বৃহস্পতিবার ১২ কার্তিক ১৪২৮, ২৮ অক্টোবর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

সচিবালয়ে বিদায়ের সুর

তপন বিশ্বাস ॥ সচিবালয়ে বিদায়ের সুর। মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীরা যে যার কাজ গুছিয়ে ফেলেছেন মঙ্গলবারই। অধিকাংশ মন্ত্রীই নতুন মন্ত্রিসভা গঠনের আগে আর দফতরে যাবেন না। কারো কারো এটিই শেষ অফিস। নতুন মন্ত্রিসভায় কে থাকবেন আর কে থাকবেন না, তা বুঝতে না পেরে সব কিছু গুছিয়ে নিয়ে ফিরেছেন বর্তমান মন্ত্রিসভার অনেক সদস্য।

সচিবালয়ে ঘুরে মঙ্গলবার দেখা গেছে, মন্ত্রীরা তাদের কাজ গুছিয়ে নিচ্ছেন। কেউ কেউ পড়ে থাকা ফাইল নিষ্পত্তি করেছেন। কর্মকর্তা-কর্মচারীদের কাছ থেকে অনানুষ্ঠানিক বিদায়ও নিয়েছেন মন্ত্রীরা। তবে যাওয়ার আগে নির্বাচিত মন্ত্রীরা মিষ্টিমুখও করিয়েছেন দফতরে উপস্থিত সকলকে। রবিবার একাদশ জাতীয় সংসদের নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে। টানা নির্বাচনী কাজে ব্যস্ত থাকায় নির্বাচনের পরদিন সোমবার মন্ত্রীরা কেউ সচিবালয়ে আসেননি। তবে নির্বাচিত মন্ত্রী-এমপিরা অনেকেই পরদিন সোমবার গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাত করেন। সকালের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাত করে ফিরে এসে অনেকেই আবার বিশ্রাম করেন। তাই নির্বাচনের পরদিন সোমবার কোন মন্ত্রীকে সচিবালয়ে দেখা যায়নি।

একদিন বিশ্রামের পর মঙ্গলবার সচিবালয়ে আসেন বেশ কিছু মন্ত্রীরা। স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম দুপুরের দিকে সচিবালয়ে আসেন। সচিবালয়ে এসে তিনি পড়ে থাকা কয়েকটি ফাইল নিষ্পত্তি করেন। এবারের নির্বাচনে বিজয়ী হয়ে প্রথমবার সচিবালয়ে আসার সঙ্গে সঙ্গে মিষ্টিও হাজির হয়ে যায়। উপস্থিত সকলকে মিষ্টিমুখ করানোর পাশাপাশি অনানুষ্ঠানিকভাবে বিদায়ও নেন তিনি। আজ এবং আগামী কাল তিনি সচিবালয়ে আসবেন না। শনিবার নতুন মন্ত্রিসভা গঠনের সম্ভাবনা রয়েছে। সে হিসেবে গতকাল মঙ্গলবারই তিনি শেষ অফিস করেছেন।

দুপুর ১২টার দিকে সচিবালয়ে আসেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। সচিবালয়ে আসার সঙ্গে সঙ্গে দফতরের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা তার সঙ্গে দেখা করে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন। পাশাপাশি তারা নতুন বছরের শুভেচ্ছাও বিনিময় করেন। খবর পেয়ে এক ঝাঁক মিডিয়া কর্মী ছুটে যান তার দফতরে। মিডিয়া কর্মীদের সঙ্গেও কুশল বিনিময় করেন সদালাপি আসাদুজ্জামান। সকলকে মিষ্টিমুখও করানো হয়। পরে তিনি কয়েটা ফাইল নিষ্পত্তি করলেও এই দুই দিন তিনি অফিস করবেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হওয়ায় তাকে অফিস করতে হবে।

একই সময়ে সচিবালয়ে নিজ দফতরে যান খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম। দফতরে গেলে তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান কর্মকর্তা-কর্মচারিরা। কর্মকর্তা-কর্মচারীর পাশাপাশি শুভানুরাগীরাও তার সঙ্গে সাক্ষাত করেন। খাদ্যমন্ত্রীর পিএস অফিসে না থাকায় সব ফাইলের কাজ সম্পন্ন করতে পারেনি তিনি। তিনি বলেন, আজ বুধবার তিনি তার নির্বাচনী এলাকায় যাবেন। সেখানে গিয়ে জনগণের সঙ্গে শুভেচ্ছা বিনিময় ও তাদের ধন্যবাদ জ্ঞাপন করবেন। তিনি বলেন, নির্বাচনী এলাকার অনেকেই তাকে শুভেচ্ছা জানাতে আসতে চেয়েছিলেন। কিন্তু তিনি বলে দিয়েছেন, নিজে গিয়ে দেখা করে আসবেন। সে লক্ষ্যে মঙ্গলবার বিকেলে তিনি কিছু এলাকা পরিদর্শন করেন। বাকি এলাকায় আজ বুধবার যাবেন বলে তাদের জানিয়ে দিয়েছেন।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
২৪৫৪০৪৪৯৬
আক্রান্ত
১৫৬৮৫৬৩
সুস্থ
২২২৪৫৬৫৬৯
সুস্থ
১৫৩২৪৬৮
শীর্ষ সংবাদ:
সেনাবাহিনী বহির্বিশ্বে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করেছে         ইংল্যান্ডের কাছে বড় ব্যবধানে হার বাংলাদেশের         নীলনক্সা লন্ডনে         ‘গরিবের আইনজীবী’ বাসেত মজুমদারের ইন্তেকাল         পাটুরিয়ায় তলদেশ দিয়ে পানি ঢুকে ফেরিডুবি         দেশে প্রতি চারজনে একজন স্ট্রোকে আক্রান্ত         মূল্যস্ফীতি সরকারের নিয়ন্ত্রণে ॥ অর্থমন্ত্রী         প্রধানমন্ত্রীর প্রণোদনা প্যাকেজে অর্থনীতি ঘুরে দাঁড়িয়েছে         জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর চিন্তা ॥ জনজীবনে চাপ পড়ার শঙ্কা         বাবুলের মামলার চূড়ান্ত প্রতিবেদনে নারাজির শুনানি         কুমিল্লার ঘটনায় জড়িতদের শনাক্ত করা হচ্ছে         হামলা করে সার্বভৌমত্ব হুমকির মধ্যে ফেলে দেয়া হয়েছে         ফ্লাইওভারের র‌্যাম্পে কোন ফাটল সৃষ্টি হয়নি         বৃহস্পতিবার গণটিকার দ্বিতীয় ডোজ         ১ ফেব্রুয়ারিতে হচ্ছে না এসএসসি পরীক্ষা : শিক্ষামন্ত্রী         বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্প পুরস্কার পাচ্ছে ২৩ প্রতিষ্ঠান         করোনা: গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৭, নতুন শনাক্ত ৩০৬         কোচিং সেন্টার বন্ধ থাকবে ১৮ দিন         গুলশানে ট্রান্সফরমার বিস্ফোরণ, শিশুসহ দগ্ধ ৪         টেকসই উন্নয়নের জন্য চাই ঐক্যবদ্ধ সামাজিক শক্তি