ঢাকা, বাংলাদেশ   শনিবার ০২ মার্চ ২০২৪, ১৭ ফাল্গুন ১৪৩০

কিশোরীকে ধর্ষণের অভিযোগ

প্রকাশিত: ০৪:০২, ২৫ জুন ২০১৮

 কিশোরীকে ধর্ষণের  অভিযোগ

নিজস্ব সংবাদদাতা, মাদারীপুর, ২৪ জুন ॥ রবিবার ভোররাতে রাজৈর উপজেলার কোদালিয়া বাজিতপুর গ্রামের রাজা ফকিরের ছেলে রফিক ফকিরের (২৫) বিরুদ্ধে পার্শ্ববর্তী আমগ্রামের পূর্ব তেলিকান্দির গ্রামের এক কিশোরী (১৫) কে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। সকালে ধর্ষিতাকে উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরিবার ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, রাজৈর উপজেলার আমগ্রাম ইউনিয়নের পূর্ব তেলিকান্দি গ্রামের পিতৃহীন ওই কিশোরীকে মাঝে-মধ্যেই কুপ্রস্তাব দিয়ে উত্ত্যক্ত করত কোদালিয়া বাজিতপুর গ্রামের রাজা ফকিরের ছেলে রফিক ফকির। তার প্রস্তাবে সাড়া না দেয়ায় ওই কিশোরীর ওপর ক্ষিপ্ত হয় রফিক। রবিবার ভোররাতে কিশোরীকে বাড়িতে একা পেয়ে রাজা ফকিরের ছেলে রফিক ফকির ও তার এক বন্ধু কৌশলে ঘরে প্রবেশ করে কিশোরীর মুখ চেপে ধরে রফিক তাকে ধর্ষণ করে ভোরের অন্ধকার থাকতেই পালিয়ে যায়। ঘটনার সময় রফিকের আরও দুইবন্ধু ঘরের বাইরে পাহারা দিতে থাকে। সকালে ঘরের দরজা খোলা দেখে পরিবারের লোকজন গিয়ে কিশোরীকে উদ্ধার করে মাদারীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। ধর্ষিতা কিশোরী বলেন, ‘আরও ৫/৬ মাস পূর্বে থেকে রফিক বিভিন্ন সময় রাস্তায় একা পেয়ে আমাকে কুপ্রস্তাব দিয়ে বিরক্ত করত। আমি লোকলজ্জায় কাউকে কিছু বলিনি। কিন্তু ও যে আমার এত বড় ক্ষতি করবে তা ভাবিনি। আমি রফিকের কঠোর শাস্তির দাবি জানাই।’ ধর্ষিতার মা সাংবাদিকদের কাছে বলেন, ‘আমরা গরিব মানুষ। আমার স্বামী মারা যাবার পর থেকে আমি দিন মজুরের কাজ করে সংসার চালাই। আমি দুইদিন আগে আমার ভাইয়ের বাড়ি খালপাড়ে বেড়াতে যাই। আমার মেয়েকে বাড়িতে একা পেয়ে রফিক তার লোকজন নিয়ে আমার মেয়ের সর্বনাশ করেছে। আমি এ ঘটনার বিচার চাই।’
×