বুধবার ১৩ মাঘ ১৪২৮, ২৬ জানুয়ারী ২০২২ ঢাকা, বাংলাদেশ
প্রচ্ছদ
অনলাইন
আজকের পত্রিকা
সর্বশেষ

আমতলীতে সড়কের ওপর ধানের বাজার ॥ যান চলাচলে বিঘ্ন

নিজস্ব সংবাদদাতা, আমতলী, বরগুনা, ২২ জানুয়ারি ॥ পটুয়াখালী-কুয়াকাটা মহাসড়কের শাখারিয়া থেকে বান্দ্রা পর্যন্ত ৩৭ কিলোমিটার সড়কের ওপরে অর্ধ-শতাধিক অবৈধ ধানের বাজার গড়ে উঠছে। এতে যান চলাচলে মারাত্মক বিঘœ হচ্ছে। অহরহ ঘটছে দুর্ঘটনা। রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সরকার। জানা গেছে, আমতলী উপজেলায় এ বছর আমন ধানের উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা ধরা হয়েছে ৭৮ হাজার মেট্রিক টন। এ ধানের ৬০ ভাগ ধান কৃষক বিক্রি করে। ফড়িয়ারা নিজেদের ইচ্ছামাফিক মহাসড়কের ওপর অবৈধ ধানের বাজার গড়ে তুলে কৃষকদের কাছ থেকে ধান ক্রয় করছে। এ সকল বাজারে ফড়িয়াদের কোন রাজস্ব দিতে হয় না। এতে সরকার কর্তৃক নির্ধারিত বাজার থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন কৃষকরা। ফলে রাজস্ব থেকে বঞ্চিত হচ্ছে সরকার। ফড়িয়ারা যশোর, খুলনা, গাইবান্ধা, কুষ্টিয়াসহ দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে ধান চালানের জন্য তাদের সুবিধার জন্য ট্রাক, কাভার ট্রাক, লরি মহাসড়কের ওপরে দাঁড় করিয়ে ধান বোঝাই করে থাকেন। এদিকে মহাসড়কের পাশে অবৈধ বাজার গড়ে ওঠায় সরকার কর্তৃক নির্ধারিত বাজারে কৃষকরা ধান নিয়ে যাচ্ছে না। এতে সরকার রাজস্ব আদায় করতে পারছে না। ফলে হাটবাজার ইজারাদাররা আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। এভাবে চলতে থাকলে তারা হাটবাজার ইজারা নিতে আগ্রহ হারিয়ে ফেলবে বলে ধারণা করছে সংশ্লিষ্টরা। রবিবার সরেজমিনে ঘুরে দেখা গেছে, মহাসড়কের আমতলী থেকে বান্দ্রা পর্যন্ত ৩৭ কিলোমিটার সড়কে শাখারিয়া, ব্রিক ফিল্ড, কেওয়াবুনিয়া, মহিষকাটা, চুনাখালী, সাহেববাড়ী, আকড়াগাছিয়া, ডাক্তারবাড়ী, শিকদার বাড়ী, ঘটখালী, একে স্কুল, বাধঘাট, হাসপাতালের সামনে, ছুড়িকাটা, মানিকঝুড়ি, খুড়িয়ার খেয়াঘাট, আকনবাড়ী, ফকিরবাড়ী, খলিয়ান, কল্যাণপুর ও বান্দ্রাসহ উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অর্ধশতাধিক অবৈধ ধানের বাজার রয়েছে। কল্যাণপুর গ্রামের জলিল মিয়া জানান, এখন আর ধান বিক্রি করতে বাজারে যেতে হয় না। ফড়িয়ারা বাড়িতে এসে ধানের বায়না করে যায়। ধান গাড়িতে করে তাদের নির্ধারিত বাজারে পৌঁছে দেই। পশ্চিম সোনাখালী গ্রামের সোহেল রানা জানান, বাড়িতে বসে ফড়িয়াদের কাছে ধান বিক্রি করেছি। ওই ধান সাহেববাড়ী স্ট্যান্ডে পৌঁছে দিয়েছি। বরগুনা বাস মালিক সমিতির লাইন সম্পাদক সজল মৃধা জানান, মহাসড়কে ধানের বাজার গড়ে ওঠার কারণে গাড়ি চলাচলে সমস্যা সৃষ্টি হচ্ছে। অতিদ্রুত এ বাজার বন্ধের দাবি জানাই। আমতলী উপজেলা আড়ৎদার সমিতির কোষাধ্যক্ষ জাকির হোসেন বলেন, উপজেলার মহাসড়কের ওপরে অর্ধশতাধিক স্থানে ফড়িয়ারা অবৈধভাবে ধানের বাজার গড়ে তুলেছে। এতে কৃষকরা সরকার কর্তৃক নির্ধারিত বাজারে ধান নিয়ে আসছে না। ফলে আড়ৎদাররা চাহিদা মতো ধান না পেয়ে তাদের ব্যবসা বন্ধের উপক্রম হচ্ছে। আমতলী উপজেলা ধান বাজারের ইজারাদার কবির মৃধা বলেন, অবৈধভাবে মহাসড়কের ওপরে ধানের বাজার গড়ে তোলায় ইজারাদার রাজস্ব আদায় করতে পারছে না। এতে ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে সরকার ও ইজারাদার। তিনি আরও বলেন, এভাবে চলতে থাকলে আগামী বছরে হাটবাজার ইজারা নেয়ার প্রতি আগ্রহ থাকবে না। তিনি অতিদ্রুত অবৈধভাবে গড়ে তোলা ধানের বাজার বন্ধের দাবি জানান।

