রবিবার ১২ আষাঢ় ১৪২৯, ২৬ জুন ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা

প্রধানমন্ত্রী ফিরেছেন

বিশেষ প্রতিনিধি ॥ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অস্ট্রেলিয়ায় তিন দিনের সরকারী সফর শেষে দেশে ফিরেছেন। রবিবার স্থানীয় সময় বিকেল চারটায় (বাংলাদেশ সময় দুপুর বারোটা) থাই এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইটে সিডনির কিংসফোর্ড স্মিথ আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে প্রধানমন্ত্রী দেশের উদ্দেশ্যে রওনা হন। অস্ট্রেলিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাইকমিশনার মোঃ সুফিউর রহমান বিমানবন্দরে প্রধানমন্ত্রীকে বিদায় জানান। প্রধানমন্ত্রী দেশে ফেরার পথে প্রায় এক ঘণ্টা থাইল্যান্ডের রাজধানী ব্যাঙ্ককে যাত্রাবিরতি করেন। প্রধানমন্ত্রী এবং তার সফরসঙ্গীদের বহনকারী ফ্লাইটটি রবিবার রাত বারোটা ৫০ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে।

অস্ট্রেলিয়া সফরকালে প্রধানমন্ত্রী ‘গ্লোবাল সামিট অব উইমেনে’ যোগ দেন। সম্মেলনে তাকে মর্যাদাপূর্ণ ‘গ্লোবাল উইমেন লিডারশিপ এ্যাওয়ার্ড-২০১৮’ তে ভূষিত করা হয়। শেখ হাসিনা শুক্রবার সিডনি আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টারে (আইসিসি) ‘গ্লোবাল উইমেন লিডারশিপ এ্যাওয়ার্ড-১৮’ গ্রহণ করেন এবং প্রীতিভোজে যোগ দেন। যুক্তরাষ্ট্রভিত্তিক ‘গ্লোবাল সামিট অব উইমেন’ প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বাংলাদেশে নারী শিক্ষা এবং নারী উদ্যোক্তা সৃষ্টিতে নেতৃস্থানীয় ভূমিকার জন্য এই সম্মাননায় ভূষিত করে। সম্মাননা গ্রহণ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অধিকার আদায়ে বিশ্বের নারীদের নতুন করে জোটবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান এবং চার দফা প্রস্তাব তুলে ধরেন।

প্রধানমন্ত্রী সফরকালে অস্ট্রেলীয় প্রধানমন্ত্রী ম্যালকম টার্নবুলের সঙ্গে তার বাসভবনে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক করেন। সেখানে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনে মিয়ানমারের ওপর চাপ অব্যাহত রাখার তার সরকারের প্রতিশ্রুতির কথা বলেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী। শনিবার সিডনির প্যারাম্যাটায় ওয়েস্টার্ন সিডনি ইউনিভার্সিটির সাউথ ক্যাম্পাস পরিদর্শন করেন প্রধানমন্ত্রী। সেখানে তিনি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আবক্ষ ভাস্কর্যে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা জানান। ভিয়েতনামের ভাইস প্রেসিডেন্ট ড্যাং থাই নগক থিন এবং অস্ট্রেলিয়ার পররাষ্ট্রমন্ত্রী জুলি বিশপ প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তার হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টালে সাক্ষাত করেন। শেখ হাসিনা ওয়েস্টার্ন সিডনিী বিশ্ববিদ্যালয় পরিদর্শন করেন এবং হোটেল সোফিটেলে প্রবাসী বাংলাদেশীদের এক অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

Sheikh Rasel

জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর কন্যা ও প্রধানমন্ত্রীর ছোট বোন শেখ রেহানা ছাড়াও পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী, মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মেহের আফেরাজ চুমকী, পররাষ্ট্র সচিব মোঃ শহীদুল হক, প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম, আওয়ামী লীগের আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক শাম্মী আহমেদ, শিক্ষা ও মানবসম্পদ সম্পাদক শামসুন নাহার চাঁপা, স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক রোকেয়া সুলতানা, কার্যনির্বাহী সংসদের সদস্য মেরিনা জাহান ও পারভীন জামান প্রধানমন্ত্রীর সফরসঙ্গী ছিলেন।

শীর্ষ সংবাদ: