রবিবার ৪ আশ্বিন ১৪২৮, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২১ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

সিয়াম-পূজার ‘দহন’

  • রুহুল আমিন ভূঁইয়া

ঢাকাই সিনেমা শুরুর থেকেই জুটি প্রথার প্রভাব দর্শক সব সময় লক্ষ্য করেছে। একটা সময় পছন্দের তারকার রসায়ন দেখার জন্য সিনেমা হলে দর্শকদের ছিল উপচেপড়া ভিড়। বর্তমান খারপ সময়ের মধ্যে জাজের হাত ধরে আগমন ঘটে সিয়াম-পূজার জুঁটি। ইতোমধ্যে তারা পোরামন-২ সিনেমার মধ্যমে দর্শকদের মন জয় করেছে। আসছে সিয়াম ও পূজার ক্যারিয়ারে দ্বিতীয় সিনেমা ‘দহন।’ আগামীকাল সারাদেশে একযোগে মুক্তি পাবে রায়হান রাফি পরিচালিত এই সিনেমা। সিনেমা নিয়ে কথা বলার জন্য ফোন করা হয় পূজাকে। ফোন ধরলেন মা। জানালেন, সামনে উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা। তাই সিনেমা মুক্তি নিয়ে ব্যস্ত থাকলেও এখন কিছুটা সময় লেখাপড়াকে দিতে হচ্ছে।

ঘণ্টা খানেক পর পাওয়া গেল পূজাকে। প্রথমেই জানতে চাই গার্মেন্টসকর্মী আশার চরিত্র সম্পর্কে- প্রশ্নের জবাবে চটপটে উত্তরে পূজা বলেন, এখানে আমাকে খুব গ্ল্যামারাস মনে হবে না। যাকে দেখলেই বোঝা যাবে সত্যিকারের একজন গার্মেন্টসকর্মী। দর্শক ছবিটি দেখলে বুঝতে পারবে। এটা পূজা নয় আশাই। আশা চরিত্রে প্রবেশ করা আমার জন্য অনেক চ্যালেঞ্জিং ছিল। শূটিংয়ের আগে সাত দিন গার্মেন্টসে কাজও করতে হয়েছিল। যাতের সঙ্গে কাজ করেছি তারা অনেক হেল্প করেছে আমায়। তাদের অসংখ্যা ধন্যবাদ। তাদের হেল্প এর জন্য ক্যামেরায় নিজেকে সুন্দরভাবে তুলে ধরতে পেরেছি। -বললেন পূজা।

দ্বিতীয় প্রশ্নে পূজার কাছে জানতে চাওয়া হয় যে গত বৃহস্পতিবার ট্রেইলার প্রকাশ অনুষ্ঠানে বলা হয়েছিল ছবিটির জন্য দুই মাস না খেয়ে থাকতে হয়েছিল। আসলেই কি তাই? ঠিক তা না। বলায় একটু মিসটেক হয়েছে। আসলে দুই মাস আমি ডায়েট করেছি। দুই মাস না খেয়ে থাকিনি। দুই মাস না খেলে আমি তো মারাই জাইতাম [হা..হা..হা..]।

‘দহন’ ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার পর সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ কি ছিল? আমার সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ ছিল দর্শকদের বিশ্বাস করাতে হবে যে পূজাই আশা। প্রথমে টেনশনে ছিলাম যে আমি কি পারব আশাকে ফুটিয়ে তুলতে? শুরুর দিকে নুর জাহান, পোরামন-২ মতো সফল ছবি দিয়েছি। পরের ছবি যদি যেমন তেমন দেই তাহলে দর্শক সেটা মেনে নেবে না। আমি আশাবাদী পোরামন-২ এর সফলতা ছাড়িয়ে যাবে ‘দহন’।

শূটিংয়ের সময় স্মরণীয় কোন ঘটনা? সবার চরিত্র চ্যালেঞ্জিং ছিল তাই সে রকম কোন মজার ঘটনা নেই। তবে আমাদের একটা মেকাপ আছে সেটা নিতে ছয় ঘণ্টা সময় লাগে। এটা হলে গিয়ে দেখলে দর্শক বুঝতে পারবে যে কি এমন মেকাপ যেটা করতে ছয় ঘণ্টা লেগেছিল। আমার জন্য খুবই কষ্টকার ছিল। মেকাপটা তোলার সময় চোখে ক্যামিকাল যায়। এটা নিয়ে সবাই খুব টেনশনে ছিলাম। আমি খুব ভয় পেয়ে গেছি।

