলমান সংসদের কোন এমপি মারা গেলে অধিবেশন শুরুর পর শোক প্রস্তাব গ্রহণ করে ওই দিনের মতো অধিবেশন মুলতবি করা হয়। একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে জয়ী হলেও শপথ নিতে পারেননি আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও জনপ্রশাসনমন্ত্রী সৈয়দ আশরাফুল ইসলাম। গত ৩ জানুয়ারি তিনি ইন্তেকাল করেন। ফলে রেওয়াজ অনুযায়ী অধিবেশন শুরুর পর শোক প্রস্তাব গ্রহণ করে অধিবেশন কিছু সময়ের জন্য মুলতবির পর পুনরায় শুরু করা হবে। এরপর অধিবেশনে ভাষণ দেবেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ।

সংবিধানের ৭৪ অনুচ্ছেদ অনুযায়ী নতুন সংসদের প্রথম অধিবেশনেই আগামী পাঁচ বছরের জন্য জাতীয় সংসদের স্পীকার ও ডেপুটি স্পীকার নির্বাচন করতে হয়। এজন্য কমপক্ষে এক ঘন্টা আগে নোটিশ দিতে হয়। একজন প্রস্তাব, একজন সমর্থক ও প্রার্থীর সম্মতি লাগে। নানা সূত্রেই জানা গেছে, জাতীয় সংসদের বর্তমান স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী আগামী পাঁচ বছরের জন্য স্বপদে বহাল থাকছেন। বর্তমান স্পীকারকে আবারও একই পদে রাখার বিষয়ে রংপুরের পীরগঞ্জের জনসভায় ইঙ্গিত দিয়েছিলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে ডেপুটি স্পীকার কে হবেন, সে বিষয়ে এখনও ক্ষমতাসীনদের কাছ থেকে কোনো ইঙ্গিত পাওয়া যায়নি।

সংসদ সচিবালয় সূত্রে জানা গেছে, স্পীকার-ডেপুটি স্পীকার নির্বাচনের পর অধিবেশন কিছু সময় মুলতবি রাখা হবে। এই সময় সংসদে অবস্থানরত রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদের কাছ থেকে নতুন স্পীকার ও ডেপুটি স্পীকার শপথ নেবেন। পর নবনির্বাচিত স্পীকারের সভাপতিত্বে শুরু হবে সংসদ অধিবেশন। অধিবেশন শুরুর পর নতুন স্পীকার সংসদে শোক প্রস্তাব উত্থাপন করবেন। একাদশ সংসদের নির্বাচিত সংসদ সদস্য সৈয়দ আশরাফুল ইসলামসহ অন্যদের মৃত্যুতে শোক প্রস্তাব তোলা হবে। মুলতবির পর আবার সংসদের বৈঠক শুরু হলে স্পীকার রাষ্ট্রপতিকে ভাষণ দেওয়ার জন্য আহ্বান জানাবেন। রাষ্ট্রপতির ভাষণের পর অধিবেশন রেওয়াজ অনুযায়ী মুলতবি করা হবে।

স্পীকার ও ডেপুটি স্পীকার নির্বাচন ছাড়াও প্রথম অধিবেশনে সংসদের সভাপতিমন্ডলীর মনোনয়ন, শোক প্রস্তাব. অধ্যাদেশ উত্থাপন (যদি থাকে), সংসদীয় কমিটি গঠন (যদি থাকে), সংবিধান বা আইন অনুযায়ী কোনো রিপোর্ট উপস্থাপন (যদি থাকে)। তবে রেওয়াজ অনুযায়ী প্রশ্নকাল থাকে না।

এদিকে অধিবেশন শুরুর আগে স্পীকারের সভাপতিত্বে কার্য উপদেষ্টা কমিটির বৈঠক অনুষ্ঠিত হবে। ওই বৈঠকে সিদ্ধান্ত হবে শীতকালীন এ অধিবেশন কতোদিন চলবে। কার্য উপদেষ্টা কমিটির বৈঠকে স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সভাপতিত্বে সংসদ নেতা ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উপস্থিত থাকবেন। অসুস্থ্যতার কারণে বিদেশে অবস্থান করায় এ বৈঠকে উপস্থিত থাকতে পারবেন না বিরোধী দলের নেতা এইচ এম এরশাদ। বছরের প্রথম ও একাদশ সংসদের প্রথম অধিবেশন হিসেবে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আলোচনা থাকায় শীতকালীন এ অধিবেশনটির মেয়াদকাল দীর্ঘ হবে।