শীর্ষ সংবাদ:
অবশেষে অনশন ভঙ্গ ॥ শাহজালালের ঘটনায় কিছুটা স্বস্তি         শিক্ষার্থীদের সব দাবি বাস্তবায়নের আশ্বাস শিক্ষামন্ত্রীর         দেশ অপ্রতিরোধ্য গতিতে উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাচ্ছে         বিএনপি ৮ লবিস্ট নিয়োগ দিয়েছিল         ওমিক্রন মোকাবেলায় আসছে নতুন গাইডলাইন         রাজধানীসহ কোন কোন এলাকায় ভারি বৃষ্টি, জনদুর্ভোগ         অপরাধ দমনে কাজের স্বীকৃতি পেল পুলিশের বিভিন্ন ইউনিট         অর্থ পাচার রোধে দক্ষিণ কোরিয়ার মতো কঠোর আইন প্রয়োজন         এগিয়ে চলাকে স্তব্ধ করতে নানা ষড়যন্ত্র চলছে         অর্থনীতি পুনরুদ্ধারে আরও তিন বছর লাগবে         তদন্ত এগোনোর পর এখনও এজাহার জটিলতার নেপথ্যে -         বগুড়ায় বাসের ধাক্কায় অটোরিক্সার ৫ যাত্রী নিহত         আসছে নতুন শিক্ষাক্রম, সময়মতো চালুর বিষয়ে শঙ্কা         নগ্ন ছবি, ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দিয়ে টাকা দাবি         বাংলাদেশের গ্রামীণ হাসপাতাল পেল বিশ্ব সেরার স্বীকৃতি         ওমিক্রনরোধে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের নতুন গাইডলাইন         শাবিপ্রবি সংকট : শিক্ষার্থীদের সব দাবি বাস্তবায়ন হবে ॥ শিক্ষামন্ত্রী         জামিন পেলেন শাবিপ্রবির সাবেক ৫ শিক্ষার্থী         করোনা : গত ২৪ ঘন্টায় মৃত্যু ১৭, শনাক্ত ১৫৫২৭         ‘শাবির ঘটনায় পুলিশের দায় থাকলে ব্যবস্থা’