ঢাকা, বাংলাদেশ   রোববার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০ আশ্বিন ১৪২৯

ভাসানটেকে ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণ, ধর্ষক গ্রেফতার

প্রকাশিত: ০৫:২০, ২৮ নভেম্বর ২০১৭

ভাসানটেকে ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণ, ধর্ষক গ্রেফতার

স্টাফ রিপোর্টার ॥ রাজধানীর ভাসানটেক এলাকায় ষষ্ঠ শ্রেণীর এক শিক্ষার্থীকে (১৪) ধর্ষণের পর ভিডিও চিত্র ধারণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রায় তিন মাস ধরে পাশবিক নির্যাতন করে যাচ্ছিল রহমান দেওয়ান (৬০)। এ ঘটনায় নির্যাতিত পরিবার বাদী হয়ে থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করেছে। পরে পুলিশ ধর্ষক বৃদ্ধ রহমান দেওয়ানকে গ্রেফতার করেছে। এদিকে সোমবার দুপুরে ওই স্কুল ছাত্রীকে পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ফরেনসিক বিভাগে পাঠানো হয়। ভুক্তভোগীর স্বজনরা জানান, তিন মাস আগে রহমান দেওয়ান ফুসলিয়ে মেয়েটিকে তার বাসায় নিয়ে যান। পরে মেয়েটিকে ধর্ষণ করে গোপনে তা ভিডিও চিত্র ধারণ করেন। এছাড়া ওই ভিডিও চিত্র ফাঁস করে দেয়ার ভয় দেখিয়ে মেয়েটিকে একাধিকবার ধর্ষণ করেন। এক পর্যায়ে রবিবার বিকেলে ওই ছাত্রী তার মাকে জানায়। নির্যাতিতার বাবা সিএনজি চালক আর মা পোশাক শ্রমিক। নির্যাতিতার মা জানান, আমার মেয়েকে ভয় দেখিয়ে রহমান দেওয়ান বলেছেন ‘তোকে মেরে ফেলব, তোর বাবাকে মেরে ফেলব। তোর বাবা রাত-বিরাত চলাচল করে। গাড়ি এ্যাক্সিডেন্ট করিয়ে মেরে ফেলব যদি মুখ খুলিস।’ এ ব্যাপারে ভাসানটেক থানার ওসি মুন্সী ছাব্বীর আহ্ম্মদ বলেন, পরিবারের সদস্য বিষয়টি পুলিশকে জানালে প্রাথমিক তদন্তে ঘটনার সত্যতা পাওয়া যায়। রবিবার রাতে অভিযুক্ত রহমান দেওয়ানকে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃত ধর্ষণের কথা স্বীকার করেছেন। এ ঘটনায় ভিকটিমের বাবা একটি মামলা করেছেন।