গতবারের মতো এবারও সংসদে বিরোধী দলের আসনে বসতে যাচ্ছে জাতীয় পার্টি। তবে গত সংসদের বিরোধী দলীয় নেতা রওশন এরশাদের চেয়ারে এবার বসছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ। বিরোধী দলীয় উপনেতার দায়িত্বে থাকবেন এরশাদের ভাই ও দলের কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের। আর বিরোধী দলীয় প্রধান হুইপের দায়িত্ব যাচ্ছে মশিউর রহমান রাঙ্গার কাছে। গতবার বিরোধী দলের পাশাপাশি সরকারের মন্ত্রিসভায়ও ছিল জাতীয় পার্টি। তবে এবার জাতীয় পার্টি বা আওয়ামী লীগের অন্য শরিকদের কেউই এখন পর্যন্ত সরকারে নেই।

৩০ ডিসেম্বর জাতীয় নির্বাচনে ভুমিধ্বস বিজয়ী হয়ে টানা তৃতীয়বারের মতো সরকার গঠন করে আওয়ামী লীগ। গত ৩ জানয়ারি সংসদ ভবনের শপথ কক্ষে চার ধাপে ২৮৯ জন নবনির্বাচিত সংসদ সদস্য শপথ নেন। প্রথমে স্পীকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী সংবিধান ও কার্যপ্রণালী বিধি অনুযায়ী নিজে শপথ গ্রহণ করেন এবং শপথ বইয়ে স্বাক্ষর করেন। পরে অন্যদের শপথ বাক্য পাঠ করান তিনি। তবে বিএনপির নির্বাচিত ৫ সংসদ সদস্য এবং ঐক্যফ্রন্টের দুই জন নির্বাচিত সংসদ সদস্য এখনও শপথ নেননি। বিধান অনুযায়ী সংসদ অধিবেশন শুরুর পরবর্তী ৯০ দিনের মধ্যে তাঁরা শপণ গ্রহণ না করলে তাঁদের সংসদ সদস্যপদ শুন্য ঘোষিত হবে। এসব আসনগুলোতে পুনর্নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

এর আগে ৩০ ডিসেম্বর ২৯৯ সংসদীয় আসনে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। এক প্রার্থীর মৃত্যুর কারণে গাইবান্ধা-৩ আসনের ভোটগ্রহণ স্থগিত করা হয়। অবশ্য রবিবার অনুষ্ঠিত উপ-নির্বাচনে ওই আসনে বিজয়ী হয়েছেন আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী ডা. ইউনুস আলী সরকার নির্বাচিত হয়েছেন। নির্বাচনে আওয়ামী লীগ এককভাবেই পায় ২৫৭টি আসন। জাতীয় পার্টি পেয়েছে ২২টি আসন। এছাড়া বিএনপি ছয়টি, গণফোরাম দুইটি, ওয়ার্কার্স পার্টি ৩টি, জাসদ দুইটি, বিকল্প ধারা বাংলাদেশ ২টি, তরিকত ফেডারেশন ও জাতীয় পার্টি (জেপি) একটি করে আসন পায়। আর তিনটি আসনে বিজয়ী হয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থীরা।

শীর্ষ সংবাদ:
স্বাস্থ্যবিধি মানাতে ‘অ্যাকশনে’ যাবে সরকার         না’গঞ্জে নেতিবাচক রাজনীতির ভরাডুবি হয়েছে ॥ কাদের         সিইসি ও ইসি নিয়োগ আইন মন্ত্রিসভায় অনুমোদন         ৫০ বছর হলেই বুস্টার ডোজ ॥ স্বাস্থ্যমন্ত্রী         ‘নাসিক নির্বাচন ইভিএমে শান্তিপূর্ণভাবে হয়েছে’         হল ছাড়বেন না শাবি শিক্ষার্থীরা, ভিসির পদত্যাগ দাবিতে উত্তাল ক্যাম্পাস         রাষ্ট্রপতিকে ধন্যবাদ দিতে সংসদে প্রস্তাব         দেশে ৫৫ জনের দেহে ওমিক্রন শনাক্ত         প্রথম ডোজ নিয়েছে ৭৭ লাখ শিক্ষার্থী ॥ নওফেল         মহামারীর মধ্যে বিশ্বের শীর্ষ ১০ ধনীর সম্পদ বেড়ে দ্বিগুণ হয়েছে ॥ অক্সফাম         আবারও করোনায় আক্রান্ত আসাদুজ্জামান নূর         আজ সুপ্রিম কোর্টের বিচারিক কার্যক্রম বন্ধ         শৈত্য প্রবাহ থাকবে আরও দুই-একদিন         কিংবদন্তি কত্থক শিল্পী বিরজু মহারাজ আর নেই         উখিয়া-টেকনাফে হাইওয়ে পুলিশের ঘুষ বাণিজ্য, রোহিঙ্গাসহ চালকদের হাতে হাতে টোকেন         মালির ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম বাউবাকার আর নেই         ফের ক্ষেপণাস্ত্র ছুড়েছে উত্তর কোরিয়া, জানাল দক্ষিণ কোরিয়া         পদত্যাগ করলেন শাবির সেই প্রভোস্ট