দর্শকদের উদ্দেশ্য কিছু বলতে চান? দর্শকদের উদ্দেশ্য একটা কথাই বলার এ ছবিটির পেছনে অনেক পরিশ্রম করেছি। আমার মনে হয় ছবিটি দেখলে দর্শকদের লাভ ছাড়া ক্ষতি হবে না।

পূজার কথা শেষ না হতেই সিয়াম তুলা চরিত্রটি মূল্যায়ন করে বলেন, তুলা একটি বাস্তব চরিত্র। বাস্তবসম্মতভাবে ফুটিয়ে তোলা যায় সেটাই আমার চেষ্টা ছিল। যার বাবা-মার পরিচায় নেই, নেই কোন পিছুটান। সে শুধু একটি কথাই জানে জীবনে যদি ভালভাবে বাঁচতে হয় তাহলে তার টাকা লাগবে। আর সে টাকা কামানোর জন্য তার যে কাজই করা লাগে না কেন সেটা করতে সে রাজি। তার কাছে ঐটাই হালাল কাজ, ঐটাই ঠিক কাজ। সেটা যত বড় খারাপ কাজই হোক না কেন। তুলা চরিত্রটি করতে পেরে অনেক ভাল লাগছে। এ রকম চরিত্র আমরা সাধারণত পাই না। এটা ভেবে ভাল লাগছে যে ভাল একটি কাজ দর্শকদের উপহার দিতে পারছি। যেটা দেখলে তাদের মন ছুঁয়ে যাবে।

কী মনে হচ্ছে, বাংলা ছবির গতানুগতিক ধারা থেকে এ ছবিটি আলাদা হবে? জ্বী অবশ্যই আলাদা হবে। এ রকম গল্পের ছবি আমাদের দেশে হয় না বললেই চলে। ইন্ট্যারন্যাশনাল সিনেমার বাজার যেহেতু এগিয়ে গেছে তাই এ রকম গল্পের একটি ছবি বাংলাদেশে খুব দরকার ছিল। এবং পূজার সঙ্গে আমার বোঝাপোরা খুবই ভাল ছিল। প্রথম ছবিতেই আমাদের রসায়ন বিকাশিত করা আছে। এবং সে একজন ভাল পারফর্মার তার সঙ্গে পারফর্ম করে অনেক আরাম লাগে। - বললেন সিয়াম।

যোগ করে সিয়াম আরও বলেন, পোরামন-২ চেয়ে দহন ছবির জন্য অনেক কষ্ট করতে হয়েছে। আমরা আশাবাদী পোরামন-২ সফলতা ছাঁড়িয়ে যাবে দহন। বাকিটা দর্শকদের হাতে। তবে এটা সত্যি কথা যত ভাল ছবিই দেন না কেন এখন রাজনৈতিক ও সামাজিক প্রেক্ষাপট কঠিন যাচ্ছে। সে ক্ষেত্রে এটিও ভাবনার বিষয়। সমসাময়িক রাজনৈতিক অবস্থা ছবিতে প্রভাব পড়তে পারে। সব কিছু নির্ভর করবে আমাদের আর্থ সামাজিক পরিস্থিতির উপর। যদি আমার দেশের মানুষ ভরসা না পান যে পরিবার নিয়ে বাসা থেকে বের হলে ফের বাসায় যেতে পারবে না। তাহলে অনেকেই বাসা থেকে বের হবেন না। তারা যখন জানতে পারবেন যে এ ছবিতে এমন একটি বাস্তব গল্প রয়েছে যেটা দেখা, শোনার মানুষ নেই। তখন অবশ্যই তারা দেখতে সিনেমা হলে আসবেন। আমি বিশ্বাস করি যে ভাল একটি কাজ যদি আসে তাহলে সকল সমস্যা পেরিয়ে দর্শক সেটা হলে দেখতে আসবেন।

করোনাভাইরাস আপডেট
বিশ্বব্যাপী
বাংলাদেশ
আক্রান্ত
২২৭৯২৩৮৮৭
আক্রান্ত
১৫৪১৩০০
সুস্থ
২০৪৬০৬২০৫
সুস্থ
১৪৯৮৬৫৪
শীর্ষ সংবাদ: