ঢাকা, বাংলাদেশ   শুক্রবার ১২ আগস্ট ২০২২, ২৮ শ্রাবণ ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

জমি লিখে না দেয়ায় স্বামীকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা, কব্জি বিচ্ছিন্ন

প্রকাশিত: ০৬:০৬, ২২ মার্চ ২০১৮

জমি লিখে না দেয়ায় স্বামীকে কুপিয়ে হত্যার চেষ্টা, কব্জি বিচ্ছিন্ন

নিজস্ব সংবাদদাতা বাউফল, ২১ মার্চ ॥ স্ত্রীর নামে জমি লিখে না দেয়ায় স্বামীকে হত্যার উদ্দেশে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখমসহ হাতের একটি কব্জি বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয়েছে। আহত স্বামীকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকার পঙ্গু হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। মঙ্গলবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে পৌর শহরের ৮নং ওয়ার্ডে পশ্চিম উত্তর পাশে এ ঘটনা ঘটেছে। আহত স্বামীর নাম মোঃ মনির হোসেন। তিনি পেশায় একজন হোটেল ব্যবসায়ী। মনির জানায়, তিনি উপজেলার কেশবপুর ইউপির ভরিপাশা গ্রামের মোস্তফা হাওলাদারের মেয়ে বেবী বেগমকে বিয়ে করেন। তাদের সংসারে তিন মেয়ে ও দুই ছেলে সন্তান রয়েছে। কয়েক বছর আগে তিনি পৌরশহরের ৮নং ওয়ার্ডে মহিলা কলেজে সড়কের পশ্চিম-উত্তর দিকে প্রায় আড়াই কড়া জমি কিনে বাড়ি করেন। সম্প্রতি ওই জায়গা ও বাড়ি স্ত্রী বেবী বেগম তার নিজ নামে লিখে দেয়ার জন্য বিভিন্নভাবে চাপ দিয়ে আসছিলেন। কিন্তু তিনি কোনভাবেই রাজি হননি। ঘটনার দিন রাত ৩টার দিকে স্ত্রী বেবী আক্তার, মেয়ে মানছুরা, শ্বশুর মোস্তফা হাওলাদার, ধর্ম জামাই গনি ওরফে লম্বা গনি, শ্যালক কুদ্দুস ও কালাম ঘুমন্ত মনিরকে মুখ বেঁধে ঘরের বাইরে এনে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে। এ ঘটনায় মনিরের মুখের পাঁচটি দাঁত ভেঙ্গে দেয়। এক পর্যায়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে তার ডান হাতের কব্জি বিচ্ছিন্ন করে দেয়া হয় এবং বাম পা ভেঙ্গে ফেলা হয়েছে। পরে স্থানীয় কয়েক ব্যক্তি বিষয়টি টের পেয়ে তাকে উদ্ধার করেন। পরে ওসি মোঃ মনিরুল ইসলামের সহায়তায় প্রথমে বাউফল হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে তার অবস্থা খারাপ হওয়ায় বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে সেখান থেকে ঢাকা পঙ্গু হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়। প্রতিবেশী বশার মাস্টার, দেলোয়ার হোসেন মিলন, আলমগীর মাস্টার ও মজিরন জানান, এর আগেও তাকে মারধর করা হয়।
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২

শীর্ষ সংবাদ: