ঢাকা, বাংলাদেশ   মঙ্গলবার ০৯ আগস্ট ২০২২, ২৫ শ্রাবণ ১৪২৯

পরীক্ষামূলক

এলগার-আমলার অর্ধশতকে জবাব প্রোটিয়াদের

প্রকাশিত: ০৬:৫৭, ১১ মার্চ ২০১৮

এলগার-আমলার অর্ধশতকে জবাব প্রোটিয়াদের

স্পোর্টস রিপোর্টার ॥ প্রথমদিনই পেসারদের নৈপুণ্যে অস্ট্রেলিয়াকে ২৪৩ রানে গুটিয়ে দিয়েছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। দিনশেষে ১ উইকেটে ৩৯ রান তোলা দক্ষিণ আফ্রিকা দ্বিতীয়দিন লড়াইটা ভালই করছিল ডিন এলগার ও হাশিম আমলার অর্ধশতকে। কিন্তু অস্ট্রেলিয়ার পেসাররাও বেশ ভালভাবেই চেপে ধরেছে। জোড়া অর্ধশতক পাওয়া এলগার-আমলা সাজঘরে ফিরে যাওয়ার পর লড়ছে প্রোটিয়ারা। কাগিসো রাবাদা দুর্দান্ত বোলিং করে ৫ উইকেট তুলে নেন। ফলে ২৪৩ রানেই গুটিয়ে যায় অস্ট্রেলিয়ার প্রথম ইনিংস। তার সঙ্গে অপর দুই পেসার ভারনন ফিল্যান্ডার ও লুঙ্গি এনগিদি অসি ব্যাটসম্যানদের বেশ সমস্যায় ফেলেন। দিনশেষে অবশ্য দক্ষিণ আফ্রিকাও ৩৯ রান তুলতে গিয়ে ১ উইকেট হারিয়ে ফেলে। এইডেন মার্করামকে (১১) সাজঘরে ফেরান অসি পেসার প্যাট কামিন্স। তবে নাইটওয়াচম্যান হিসেবে নামা রাবাদা দারুণ নৈপুণ্য দেখান। তিনি ১৭ রান করে অপরাজিত থাকেন। শনিবার দ্বিতীয়দিন বেশ ভালভাবেই শুরু করেছিল দক্ষিণ আফ্রিকা। বিশেষ করে রাবাদাকে সাজঘরে ফেরাতে আরও ৮.২ ওভার খরচা করতে হয়েছে অসি বোলারদের। ২৯ রান করা রাবাদা সাজঘরে ফিরলেও এলগার ছিলেন দারুণ ধৈর্যশীল। তিনি দেখে শুনে খেলছিলেন। তৃতীয় উইকেটে আমলার সঙ্গে তিনি ৮৮ রান যোগ করেন। উভয়ে অর্ধশতক হাঁকান। দু’জন মধ্যাহ্ন বিরতি পর্যন্ত ৭১ রান যোগ করেন নির্বিঘেœ। তবে চা বিরতির আগে ২৬ ওভারে এ দুই ব্যাটসম্যান মাত্র ৪৩ রান যোগ করেন দলীয় সংগ্রহে। ধীরস্থির আর সতর্ক ব্যাটিংয়ের এমন প্রদর্শনী দেখিয়ে অসি বোলারদের হতাশ করেন তারা। উভয়ে তুলে নেন অর্ধশতক। চা বিরতির পর আর ধৈর্য রাখতে পারেনি এ দুই ব্যাটসম্যান। এ দু’জনকে সাজঘরে ফিরিয়ে দিয়ে সাফল্য পায় অস্ট্রেলিয়ার পেসাররা। ১৪৮ বলে ৬ চারে ৫৬ রান করার পর মিচেল স্টার্কের বলে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন আমলা। পরের ওভারেই এলগার আউট হয়ে যান জশ হ্যাজলউডের বলে উইকেটের পেছনে ক্যাচ দিয়ে। তিনি ১৯৭ বলে ৬ চারে ৫৭ রান করেছিলেন। এলগার-আমলার সতর্ক ও মন্থর ব্যাটিং দেখেই পরিষ্কার হয়ে যায় অসি পেসাররা আষ্টেপৃষ্ঠে চেপে ধরেছিলেন তাদের। এ দু’জনের বিদায়ের পর অভিজ্ঞ এবি ডি ভিলিয়ার্স ও অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস লড়াই চালিয়ে যাচ্ছেন। ৭৫ ওভার পর্যন্ত ব্যাট করে ৪ উইকেটে ১৭৫ রান তুলেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। এখনও তারা পিছিয়ে আছে ৬৮ রানে। কামিন্স নিয়েছেন দুই উইকেট।
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২
ডিজিটাল বাংলাদেশ পুরস্কার ২০২২